ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৯ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

দুইবারের বেশি প্রধানমন্ত্রী নয়: বিএনপির আপত্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩ ডিসেম্বর ২০১৮ সোমবার, ০৭:০০ পিএম
দুইবারের বেশি প্রধানমন্ত্রী নয়: বিএনপির আপত্তি

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে যে নির্বাচনী ইশতেহার তৈরি করা হয়েছে তার বেশ কিছু বিষয়ে আপত্তি জানিয়েছে বিএনপি। আজ নির্বাচনী ইশতেহার নিয়ে ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির সভায় বিএনপি এই আপত্তি তোলে। বিএনপি তাদের নিজস্ব নির্বাচনীয় ইশতেহারে এই বিষয়গুলো রাখবে না বলে মত দিয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়, ইশতেহারে কয়েকটি বিষয়ের সঙ্গে বিএনপি একমত নয় বলে জানিয়েছে। গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে নির্বাচনীয় ইশতেহার চূড়ান্ত করার জন্য এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। জানা গেছে, কাল মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে এ ব্যাপারে ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা আবার বৈঠক করবেন। সূত্রমতে, যৌথ ইশতেহারে যেসব বিষয়ে বিএনপি আপত্তি জানিয়েছে, তার মধ্যে রয়েছে:

১. ঐক্যফ্রন্টের খসড়া নির্বাচনী ইশতেহারে বলা হয়েছে, একজন ব্যক্তি পরপর দুবারের বেশি প্রধানমন্ত্রী হতে পারবেন না। বৈঠকে বিএনপির পক্ষ থেকে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ এটাকে সংসদীয় গণতন্ত্রের রীতির সঙ্গে সাংঘর্ষিক বলে মন্তব্য করেছেন। বৈঠকে তিনি বলেছেন, রাষ্ট্রপতি শাসিত সরকার ব্যবস্থায় এটা থাকে। তিনি মনে করেন, সংসদীয় গণতন্ত্রে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের আস্থাভাজন ব্যক্তি। এটা কোনো ব্যক্তির ইচ্ছায় হয় না। তাই তিনি মনে করেন, এটা থাকা উচিত নয়। বিএনপির দায়িত্বশীল সূত্রগুলো বলছে, এই ধারার ব্যাপারে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক জিয়া আপত্তি করেছেন।

২. জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে তার খসড়া নির্বাচনীয় ইশতেহারে বলেছে, ‘কেবল অনাস্থা প্রস্তাব এবং অর্থবিল ছাড়া অন্য সবক্ষেত্রে সংসদে ভোটাভুটিতে সংসদ সদস্যগণ দলের সিদ্ধান্তের বাইরে ভোট দিতে পারবেন। বর্তমানে সংবিধানের ৭০ অনুচ্ছেদে দলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ভোট প্রদানের ক্ষেত্রে তার আসন শূন্য হবার বিধান আছে। বিএনপির পক্ষ থেকে এ ব্যাপারেও আপত্তি আছে। বিএনপি বলেছে, ৭০ অনুচ্ছেদ না থাকলে সংসদ সদস্যদের কেনাবেচা হবে, দুর্নীতি বাড়বে।

৩. জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের খসড়া ইশতেহারে সংখ্যালঘু মন্ত্রণালয়ের প্রস্তাব করা হয়েছে। কিন্তু বিএনপি বলছে, এটা রাষ্ট্রধর্ম ইসলামের সাথে অসামঞ্জস্যপূর্ণ। এটা ধর্মীয় বৈষম্য এবং বিভেদ সৃষ্টি করবে।

৪. ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচনী ইশতেহারের খসড়ায় সরকারি চাকরীতে বয়সসীমা উঠিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। বিএনপি এর আপত্তি জানিয়েছে। বিএনপি বলছে, এই প্রস্তাব বাস্তবসম্মত নয়। এর ফলে নিয়োগ শৃঙ্খলা ভেঙে পড়বে।

৫. ঐক্যফ্রন্ট তাদের খসড়া ইশতেহারে নারী আসনের জন্য সরাসরি ভোটের প্রস্তাব করেছে। বিএনপি বলেছে, এখনই এই প্রস্তাব বাস্তবায়নযোগ্য নয়।

উল্লেখ্য, এই মতপার্থক্য রেখেই খসড়া ইশতেহারটি ফ্রন্টের শীর্ষ ফোরামে আলোচনার জন্য পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বাংলা ইনসাইডার