ঢাকা, শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ১ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

প্রচারণায় ইউনূস, সিনহা ও জাইমা

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫ ডিসেম্বর ২০১৮ বুধবার, ০৬:০০ পিএম
প্রচারণায় ইউনূস, সিনহা ও জাইমা

বিএনপি এবং জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচনী প্রচারণায় যুক্ত হচ্ছেন ড. মুহাম্মদ ইউনূস, বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা ও জাইমা রহমান। বিএনপির দায়িত্বশীল সূত্রগুলো এই তথ্য নিশ্চিত করেছে। এদের মধ্যে ড. মুহাম্মদ ইউনূস সম্প্রতি প্যারিস সফরকালে এক সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। ঐ সাক্ষাৎকারে বর্তমান সরকার তাঁকে এবং গ্রামীণ ব্যাংককে ধ্বংস করার জন্য কি কি করেছে তার আদ্যোপান্ত তুলে ধরেছেন। ঐ সাক্ষাৎকারে ড. ইউনূস দীর্ঘদিন ধরে গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে কাউকে নিয়োগ না দেওয়ায় উষ্মা প্রকাশ করেন। ঐ সাক্ষাৎকারে ড. ইউনূস অভিযোগ করেছেন যে, তাঁর বিরুদ্ধে সরকার পরিকল্পিত ভাবে অপপ্রচার করছে। তথ্যানুসন্ধানে জানা গেছে, ড. কামাল হোসেনের জামাতা ডেভিড বার্গম্যান ঐ সাক্ষাৎকারটি গ্রহণ করেছেন।

দীর্ঘ এক ঘণ্টার এই সাক্ষাৎকারটি বাংলাদেশের নির্বাচনের আগে সুবিধাজনক সময়ে বিবিসি চ্যানেল ফোরে প্রচার করা হবে বলে জানা গেছে। চ্যানেলে প্রচারের সঙ্গে সঙ্গে এটি সোশ্যাল মিডিয়াতে ছড়িয়ে দেবে বিএনপি-জামাত। সাক্ষাৎকারের ছোট ছোট কিছু অংশ আলাদা করে ব্যাপক ভাবে ফেসবুকে এবং ইউটিউবে ছড়িয়ে দেওয়ার সব আয়োজনই সম্পন্ন করা হয়েছে।’

দুর্নীতি এবং নৈতিক স্খলনের অভিযোগ ওঠার পর প্রধান বিচারপতির পদ থেকে পদত্যাগ করেন এসকে সিনহা। যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করে বিএনপি জামাতের আর্থিক পৃষ্ঠপোষকতায় বই লেখেন ‘এ ব্রোকেন ড্রিম’। বিচারপতি সিনহা এখন নিউইয়র্কে যুদ্ধাপরাধী গোষ্ঠীর পৃষ্ঠপোষকতায় এবং আর্থিক আনুকূল্যে রয়েছেন। সেখানে সরকারের বিরুদ্ধে তাঁর ছোট ছোট বেশ কয়েকটি ভিডিও ক্লিপ তৈরি করা হয়েছে। এসব ভিডিও ক্লিপে সিনহা সরকারের বিরুদ্ধে বেশকিছু অভিযোগ উত্থাপন করেছেন। এসব ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার প্রস্তুতি চলছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্যে। জানা গেছে, এসব ভিডিও ক্লিপে সিনহা নৌকা মার্কায় ভোট না দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

তারেক জিয়ার মেয়ে জাইমা রহমানকেও নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যবহারের উদ্যোগ নিয়েছে বিএনপি জামাত জোট। লন্ডনে তাঁর একাধিক বক্তব্য রেকর্ড করা হয়েছে বলেও দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছে। এসব ভিডিওতে জাইমা দুর্দান্ত অভিনয় করেছেন বলে জানা গেছে। কান্না বিজড়িত কণ্ঠে জাইমা তাঁর দাদীর মুক্তির জন্যে একটি ভোট ভিক্ষা চেয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, এবার নির্বাচনী প্রচারণায় বিএনপি জামাত গোষ্ঠী ফেসবুক এবং ইউটিউবকেই প্রধান বাহন হিসেবে ব্যবহার করছে। আর এসবের একাউন্ট খোলা হয়েছে মূলত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং লন্ডনে। এক হাজারের বেশি জামাত বিএনপির প্রশিক্ষিত কর্মী এই একাউন্টগুলো চালাচ্ছে। যেখানে সরকারকে নোংরা ভাষায় আক্রমণ করা হচ্ছে।

বাংলা ইনসাইডার/জেডএ