ঢাকা, সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bagan Bangla Insider

টাকার কথা শুনেই পালালেন সুব্রত চৌধুরী

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ বুধবার, ১২:৩০ পিএম
টাকার কথা শুনেই পালালেন সুব্রত চৌধুরী

ঢাকা-৬ আসন থেকে নির্বাচন করছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী। এই আসনটি বিএনপি নেতা সাদেক হোসেন খোকার। ১৯৯৬ সালের নির্বাচনেও ঢাকায় বিএনপি যে একটি আসন পেয়েছিল সেটি ছিল এই আসনটি। খোকা ঢাকার নির্বাচিত মেয়র ছিলেন। এলাকায় বিএনপি বলতেই খোকার পরিবার।

এবার নির্বাচনে দণ্ডিত হওয়ার কারণে খোকার ছেলে এই আসনে প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন। কিন্তু ঐক্যের স্বার্থে বিএনপি আসনটি ছেড়ে দেয় গণফোরাম নেতা সুব্রত চৌধুরীকে। অ্যাডভোকেট সুব্রত এখানে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করবেন। প্রথম দিনই তিনি বিএনপির স্থানীয় নেতাদের নিয়ে বৈঠক করেন। বৈঠকে অ্যাডভোকেট সুব্রত জানতে চান খোকা ভাই কীভাবে নির্বাচন করতেন? এসময় স্থানীয় বিএনপির একজন নেতা বলেন, ‘খোকা ভাই প্রতি ভোটকেন্দ্রের  জন্য একটি করে কমিটি করতেন। ঐ কমিটির কাজ ছিল কেন্দ্রে যত ভোটার আছে তাদের কাছে অন্তত ১০বার যাওয়া। ভোটের দিন তাদের কেন্দ্রে আনার ব্যবস্থা করা। পোলিং এজেন্ট ঠিক করা।’ অ্যাডভোকেট চৌধুরী এটা শুনে খুবই পুলকিত হলেন। বললেন, ‘এটা তো খুবই ভালো পদ্ধতি। আমরা এটাই করি।’

এসময় বিএনপির একজন স্থানীয় নেতা বলেন, ‘তাইলে খরচাপাতি দেন কমিটি করি।’ খরচাপাতি কত? জানতে চান সুব্রত। স্থানীয় নেতা বলেন, ‘প্রতি কেন্দ্রে দিনে ১ লাখ টাকা।’ টাকার কথা শুনে ভড়কে যান সুব্রত চৌধুরী। বলেন, ‘ঠিক আছে, আজ থাক, পরে আবার বসবো।’ এরপর সুব্রত চৌধুরী দ্রুত সরে পড়েন সেখান থেকে।

বাংলা ইনসাইডার/এমআর