ঢাকা, বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮, ২ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

জোট নিয়ে বিএনপিকে টেক্কা দিচ্ছে আ. লীগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২ অক্টোবর ২০১৮ শুক্রবার, ০৮:০০ পিএম
জোট নিয়ে বিএনপিকে টেক্কা দিচ্ছে আ. লীগ

নির্বাচনের আগে নতুন মিত্রের খোঁজ করছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। ১৪ দলকে রেখে একটি বৃহত্তর ঐক্য গড়তে কাজ করছে দলটি। মুলত: বিএনপি নির্বাচনে এলে, ২০০৮ এর আদলে বৃহত্তর ঐক্যের মাধ্যমে নির্বাচনে যেতে চায় আওয়ামী লীগ। এই বৃহত্তর জোটে জাতীয় পার্টি শেষ পর্যন্ত আওয়ামী লীগের সঙ্গে থাকবে বলেই মনে করছেন শীর্ষ নেতারা। কিন্তু শুধু জাতীয় পার্টির উপর নির্ভর করতে রাজী নয় আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগের একজন শীর্ষস্থানীয় নেতা বলেছেন, এরশাদ কখন কি করেন তা বোঝা মুশকিল। এজন্য আমরা বৃহত্তর প্লাটফর্ম করতে চাই।

সংশ্লিষ্টসূত্রগুলো জানিয়েছে, আওয়ামী লীগের প্রথম টার্গেট ছিলো বাম মোর্চা। বামদের সাথে মান অভিমান মিটিয়ে ফেলার উদ্যোগও নিয়েছিল শাসক দল। কিন্তু বামদের মান ভাঙ্গেনি। বরং বামরা একলা চলো নীতি নিয়ে এগুতে চায়। তারপরও আশা ছাড়েনি আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, বামরা আওয়ামী লীগের দীর্ঘদিনের পরিক্ষীত মিত্র। আমরা আশা করি, দেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থে বামরা এক হবে।’ একাধিক সূত্র বলছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই বামদের সাথে বসতে আগ্রহী। বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর সঙ্গে আওয়ামী লীগ একটি সম্পর্ক স্থাপনে সক্ষম হয়েছে। কাদের সিদ্দিকী যুক্তফ্রন্ট এবং ঐক্য প্রক্রিয়া থেকেও দূরে রয়েছেন। কাদের সিদ্দিকীর দল নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন বৃহত্তর ঐক্যে যেতে পারে বলে একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।

আওয়ামী লীগ বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলের অনেকের সঙ্গেও যোগাযোগ করছে। আওয়ামী লীগের একজন নেতা বলেছেন, ‘২০ দলের অনেকের কাছ থেকেই আমরা ইতিবাচক সাড়া পাচ্ছি।’ একাধিক সূত্রে পাওয়া খবরে জানা গেছে, কর্ণেল (অব:) অলি আহমেদের নেতৃত্বাধীন এলডিপি’র নির্বাচনে যাওয়ার সম্ভাবনা উজ্জ্বল। শেষ পর্যন্ত তিনি বৃহত্তর ঐক্যে যেতে পারেন। আওয়ামী লীগের সঙ্গে নির্বাচনী ঐক্যে আসতে পারে সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিমের নেতৃত্বে কল্যাণ পার্টিও। তিনিও বিএনপির আচরণে ক্ষুব্ধ। বিজেপি নেতা আন্দালিব রহমান পার্থের সঙ্গেও আওয়ামী লীগের ভালো যোগাযোগ রয়েছে। তবে পার্থ বৃহত্তর  আওয়ামী জোটে না গেলেও নির্বাচনে যে যাবে তা নিশ্চিত বলেই জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, শেষ পর্যন্ত যদি বিএনপি নির্বাচনে আসে তাহলে আওয়ামী লীগ মহাজোট নিয়ে আসবে। আওয়ামী লীগের নেতারা বলছে, ‘এই জোটে এমন কিছূ দল থাকবে যা দেখলে চমকে যাবেন।’ আর যদি শেষ পর্যন্ত বিএনপি না আসে সেক্ষেত্রে ঐ দলগুলোকে নির্বাচনের মাঠে দেখা যাবে। তবে এই সব জোটের বাইরে হেফাজতে ইসলাম, খেলাফত মজলিস, জাকের পার্টির মতো দলগুলোকে ইতোমধ্যে নির্বাচনের মাঠে নামিয়ে দিয়েছে আওয়ামী লীগ। এজন্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আগামী নির্বাচনে বিএনপি আসবে কিনা, সেটা জানি না। তবে এটা জানি যে, আগামী নির্বাচন হবে অংশগ্রহণমূলক এবং প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ।’

বাংলা ইনসাইডার/এমআরএইচ