ঢাকা, বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ২ আষাঢ় ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

আনিসুল হকের স্মৃতি জাগিয়ে তুলতে চায় আ. লীগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০১৮ মঙ্গলবার, ০৩:০০ পিএম
আনিসুল হকের স্মৃতি জাগিয়ে তুলতে চায় আ. লীগ

সর্বশেষ ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে আনিসুল হককে সামনে আনা ছিল আওয়ামী লীগের বড় এক চমক। প্রয়াত আনিসুল হকের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য দিকটি হচ্ছে তিনি শুধুমাত্র অঙ্গীকার কিংবা প্রতিশ্রুতির মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকেননি বরং ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সর্বত্রই একটি দৃশ্যমান পরিবর্তন এনেছিলেন তিনি। বিশেষ করে ঢাকা উত্তরের অধিকাংশ জায়গাতে আধুনিক পাবলিক টয়লেট তৈরি, গাবতলী-কাওরানবাজারের আন্ডারপাস পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ও নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ, উত্তরা-গুলশান-বনানীকে পরিষ্কারপরিচ্ছন্ন এলাকা হিসেবে গড়ে তোলা ও ঢাকার চাকার মতো যুগোপযোগী উদ্যোগ গ্রহণের ফলে এসব এলাকার বাসিন্দাদের কাছে জাগরূক হয়ে আছেন তিনি। এসব এলাকার বাসিন্দারা যখনই তাদের এলাকাতে কোনো প্রকার প্রতিকূলতা কিংবা খারাপ কিছুর ভিতর দিয়ে যান, তখন আপনাতেই বলেন, আজ আনিসুল হক থাকলে এমনটা হতো না। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে  করে গুলশান আসনটি নিয়ে অনেক প্রতিকূলতা ও জটিলতা রয়েছে। এই পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে, সেই সঙ্গে এসব এলাকার বাসিন্দাদের চাওয়ার কথা বিবেচনা করে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে প্রয়াত আনিসুল হকের পরিবারের কাউকে মনোনয়ন দেওয়া হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই আনিসুল হকের স্ত্রী রুবানা হকের সঙ্গে আওয়ামী লীগের নীতি নির্ধারকের অনেকেই যোগাযোগ করেছেন। সেক্ষেত্রে, গুলশান আসনটি যদি আওয়ামী লীগ শরিকদের ছেড়ে না দেয়, তবে ওই আসনটির আওয়ামী লীগের প্রার্থী রুবানা হকই হবেন বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে।

গুলশান আসনে যদি রুবানা হককে মনোনয়ন দেওয়া হয়, তবে শুধুমাত্র ওই আসনটিতেই নয়, ঢাকার সবগুলো আসনেই একটি ইতিবাচক ফলাফল পাবে আওয়ামী লীগ। কেননা,  আনিসুল হক শুধুমাত্র ঢাকা উত্তর নয়, সমগ্র ঢাকার জন্য ইতিবাচক ভূমিকা পালন করেছিলেন। 

বাংলা ইনসাইডার/বিকে/জেডএ