ঢাকা, রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১০ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

বর্জন নয়, ‘ভোট বিপ্লব’ দেখছে বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৩ ডিসেম্বর ২০১৮ রবিবার, ০৭:০০ পিএম
বর্জন নয়, ‘ভোট বিপ্লব’ দেখছে বিএনপি

নির্বাচন বর্জন নয়, বরং এখনো আশা দেখছে বিএনপি। ৭টি আসনে প্রার্থী নেই বিএনপির। ১৪টি আসন এখনো আদালতের নির্দেশের অপেক্ষায়। ২৫ জন প্রার্থী জেলে। তবুও নির্বাচনে নাটকীয় ভোট বিপ্লব দেখছে বিএনপি। বিএনপির একাধিক শীর্ষস্থানীয় নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নির্বাচনের মাঠ ছাড়বে না বিএনপি। যদিও নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার ব্যাপারে বিএনপির মধ্যে তীব্র চাপ আছে। বিএনপির একটি দায়িত্বশীল সূত্র বলছে, নির্বাচন নিয়ে বিএনপি সারাদেশে যে জরিপ করেছে তাতে ভোট বিপ্লবের তথ্য পাচ্ছে দলটি। বিএনপির একজন শীর্ষস্থানীয় নেতা বলেছেন, ‘৩০ ডিসেম্বর বাংলাদেশে এমন পরিস্থিতি হবে যা আগে কেউ কখনো দেখেনি।’

বিএনপির একাধিক নেতার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা বলছেন, বিএনপি নির্বাচন বর্জন করবে, ভোট থেকে সরে যাবে এসবই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রচারণা। আওয়ামী লীগ জানে, ‘ন্যূনতম’ অবাধ নির্বাচন হলে, তাদের জয়ের কোন সম্ভাবনা নেই। বিএনপি নেতারা বলছেন, এ কারণেই সরকার এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চাইছে যাতে আমরা নির্বাচন বর্জন করি। বিএনপির একজন নেতা বলছিলেন, ‘নির্বাচন বর্জন করলে কি হবে? সরকার একতরফা নির্বাচন করে আবার ক্ষমতায় আঁকড়ে থাকবে।’ ঐ নেতা বলেন, ‘এটা আমরা করবো না।’তিনি বলেন, ‘দেখেন অপেক্ষা করেন ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত।’বিএনপি নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নির্বাচন বর্জন নয় বরং ভোটের দিন কি করতে হবে, সে সম্পর্কে নির্দেশনা দিচ্ছেন দলটির শীর্ষ নেতারা। আগামী ২৭ ডিসেম্বর ঐক্যফ্রন্ট সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শেষ নির্বাচনী জনসভা করবে। বিএনপির নেতারা বলছেন, ঐ নির্বাচনী জনসভার পর থেকেই পরিস্থিতি পাল্টে যেতে শুরু করবে। ঐ নির্বাচনী জনসভায় প্রতিটি কর্মীকে সকালে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট গণনা পর্যন্ত ভোট কেন্দ্র পাহারা দেয়ার নির্দেশ দেয়া হবে।

বিএনপির একজন নেতা বলেছেন, ‘সরকার যতোই নিয়ন্ত্রিত নির্বাচন করার চেষ্টা করুক না কেন, শেষ পর্যন্ত জনগণ তা হতে দেবে না।’বিএনপির ঐ নেতা মনে করছেন, শেষ পর্যন্ত যদি ভোটাররা ভোটকেন্দ্রে যেতে পারে তাহলে সরকারের সব প্রতিরোধই ভেস্তে পড়বে।’বিএনপির অন্য একজন নেতা বলেছেন,‘ভোটারদের উপস্থিতি নিশ্চিত করাটাই বিএনপির বড় চ্যালেঞ্জ। যদি ভোটারদের উপস্থিতি মোটামুটি নিশ্চিত করা যায়, সেক্ষেত্রে শাসক দলের পরাজয় অনিবার্য।

 বিএনপির পক্ষ থেকে সর্বশেষ যে জরিপ করা হয়েছে, তাতে ১১২টি আসনে তাদের নিশ্চিত বিজয়ের পূর্ভাবাস দেয়া হয়েছে। বিএনপি নেতারা বলছেন, এরকম আরো ৫৩টি আসন রয়েছে যেখানে ন্যূনতম নিরাপক্ষ নির্বাচন হলে বিএনপির জয় সম্ভব। মূলত শেষ জরিপই ভোটের লড়াইয়ে বিএনপিকে থাকতে উৎসাহিত করছে।

বাংলা ইনসাইডার/এমআর