কোর্ট ইনসাইড

কুমিল্লার জমিনে শায়িত হবেন বাসেত মজুমদার 

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১১:২৯ এএম, ২৭ অক্টোবর, ২০২১


Thumbnail

বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও প্রবীণ আইনজীবী আবদুল বাসেত মজুমদার মারা গেছেন। আজ বুধবার (২৭ অক্টোবর) সকাল ৮টার ১৮ মিনিটে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় মারা যান তিনি। 

বাসেত মজুমদারের চেম্বারের জুনিয়র আইনজীবী রাফসান আলভী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 রাফসান আলভী বলেন, স্যার আজ (বুধবার) সকাল ৮টার ১৮ মিনিটে ইউনাইটেড হাসপাতালে মারা গেছেন। আজ বাদ জোহর ১টা ৪৫ মিনিটে সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে ওনার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। পরে তাকে কুমিল্লায় নিয়ে যাওয়া হবে। কুমিল্লার নিজ বাড়িতে জানাজা শেষে সেখানেই তাকে দাফন করা হবে। মৃত্যুকালে বাসেত মজুমদার দুই ছেলে ও দুই মেয়ে মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও শুভাকাঙ্ক্ষী রেখে গেছেন।

প্রসঙ্গত, গত ৩০ সেপ্টেম্বর আবদুল বাসেত মজুমদার অসুস্থ হয়ে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। কয়েকদিন পরে শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলে তিনি হাসপাতাল থেকে বাসায় ফেরেন। এরপর গত বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) তিনি আবার ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি হন। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে সোমবার (২৫ অক্টোবর) তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়। দীর্ঘদিন ধরে মেরুদণ্ডের সমস্যাসহ বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন তিনি।

বাসেত মজুমদার ১৯৩৮ সালের ১ জানুয়ারি, কুমিল্লার লাকসাম (বর্তমানে লালমাই) উপজেলার শানিচোঁ গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা আব্দুল আজিজ মজুমদার, মা জোলেখা বিবি। স্থানীয় হরিচর হাইস্কুল থেকে ম্যাট্রিক (এসএসসি) এবং কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ থেকে আইএ (এইচএসসি) ও বিএ পাস করেন তিনি। তারপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স ও এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করেন। পরে ১৯৬৬ সালে ঢাকা হাইকোর্টে আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হন। এরই মধ্যে তিনি তার আইনজীবী পেশায় ৫৬ বছর অতিক্রম করেছেন।

জ্যেষ্ঠ এ আইনজীবীর বড় ছেলে গোলাম মহিউদ্দিন আবদুল কাদের ব্যবসা করে। ছোট ছেলে অ্যাডভোকেট সাঈদ আহমদ রাজা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী। দুই মেয়ের মধ্যে ফাতেমা আক্তার লুনা রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী। সর্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মিউজিকে পড়াশোনা করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা করছেন। ছোট মেয়ে খাদিজা আক্তার ঝুমা উত্তরা মেডিকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক।

উল্লেখ্য, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য আবদুল বাসেত মজুমদার বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। আবদুল বাসেত মজুমদার দুস্থ আইনজীবীদের জন্য নিজের নামে ট্রাস্ট ফান্ড গঠন করেছেন। দেশের বিভিন্ন আইনজীবী সমিতিতে এই ফান্ড থেকে অর্থ সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। দীর্ঘ পেশাজীবনে ২০ হাজারেরও বেশি মানুষকে বিনামূল্যে বা নামমাত্র মূল্যে আইনি সহায়তা দিয়েছেন তিনি।

 



মন্তব্য করুন


কোর্ট ইনসাইড

শারীরিক উপস্থিতিতে আপিল বিভাগের বিচারকাজ শুরু

প্রকাশ: ১২:৫৫ পিএম, ০১ ডিসেম্বর, ২০২১


Thumbnail

করোনাভাইরাস মহামারি প্রকোপের কারণে দীর্ঘ প্রায় ২০ মাস পর শারীরিক উপস্থিতিতে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আজ বুধবার (১ নভেম্বর) সকাল ৯টার দিকে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চে এ বিচারকাজ শুরু হয়। একইদিন হাইকোর্ট বিভাগের বিচারকাজও শারীরিক উপস্থিত শুরু হবে।

প্রসঙ্গত, গত ২৯ নভেম্বর সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর স্বাক্ষরিত একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। সেখানে বলা হয়, আপিল ও হাইকোর্ট বিভাগে শারীরিক উপস্থিতিতে বিচারকাজ ১ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে।

গত বছরের মার্চে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ দেখা দেওয়ায় সরকার ‘সাধারণ ছুটি’ ঘোষণা করে। সেই অনুসারে আদালতেও সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়। তার আগে সশরীরে সর্বশেষ আপিল বিভাগ বসেছিল ১২ মার্চ। এরপর একই বছরের মে মাসে অধ্যাদেশ জারি করা হলে ভার্চুয়াল কোর্ট চালু হয়। পরে ভাইরাসের প্রকোপ কমতে থাকলে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে নিম্ন আদালতে পর্যায়ক্রমে শারীরিক উপস্থিতিতে কার্যক্রম চালু করা হয়। এরপর ভার্চুয়ালের পাশাপাশি হাইকোর্টের কয়েকটি বেঞ্চেও শারীরিক উপস্থিতিতে বিচারিক কার্যক্রম চালু করা হয়। তবে ২০২০ সালের ১২ মার্চের পর শারীরিক উপস্থিতিতে বিচার কার্যক্রমে বসেননি আপিল বিভাগ।  

এ অবস্থায় সুপ্রিম কোর্টে পুরোপুরিভাবে স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে অনুসরণ করে শারীরিক উপস্থিতিতে বিচারকাজ পরিচালনার জন্য ২৯ নভেম্বর একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। এতে বলা হয়, ১ ডিসেম্বর থেকে স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে অনুসরণ করে শারীরিক উপস্থিতিতে সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগের বিচারিক কার্যক্রম পরিচালিত হবে। 

আপিল-বিভাগ   আদালত  


মন্তব্য করুন


কোর্ট ইনসাইড

তথ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দুই মামলা

প্রকাশ: ০৯:৩৯ এএম, ০১ ডিসেম্বর, ২০২১


Thumbnail

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ সম্পর্কে অসত্য তথ্য ও ছবিবিকৃতির বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। রাজধানী ঢাকার সূত্রাপুর থানায় ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক ওমর ফারুক শিবলু এবং চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া থানায় রাঙ্গুনিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মো: আলী শাহ বাদী হয়ে এ দুইটি মামলা দায়ের করেন।

মামলা দুইটির এজাহারে বলা হয়, গত ২৫ নভেম্বর থেকে ফেইসবুকে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী সম্পর্কে  অসত্য তথ্য এবং ছবির বিকৃতি ঘটিয়ে কিছু পোস্ট ও শেয়ার দেখা গেছে। এতে মন্ত্রীসহ সরকার ও দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করা ও তার সমর্থকদের অনুভূতিতে আঘাত দেয়া হয়েছে। এজাহারে ফেইসবুক পোস্টের বিভিন্ন লিংক উল্লেখ করে যারা এ ধরণের পোস্ট দিয়েছেন, শেয়ার করেছেন এবং লাইকসহ বিরূপ মন্তব্য করেছেন তাদের চিহ্নিত করে আশু আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার আবেদন জানানো হয়।

তথ্যমন্ত্রী   মামলা   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন  


মন্তব্য করুন


কোর্ট ইনসাইড

কপিরাইট মামলায় আদালতে বাংলালিংকের সিইওসহ ৪ কর্মকর্তা

প্রকাশ: ০৮:৩৭ পিএম, ৩০ নভেম্বর, ২০২১


Thumbnail

কপিরাইট লঙ্ঘনের অভিযোগে নগরবাউলের জেমস ও মাইলসের করা মামলায় বাংলালিংকের সিইওসহ চার কর্মকর্তা আদালতে হাজির হয়েছিলেন। তাদের করা আবেদনে ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত জামিন দিয়েছেন আদালত। মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক কে এম ইমরুল কায়েস এ আদেশ দেন।
ব্যান্ড নগরবাউল ও মাইলসের আটটি গান কপিরাইট লঙ্ঘন করে ১৪ বছর ধরে ব্যবহার করছে মোবাইল অপারেটর কোম্পানি বাংলালিংক। বিভিন্ন সময়ে গানগুলো সরিয়ে নিতে বলা হলেও তারা তা সরায় নি। পরে ২০১৭ সালে প্রতিষ্ঠানটিকে আইনি নোটিশ ও মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমেও গান সরিয়ে নিতে বলা হয়। কিন্তু তাতেও গুরুত্ব দেয়নি বাংলালিংক।
এরই প্রেক্ষিতে গেল ১০ নভেম্বর কপিরাইট লঙ্ঘনের অভিযোগে বাংলালিংকের বিরুদ্ধে মামলা করেন জেমস ও মাইলস ব্যান্ড। আদালত আবেদনটি গ্রহণ করে প্রতিষ্ঠানের পাঁচ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সমন জারি করে।
মঙ্গলবার সকালে বাংলালিংকের সিইওসহ চার কর্মকর্তা হাজির হন আদালতে। এসময় তারা জামিনের আবেদন করেন। আদালত ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত তাদের জামিন মঞ্জুর করেন আদালত। বাংলালিংকের আইনজীবী জানান, এ সময়ের মধ্যে আপোষ করে তারা আদালতকে অবহিত করবেন। তবে ব্যান্ড দুটির কত টাকা পাওনা সে বিষয়ে আপোষের পরই তা জানা যাবে।
আপোষে নিষ্পত্তি না হলে ৬ ডিসেম্বর আবারো জামিনের মেয়াদ বাড়াতে আবেদন করতে হবে বাংলালিংকের কর্মকর্তাদের।



মন্তব্য করুন


কোর্ট ইনসাইড

জি কে শামীমের মাকে আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

প্রকাশ: ০৩:১৭ পিএম, ২৯ নভেম্বর, ২০২১


Thumbnail

জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদের মামলায় ঠিকাদার জি কে শামীমের মা আয়েশা আকতারকে বিচারিক আদালতে আট সপ্তাহের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আজ সোমবার (২৯ নভেম্বর) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।

আমিন উদ্দিন মানিক বলেন, জি কে শামীমের মা আয়েশা আকতার হাসপাতাল থেকে আগাম জামিনের জন্য অ্যাম্বুলেন্সে করে হাইকোর্টে এসেছেন। আদালত আগাম জামিন না দিয়ে ৮ সপ্তাহের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন।


মন্তব্য করুন


কোর্ট ইনসাইড

জাহাঙ্গীরের নামে সাইবার ট্রাইব্যুনালে মামলা

প্রকাশ: ০২:১৮ পিএম, ২৯ নভেম্বর, ২০২১


Thumbnail

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি করায় গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বহিষ্কৃত মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে নতুন করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে।  

গতকাল রোববার (২৮ নভেম্বর) ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আসসামছ জগলুল হোসেনের আদালতে মামলাটি দায়ের করেন ওমর ফারুক আসিফ নামে এক আইনজীবী।

বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে আগামী ৬ জানুয়ারির মধ্যে সিআইডিকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন