ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ৯ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

‘বামরা কেন স্বাধীনতা বিরোধীদের ভাষায় কথা বলেন?’

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬ নভেম্বর ২০১৮ মঙ্গলবার, ০৮:৩৫ পিএম
‘বামরা কেন স্বাধীনতা বিরোধীদের ভাষায় কথা বলেন?’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বাম গণতান্ত্রিক জোটের নেতারা সংলাপে বসেছেন। আজ মঙ্গলবার রাত পৌনে ৮ টার দিকে গণভবনে শুরু হওয়া এই সংলাপে আরও আছেন আওয়ামী লীগ এবং ১৪ দলের নেতারা। সংলাপের শুরুতেই সূচনা বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী বামদের সঙ্গে আওয়ামী লীগ ও ১৪ দলের ঐতিহাসিক সম্পর্কে কথা স্মরণ করেন। বিশেষ করে দেশের মুক্তিযুদ্ধে সময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বামরা যে ভূমিকা রেখেছিল সেই কথাও স্মরণ করেন প্রধানমন্ত্রী। স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু যে ঐক্যের ডাক দিয়েছিলেন, সেখানে বাংলাদেশ কমিউনিস্ট ভূমিকার কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। ৭৫’র ১৫ আগস্টের পর কমিউনিস্ট পার্টি বঙ্গবন্ধু হত্যার যে প্রতিবাদ করেছিল সে কথাও স্মরণ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে আওয়ামী লীগের সঙ্গে বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির বন্ধণের কথা বলেন।

বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ ফরহাদের কথা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর সঙ্গে আমরা স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন করেছিলাম। আজ যখন আমি যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করছি, যখন আমি একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার দিকে এগিয়ে যাচ্ছি, তখন বামরা কেন আমার থেকে দূরে?

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মাঝে মাঝে কষ্ট লাগে। কিছু কিছু বাম নেতা যুদ্ধাপরাধী, স্বাধীনতা বিরোধীদের ভাষায় কথা বলেন। এটি অত্যন্ত দুখ:জনক।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশে অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা প্রতিষ্ঠিত করেছে আওয়ামী লীগ। আর সবসময়ই বামদের আমরা পাশে পেয়েছি। এখন বামদের কী হলো? আমি বুঝতে পারিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি সবসময় মনে করি যারা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ করতে চায়, মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ করতে তাদের মধ্যে কমিউনিস্ট পার্টিসহ অন্যান্য বাম দলগুলো অন্যতম। তারা একই আকাঙ্ক্ষার সহযাত্রী। প্রাধানমন্ত্রী বলেন, তারা যখন বিভ্রান্ত হন, তখন আমি কষ্ট পাই।

বাংলা ইনসাইডার/জেডএ