ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

চরম অস্বস্তিতে জাপার তিন মন্ত্রী!

বিশেষ প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ১০ ডিসেম্বর ২০১৮ সোমবার, ১২:০০ পিএম
চরম অস্বস্তিতে জাপার তিন মন্ত্রী!

আসন বণ্টন নিয়ে জাতীয় পার্টির সঙ্গে সরকারের টানাপোড়েন এ চরম অস্বস্তিতে পড়েছে সরকারে থাকা জাতীয় পার্টির ৩ মন্ত্রী। বেশ কিছুদিন যাবত আওয়ামী লীগের সঙ্গে জাতীয় পার্টির সম্পর্কের টানাপোড়েন চলছিল। সর্বশেষ গতকাল মহাজোটের পক্ষ থেকে জাতীয় পার্টিকে মাত্র ২৬টি আসন বরাদ্দ দেওয়ায় এ টানাপোড়েন চূড়ান্ত পর্যায়ে রূপ নেয়। রোববার সকালে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ আওয়ামী লীগের এমন আচরণে চরম বিক্ষুব্ধ হন। তিনি সিএমএইচ হাসপাতাল থেকে আওয়ামী লীগের এ সিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ জানান। কিন্তু দলের নয়া মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা দিনভর জাপার পক্ষে আওয়ামী লীগের সাথে দরকষাকষি করেও আসন বাড়াতে পারেননি। এবিষয় নিয়ে নয়া মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গাকেও তিনি ভৎসনা করেন। একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে রাঙ্গা সরকারের কঠোর মনোভাবের কথা এরশাদকে জানান। এরপরই শুরু হয় নানা নাটকীয়তা। বিক্ষুব্ধ এরশাদ তাঁর বিশেষ সহকারী সাবেক মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদারকে সিএমএইচ হাসপাতালে তলব করে অন্তত: ১৫০ আসনে জাপার প্রার্থীদের সরাসরি নির্বাচন করার নির্দেশ দেন। এরপরই বিশেষ সহকারী এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার বনানী কার্যালয় থেকে দ্রুত প্রেস রিলিজের মাধ্যমে সারাদেশে জাতীয় পার্টির ১৩২ আসনে প্রার্থীদের নাম প্রকাশ করেন এবং ঐসব প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দের চিঠি দেন। এ ঘটনার পর পরই এবিষয় নিয়ে ক্ষমতাসীন দলে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়। এরশাদের এমন হঠকারী সিদ্ধান্তে চরম বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সরকারের বন ও পরিবেশ মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, জাতীয় পার্টির মহাসচিব সরকারের স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা এবং শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু। গতকাল পৃথক পৃথকভাবে সরকারের এ তিন মন্ত্রী ক্ষোভ ও বিস্ময় প্রকাশ করেন। তারা জানান, পার্টি চেয়ারম্যানের এহেন হঠকারী সিদ্ধান্তে জাতীয় পার্টি ভাবমূর্তি চরমভাবে ক্ষুণ্ণ হলো। নির্বাচনী মাঠে জাতীয় পার্টিকে এজন্য চরম খেসারত দিতে হবে। তাদের মতে, পার্টি চেয়ারম্যানের এহেন সিদ্ধান্তে সরকারের সঙ্গে জাতীয় পার্টির সম্পর্কের যোজন-যোজন দূরত্ব তৈরি হলো।

বাংলা ইনসাইডার/জেডএ