ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

সৈয়দ আশরাফুলেই আস্থা রাখলেন প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮ শুক্রবার, ০১:০৪ পিএম
সৈয়দ আশরাফুলেই আস্থা রাখলেন প্রধানমন্ত্রী

সৈয়দ আশরাফুল ইসলামকে আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কিশোরগঞ্জ-১ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে ব্যাংককে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তিনি ফুসফুসের ক্যান্সার এবং ডিমেনশিয়া (ভুলে যাওয়া) রোগে আক্রান্ত। এই রোগে দীর্ঘমেয়াদি চিকিৎসা প্রয়োজন। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা খুব বেশি ভালো নয়। তিনি কাউকে চিনতে পারছেন না বলেও জানা যায়। আওয়ামী লীগের দুঃসময়ের কাণ্ডারি পরিক্ষিত নেতা সৈয়দ আশরাফ বর্তমানে ব্যাংককের হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। তারপরেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের উপরেই আস্থা রেখেছেন। এরআগে আওয়ামী লীগের মনোনয়নের বোর্ডের সভায় দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছিলেন, আশরাফ যত দিন জীবিত আছে, যতক্ষন তার শ্বাস আছে ততক্ষন আমি ঐ আসনে অন্য কাউকে মনোনয়ন দিবনা। সৈয়দ আশরাফকে মনোনয়ন দেওয়ার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে কত মমত্বসীল এবং সৈয়দ আশরাফের প্রতি তার যে অগাধ আস্থা ও ভালবাসা তা আবারও প্রমান হয়ে গেল।    

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো থেকে জানা গেছে যে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচনী প্রচারণায় কিশোরগঞ্জে যাবেন। তিনি সৈয়দ আশরাফের জন্যে ভোট চাইবেন এবং বলবেন, আমার ছোট ভাই আশরাফ মৃত শয্যায় তাকে আপনারা সকলে ভোট দিন।

উল্লেখ্য সৈয়দ আশরাফ পাদ প্রদীপে আসেন ওয়ান ইলেভেনের সময়। আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা তখন আদর্শের পরীক্ষায় হাবুডুবু খাচ্ছেন। লোভের কাছে বশ্যতা স্বীকার করেছেন অনেকে। যখন প্রিয় নেত্রীর গ্রেপ্তারে হতবিহ্বল কর্মীরা। হতাশা, বিভক্তি আর অজানা আশঙ্কায় বিপর্যস্ত আওয়ামী লীগ। এসময় প্রয়াত জিল্লুর রহমান, বেগম মতিয়া চৌধুরীর সঙ্গে সৈয়দ আশরাফ শেখ হাসিনার পক্ষে এক অনবদ্য অবস্থান নেন। দলকে টেনে তোলেন খাদ থেকে।

বর্তমানে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থাকা সৈয়দ আশরাফ এর আগে দায়িত্ব পালন করেছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ে। এছাড়াও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবেও তিনি দীর্ঘদিন সফলতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন।

বাংলা ইনসাইডার/আরকে