ঢাকা, সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ৭ আষাঢ় ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

যুক্তফ্রন্টে ভাঙনের সুর

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩ অক্টোবর ২০১৮ বুধবার, ১১:০৮ এএম
যুক্তফ্রন্টে ভাঙনের সুর

ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন নিয়ে যুক্তফ্রন্টের ঐক্যও এখন হুমকির মুখে পড়েছে। দ্বিধাবিভক্ত জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার গুরুত্বপূর্ণ দল যুক্তফ্রন্টও ঐক্যের প্রশ্নে খণ্ডিত হওয়ার সম্মুখীন। যুক্তফ্রন্টের এক পক্ষ চাইছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সঙ্গে সমঝোতায় গিয়ে জাতীয় সংসদের আসন ভাগাভাগি করে নিতে। কিন্তু যুক্তফ্রন্টের আরেকটি পক্ষ চাইছে বিএনপির সঙ্গে ঐক্য প্রতিষ্ঠা করে বেশি সংখ্যক আসনের অংশীদার হতে। এই নিয়ে যুক্তফ্রন্টের বিভক্তি গতকাল রাতে বিকল্প ধারার মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নানের বাসায় অনুষ্ঠিত দলটির নেতাদের এক বৈঠকে প্রকাশ্যে চলে এসেছে।

যুক্তফ্রন্ট নেতাদের গতকালের বৈঠকে নির্বাচনকে সামনে রেখে নবগঠিত রাজনৈতিক জোট জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার মুখ থুবড়ে পড়া নিয়ে আলোচনা হয়। এমন পরিস্থিতিতে ভবিষ্যৎ করণীয় বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে যুক্তফ্রন্ট চেয়ারম্যান ও বিকল্প ধারার সভাপতি অধ্যাপক ড. বদরুদ্দোজা চৌধুরী জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতা গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনের দেশে ফিরে আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করার পক্ষে। তবে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বিকল্প ধারা বর্তমানে আওয়ামী লীগের সঙ্গে দরকষাকষি করে আসন ভাগাভাগির গ্যারান্টি পেতেই বেশি আগ্রহী।

যুক্তফ্রন্টের অন্যান্য দলগুলোর অবস্থান আবার বিকল্প ধারা থেকে আলাদা। যুক্তফ্রন্টের অন্তর্ভুক্ত জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) ও নাগরিক ঐক্য বিএনপির সঙ্গে জোট করতে ইচ্ছুক। আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপির সঙ্গে আসন বণ্টনের ফয়সালা করতে চায় তারা। এই পরিপ্রেক্ষিতে বিকল্প ধারা থেকে প্রশ্ন উঠেছে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার বাইরে এককভাবে যুক্তফ্রন্টের সঙ্গে বিএনপি জোট করতে রাজি হবে কি না। বিএনপির সঙ্গে আলাদাভাবে ঐক্য করা হলে সে ঐক্য টিকবে কি না তা নিয়েও যুক্তফ্রন্টের বৈঠকে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়। তখন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না এই বিষয়ে বিএনপিকে রাজি করানোর দায়িত্ব নেন।

যুক্তফ্রন্ট সূত্রে জানা গেছে, নতুন করে জোট করবার উদ্দেশ্যে বিএনপির সঙ্গে যোগাযোগের জন্য মাহমুদুর রহমান মান্নাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। শিগগিরই এ বিষয়ে বিএনপি নেতৃবৃন্দের সঙ্গে যোগাযোগ করবেন তিনি।

বাংলা ইনসাইডার/এসএইচটি/জেডএ