ঢাকা, বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

‘বিএনপিকে ক্ষমতায় এনে আমার কী লাভ?’

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ শনিবার, ১১:০১ এএম
‘বিএনপিকে ক্ষমতায় এনে আমার কী লাভ?’

একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে আজ শনিবার বিকেলে যুক্তফ্রন্ট ও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এই পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল শুক্রবার বিকেল সোয়া ৫টার দিকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ যুক্তফ্রন্ট চেয়ারম্যান অধ্যাপক বদরুদ্দোজা চৌধুরীর বারিধারার বাসায় যান। সেখানে কিছুক্ষণের জন্য মাহী বি. চৌধুরীও উপস্থিত ছিলেন। বি. চৌধুরীর সঙ্গে দেখা করে বিএনপি নেতারা তাঁকে আজকের সমাবেশে যোগ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বি. চৌধুরীকে বলেন, ড. কামাল হোসেনের গণফোরামের ডাকে মহানগর নাট্যমঞ্চে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আর ওই সমাবেশে বি. চৌধুরীর যোগ দেওয়া জরুরি। ওই সমাবেশে বি. চৌধুরীকে প্রধান অতিথি করা হয়েছে বলেও জানান মির্জা ফখরুল। তখন বি. চৌধুরী বলেন, বিএনপিকে ক্ষমতায় আনার জন্য এই জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া করা হচ্ছে। কিন্তু তিনি চান না বিএনপি ক্ষমতায় আসুক। আওয়ামী লীগ রাজত্ব থেকে বিএনপির রাজত্বে প্রবেশের পক্ষপাতী নন তিনি। এই পর্যায়ে বিএনপি মহাসচিব প্রশ্ন করেন, আপনি তাহলে কী চান? জবাবে বি. চৌধুরী বলেন, তিনি চান বাংলাদেশের রাজনীতিতে সুস্থতা আসুক, ভারসাম্য আসুক।

বিএনপি মহাসচিব তখন বি. চৌধুরীকে তাঁর দাবিগুলো উচ্চারণ করতে বললে যুক্তফ্রন্ট চেয়ারম্যান তাঁর দাবিগুলো জানান। এক পর্যায়ে বি. চৌধুরী মির্জা ফখরুলকে বলেন, ‘আমার সঙ্গে খালেদা জিয়া এবং তারেক কী করেছিল সেটা নিশ্চয়ই মনে আছে?’ এই কথায় বি. চৌধুরীর বারিধারার বাসায় এক আবেগঘন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন তখন এসব ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। কিন্তু মাহী বি. চৌধুরী বলেন, দুঃখ প্রকাশ করলেই সব সমস্যার সমাধান হয় না। এই কথার পর মাহী বৈঠকস্থল ত্যাগ করেন।

এরপর মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বি. চৌধুরীর কাছে দুঃখ প্রকাশ করে  তাঁর মান ভাঙ্গানোর চেষ্টা করেন। বি. চৌধুরী তখন বলেন, জাতীয় ঐক্যের সমাবেশে তিনি আসবেন কী আসবেন না সে ব্যাপারে সকালের দিকে সিদ্ধান্ত নেবেন। তিনি না গেলেও সম্ভবত তাঁর একজন প্রতিনিধিকে ঐক্য প্রক্রিয়ার সমাবেশে পাঠানো হবে বলেও জানান বি. চৌধুরী।


বাংলা ইনসাইডার/এসএইচটি/জেডএ