ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ , ৩ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

রিজভীর নতুন আবিষ্কার

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ০১:৪৫ পিএম
রিজভীর নতুন আবিষ্কার

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আজ সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বসেছিলেন। তাঁর সমর্থক নেতা কর্মীরা হাজির হয়েছিল। কারও হাতে ছিল নাস্তা, কারও কাছে চা-কেউ এনেছিল কফি। এসব আয়োজনের মধ্যে দিয়েই চলছিল রাজা-উজির মেরে দেশ জাতি উদ্ধারের আলোচনা। আলোচনার মধ্যমণি বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের স্থায়ী বাসিন্দা রিজভী।

আলোচনার এক পর্যায়ে রিজভীর এক ঘোষণায় আশে পাশের নেতাকর্মীদের কথাবার্তা থেমে যায়। রুহুল কবির রিজভী বলেন, আমি গতকাল রাতে এক নতুন বিষয় আবিষ্কার করেছি। আমি চিন্তা করে বের করেছি সরকার এখন কেন আমাদের আন্দোলন করার অনুমতি দিচ্ছে।

রিজভী পন্থী নেতাকর্মীরা হুমড়ি খেয়ে পড়েন। বলেন, লিডার আপনার আবিষ্কারটা কী, বলেন?

রিজভী আগ্রহী হয়ে বলতে থাকেন, আমি চিন্তা করে দেখলাম আগে অনুমতি না দেওয়া হলেও এখন আমরা সমাবেশের অনুমতি পাচ্ছি। কারণ হচ্ছে আমরা সমাবেশ করলেই নেতাকর্মীরা জড়ো হয়। আর পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করার সুযোগ পায়। অনেক নেতাকর্মী এভাবে গ্রেপ্তার হয়েছে বলে দাবি করেন রিজভী। এমনকি তাঁর কাছে তালিকা করা আছে বলেও নেতাকর্মীদের জানান বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব।

মন্ত্রমুগ্ধের মতো রিজভীর কথা শুনতে থাকা নেতাকর্মীদের সম্বিত ফেরে এক নেতার কথায়, কিন্তু সিনিয়র নেতারা তো গ্রেপ্তার হচ্ছেন না?

এমন প্রশ্নে অপ্রস্তুত রিজভী থমমত খেয়ে বলেন, তাঁদের অনেকের তো জামিন পেয়েছেন, তাই হয়তো…

থমমত রিজভীকে আরেক নেতা প্রশ্ন করে বসেন, লিডার তাহলে আপনি কী বলেন? আমরা সমাবেশ করবো না?

এমন প্রশ্নে চিন্তায় পড়ে যান রিজভী? তাঁর চিন্তাকে আরও বাড়িয়ে দেয় অপর এক কর্মীর প্রশ্ন, নেতা সমাবেশ করতে না দিলে আপনিই তো বলেন, সরকার সমাবেশ করতে দেয় না। এখন সমাবেশ করতে দিলেও কী আমরা সমাবেশ করবো না?

এরপর আর রিজভীর খোশ আলোচনা জমেনি। অবশ্য কিছুক্ষণের মধ্যে আড্ডা থেকে উঠে যান রিজভী।

রিজভীর কথার পরিপ্রেক্ষিতে বিএনপির একাধিক নেতা বলেছেন, দিনরাত কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পড়ে থাকে, রাস্তার কোনো কর্মসূচি নেই। এখন কর্মসূচি হলেও তা বন্ধে তত্ত্ব আবিষ্কার। কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পড়ে থেকে বিবৃতি আর প্রেস কনফারেন্স করলে কি বেগম জিয়া মুক্ত হবেন। 


বাংলা ইনসাইডার/জেডএ