ঢাকা, সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bagan Bangla Insider

‘তুমি তো ইবলিশের চেয়েও ভয়ংকর’

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ বুধবার, ১১:৩০ এএম
‘তুমি তো ইবলিশের চেয়েও ভয়ংকর’

পথসভা শেষ করে জনসংযোগ করছিলেন অধ্যাপক আবু সাইয়িদ। এর মধ্যে একজন চাদর গায়ে দেওয়া বৃদ্ধ সামনে এসে দাঁড়ালেন। ঘৃণা ভরে আবু সাইয়িদকে মারতে গেলেন। কিন্তু অধ্যাপক সাইয়িদের কর্মীরা তাকে থামালো। চিৎকার করে বৃদ্ধ বলতে থাকলো ‘তুমি তো ইবলিশের চেয়েও ভয়ংকর। তোমার জন্য আমার ছেলের জীবন গেলো এখন তুমি আমার ছেলের হত্যাকারীদের সঙ্গে ঘুরছো।’ আবু সাইয়িদ বিব্রত। কর্মীরা বৃদ্ধকে টেনেহিচড়ে সরিয়ে নিয়ে গেল।

জানা গেছে বৃদ্ধের নাম আবুল বারেক। মুক্তিযোদ্ধা। ২০০১ এর নির্বাচনের পর তাঁর ছেলেকে জামাত-বিএনপির ক্যাডাররা ধরে নিয়ে হত্যা করে। আবু সাইয়িদ আশ্বাস দিয়েছিলেন বারেকের হত্যাকারীর বিচার করবেন। কিন্তু এবার নির্বাচনে ঐ হত্যাকারীদের নিয়েই নির্বাচনী প্রচারণা করছেন আবু সাইয়িদ। পাবনা-১ আসনে অধ্যাপক আবু সাইয়িদ সারা জীবন নৌকা প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করেছেন। ২০০৮ সালে সংস্কারপন্থী হবার কারণে তাকে মনোনয়ন দেয়া হয়নি। ২০১৪ সালে তিনি স্বতন্ত্র নির্বাচন করে তিনি আওয়ামী লীগের শামসুল হক টুকুর কাছে পরাজিত হন। এই আসনে জামাত অত্যন্ত শক্তিশালী। যুদ্ধাপরাধে মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত মতিউর রহমান নিজামী এই আসনে দুবার এমপি হয়েছিলেন। এখন অধ্যাপক আবু সাইয়িদ যুদ্ধাপরাধীদের দল জামাতের সঙ্গেই হাত মিলিয়ে নির্বাচন করছেন। এজন্য এলাকার মুক্তিযোদ্ধারা তার নাম দিয়েছে ‘নব্য রাজাকার’। কেউ তাকে ভণ্ড হিসেবে ভাবছে।

বাংলা ইনসাইডার