ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

তারেকের প্রতিনিধি সিঙ্গাপুরে, নজরদারিতে এরশাদ

বিশেষ প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ১১ ডিসেম্বর ২০১৮ মঙ্গলবার, ০৪:২২ পিএম
তারেকের প্রতিনিধি সিঙ্গাপুরে, নজরদারিতে এরশাদ

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ চিকিৎসাজনিত কারণে এখন সিঙ্গাপুরে অবস্থান করছেন। নির্বাচনের আগ মুহূর্তে সোমবার সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে যান আরও উন্নততর চিকিৎসার জন্য। বেশ কয়েকদিনের নাটকীয়তা শেষে এরশাদের সিঙ্গাপুরে যাওয়া নিয়ে নানা মহলে ব্যাপক গুঞ্জন শুরু হয়েছে। এদিকে, যুক্তরাজ্য থেকে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিশেষ দূত এখন সিঙ্গাপুরে অবস্থান করছেন বলে জানা গেছে। রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক গুঞ্জন রয়েছে এরশাদের সিঙ্গাপুরে যাবার সাথে তারেকের বিশেষ দূতের সিঙ্গাপুরে অবস্থান করার পেছনে কোনো যোগসূত্র রয়েছে কিনা?

জাতীয় পার্টির একাধিক সূত্র জানায়, সিঙ্গাপুর যাওয়ার পথে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরেই জাপার সঙ্গে আসন বণ্টন নিয়ে যে অবিচার করা হয়েছে তা নিয়ে নয়া মহাসচিবের কাছে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এরশাদ। বিশেষ করে রংপুরে জাপাকে ক্ষমতাসীন দল কোনো ভাবেই ছাড় দেয়নি। এমনকি এরশাদের কাঙ্ক্ষিত ঢাকা-১৭ আসনও দেয়নি আওয়ামী লীগ। এরশাদকে বিদায় জানাতে তার দলের যারা বিমান বন্দরে ছিলেন তাঁদের মধ্যে এক প্রেসিডিয়াম সদস্য জানান, নির্বাচনের অনেক খেলা এখনো বাকি আছে। এরশাদ স্যার, শেষ খেলাটা খেলবেন বলে তাদের ধারণা। জাপা চেয়ারম্যান এর আগেও দু’বার সিঙ্গাপুরে গেছেন চিকিৎসার জন্য। তখনই গুঞ্জন রটে তারেক রহমানের সঙ্গে এরশাদের বিগ ড্রিল হচ্ছে। সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফিরেই এরশাদ চলে যান ভারতে। ভারত থেকে কাঙ্ক্ষিত সবুজ সংকেত না মেলায় মহাজোট ছাড়ার সাহস পাননি এরশাদ। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট না ছাড়লেও ভেতরে-ভেতরে সহোদর জিএম কাদের বিএনপির সঙ্গে সু-সম্পর্ক বজায় রাখেন। এই গোপন আঁতাতের খবর বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার মাধ্যমে সরকারের কাছে পৌঁছে গেলে আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড এতে নাখোশ হয়। কিন্তু জাপা চেয়ারম্যান সবসময়ই কৌশলী ভূমিকা নিয়ে সরকারের সঙ্গে সম্পর্ক রক্ষা করে চলেছেন। কিন্তু সাম্প্রতিক আসন বণ্টন ইস্যু নিয়ে চরম অসন্তুষ্ট হন এরশাদ। আর তার রেশ ধরে গত কয়েকদিন অসুস্থতার অজুহাতে সিএমএইচ হাসপাতালে অবস্থান করেন তিনি। বর্তমানে জাতীয় পার্টির ১৪২ প্রার্থী মাঠে লাঙ্গল নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। অধিকাংশ প্রার্থীই দাবি করছেন, তাদের জন্য এখনো বিশেষ কোনো সংবাদ অপেক্ষা করছে। আর সে সংবাদটি হয়তোবা সিঙ্গাপুর থেকেই আসবে বলে তাদের ধারণা। সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে কঠোর নজরদারিতে রয়েছেন এরশাদ। সেখানে দর্শনার্থীদের দেখা-সাক্ষাতের বিষয়ে কড়াকড়ি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানান তারই সফরসঙ্গী জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য মেজর (অব.) খালেদ আখতার।

সূত্রটি জানায়, জিয়াউদ্দিন বাবলুর সিঙ্গাপুরে যাওয়া রহস্যজনক। কারণ এর আগেও দুবার এরশাদের সঙ্গে জিয়াউদ্দিন বাবলু সিঙ্গাপুরে গেছেন। জিয়াউদ্দিন বাবলুর বিতর্কিত ভূমিকার কারণে এবার তাঁকে মহাজোট থেকে মনোনয়ন দেওয়া হয়নি।

বাংলা ইনসাইডার/জেডএ