ঢাকা, বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

সেনাকুঞ্জে ফখরুল, ক্ষুব্ধ তারেক

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০১৮ বুধবার, ০৮:১৬ পিএম
সেনাকুঞ্জে ফখরুল, ক্ষুব্ধ তারেক

সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে প্রতিবছরই ২১ নভেম্বর সেনাকেুঞ্জে অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। দেশের সুশীল সমাজ, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, গুণীজনসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষকে এই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়। সেনাকুঞ্জ পরিণত হয় এক মিলন মেলায়। দেশের সব রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকলেও গত পাঁচ বছর ধরে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক সেনাপ্রধান লে. জে. (অব.) মাহবুবুর রহমান ছাড়া বিএনপির শীর্ষ কোনো নেতা সেনাকুঞ্জে যাননি। খালেদা জিয়াকে সেনাবাহিনীর বাড়ি থেকে উঠিয়ে দেওয়ার পর এতদিন ধরে সেনাকুঞ্জের অনুষ্ঠান এক অর্থে বর্জন করে এসেছে বিএনপি। কোনো নেতাকর্মীর সেখানে না যাওয়ার কঠোর নির্দেশ ছিল বলেই জানা যায়। এবারই তার ব্যতিক্রম ঘটল। আজ সেনাকুঞ্জের অনুষ্ঠানে কিছুক্ষণের জন্য হাজির হয়েছিলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত হয়ে বেগম জিয়ার কারাবন্দী হওয়ার হওয়ার পর এটিই সশস্ত্র বাহিনী দিবসের প্রথম অনুষ্ঠান। আর সেখানেই বিএনপির মহাসচিবের উপস্থিতি নিয়ে দলটিতে চলছে তোলপাড়।

জানা গেছে, বিএনপির একজন সিনিয়র নেতা মির্জা ফখরুলের সেনাকুঞ্জে যাওয়া নিয়ে আপত্তি তুলেছিলেন। অনুষ্ঠানে না যেতে বিএনপি মহাসচিবকে তিনি অনুরোধ করেন। কিন্তু মির্জা ফখরুল ইসলাম তাঁকে বলেন, নির্বাচনের আগে সশস্ত্র বাহিনীর অনুষ্ঠানে যাওয়াকে তিনি গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সশস্ত্র বাহিনীর অনুষ্ঠানে গিয়ে কিছুক্ষণ সেখানে অবস্থান করেন। সেখান থেকে বের হওয়ার পরপরই লন্ডন থেকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক জিয়ার ফোন আসে তাঁর কাছে। তারেক জিয়া বিএনপির মহাসচিবের সেনাকুঞ্জে যাওয়ায় তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। মির্জা ফখরুলের কাছে তিনি জানতে চান, এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে কেন তাঁর কাছ থেকে অনুমতি নেওয়া হয়নি? অবশ্য মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এর কোনো তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানাননি।

বাংলা ইনসাইডার/জেডএ