ঢাকা, সোমবার, ১০ আগস্ট ২০২০, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

বিএনপি প্রার্থীর তথ্য জালিয়াতি

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২ ডিসেম্বর ২০১৮ রবিবার, ১২:৩০ পিএম
বিএনপি প্রার্থীর তথ্য জালিয়াতি

ঢাকা- ১৭ আসনে বিএনপি মনোনয়ন পাওয়া প্রার্থী শওকত আজিজ রাসেল হলফনামায় তথ্য জালিয়াতি করেছেন। রিটার্নিং অফিসারের কাছে জমা দেওয়া হলফনামায় তিনি মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন, যা আইনত দণ্ডনীয়।

শওকত আজিজ রাসেল ব্রিটিশ পাসপোর্টধারী। অথচ সংবিধানের ৬৬(২) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী কেউ বিদেশি নাগরিকত্ব অর্জন করলে বা কোনো বিদেশি রাষ্ট্রের প্রতি আনুগত্য ঘোষণা করলে তিনি সংসদ নির্বাচনের অযোগ্য হবেন। ব্রিটিশ পাসপোর্ট রাখার জন্য তিনি হলফনামায় গোপন করেছেন। রাসেল ইউকে বিসিসিআই এর সদস্য। একমাত্র ব্রিটিশ নাগরিকরাই বিসিসিআই এর সদস্য হতে পারেন।

বিমানবন্দরে প্রাপ্ত তথ্যে দেখা যায়, ২৯ জুলাই রাসেল ব্রিটিশ পাসপোর্ট নিয়ে ব্যাংকক যান। ৭ আগস্ট সস্ত্রীক তিনি ইমিরেটস এ কানাডায় যান। ৩ সেপ্টেম্বর এয়ার কানাডা থেকে তাঁকে অফলোড করা হলে ফেসবুকে তিনি বলেন যে তিনি ব্রিটিশ পাসপোর্টধারী। অথচ নির্বাচন কমিশনে প্রদত্ত হলফনামায় তিনি ব্রিটিশ পাসপোর্ট এবং নাগরিকত্বের তথ্য গোপন রেখেছেন। হলফনামায় তিনি নিজেকে শুধুমাত্র বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে ঘোষণা করেছেন।

যোগাযোগ করা হলে শওকত আজিজ রাসেল বলেন, ‘আমি ব্রিটিশ পাসপোর্ট জমা দিয়েই নির্বাচন করছি।’ কবে জমা দিয়েছেন জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘এটা মনে নেই।’ ব্রিটিশ পাসপোর্ট থাকার কারণে কেবল তাঁর মনোনয়ন পত্রই বাতিল হবে না বরং তাঁর শাস্তিও হবে বলে আইনজ্ঞরা মনে করছেন।

শওকত আজিজ রাসেল দেশের পারটেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. এম এ হাসেম-এর ছেলে এবং পারটেক্স গ্রুপের অন্যতম পরিচালক।

বাংলা ইনসাইডার/জেডএ