ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

নতুন মন্ত্রীরা ফোন পাবেন দুপুর থেকে

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬ জানুয়ারি ২০১৯ রবিবার, ১২:০১ পিএম
নতুন মন্ত্রীরা ফোন পাবেন দুপুর থেকে

মন্ত্রিসভার তালিকা চূড়ান্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ সকালেই এই তালিকা প্রধানমন্ত্রী ক্যাবিনেট সচিব মো. শফিউল আলমের কাছে হস্তান্তর করেছেন। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এখন শপথ অনুষ্ঠানের আনু্ষ্ঠানিক প্রস্তুতি শুরু করেছে। প্রধানমন্ত্রী নতুন মন্ত্রিসভার জন্য যাদের মনোনয়ন দিয়েছেন, তাদের দুপুর বারোটা থেকে টেলিফোন করবে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের একজন কর্মকর্তা বলেছেন,‘প্রধানমন্ত্রী যাদের মন্ত্রী হিসেবে বিবেচনা করেছেন, সেই তালিকা প্রাপ্তির পর আমাদের কিছু আনু্ষ্ঠানিকতা রয়েছে, তারপর আমরা টেলিফোন করবো। দুপুরের পর থেকে আশা করি টেলিফোন পর্ব শুরু হবে।’

তবে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একটি সূত্র বলছে, মন্ত্রিত্ব নিয়ে তদবির এড়াতে প্রধানমন্ত্রী নিজেই টেলিফোন দেরিতে করার পরামর্শ দিয়েছেন। তবে, প্রধানমন্ত্রী নিজেই কয়েকজনকে মন্ত্রিসভায় রাখা হবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন বলে একটি সূত্র জানিয়েছে। সকালে কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গেই বেগম মতিয়া চৌধুরী জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মরদেহে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। বেগম মতিয়া চৌধুরীর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী কৃষি মন্ত্রণালয়ের কিছু বিষয় নিয়েও কথা বলেন বলেও জানা গেছে। এ থেকে স্পষ্ট হয়ে যায় যে, বেগম মতিয়া চৌধুরী নতুন মন্ত্রিসভায় থাকছেন।

একটি সূত্র জানিয়েছে, বিগত মন্ত্রিসভায় যাদের বিরুদ্ধে খুব বড় দুর্নীতির অভিযোগ নেই, তাদের অধিকাংশই নতুন মন্ত্রিসভায় থাকছেন। বিগত মন্ত্রিসভায় অন্তত ১৫ থেকে ২০ জন নতুন মন্ত্রিসভায় নেই বলে জানা গেছে। এদের মধ্যে অবসরজনিত কারণে মন্ত্রিসভায় থাকছেন না অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, মারা গিয়ে মন্ত্রিসভার তালিকায় নেই প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। মন্ত্রিসভায় থাকছেন না জাতীয় পার্টির ৪ জন সদস্য। মনোনয়ন না পেয়ে মন্ত্রিপরিষদের তালিকা থেকে বাদ পড়ছেন ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া এবং ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়। এছাড়া বার্ধক্যজনিত কারণে এবারের মন্ত্রিসভায় থাকছেন না পাটমন্ত্রী ইমাজউদ্দিন প্রামাণিক। নারী সংসদ সদস্য নির্বাচিত না হওয়া পর্যন্ত তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিমও প্রথম দফায় মন্ত্রিসভায় থাকছেন না। নির্বাচনের সময় বাদ পড়া টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের মধ্যে অন্তত দুজন নতুন মন্ত্রিসভায় থাকছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট নেতাদের মধ্যে একজন প্রথম দফায় মন্ত্রিসভায় ডাক পাচ্ছেন না বলেই জানা গেছে। বিদায়ী মন্ত্রিসভায় দুজন প্রতিমন্ত্রী এবার পূর্ণমন্ত্রীর মর্যাদা পেতে যাচ্ছেন বলে জানা গেছে। এছাড়াও ১৪ দলের শরীকদের মধ্যে থেকে বর্তমান দুই নেতার একজন অন্তত মন্ত্রিসভা থেকে বাদ পড়ছেন। তাদের বদলে নতুন মূখ আসছে ১৪ দল থেকে।

মন্ত্রিসভায় এবার গতবারের চেয়ে অনেক বেশি সংখ্যক প্রতিমন্ত্রী থাকছেন বলে জানা গেছে। প্রতিমন্ত্রী মনোনয়নের ক্ষেত্রে অপেক্ষাকৃত তরুণদের প্রাধান্য দেয়া হয়েছে। অধিকাংশ মন্ত্রণালয়ে এবার একজন মন্ত্রীর সঙ্গে একজন প্রতিমন্ত্রী রাখা হচ্ছে। আগামীকাল বিকেলে সাড়ে তিনটায় নতুন মন্ত্রিসভা বঙ্গভবনে শপথ নেবেন।   

বাংলা ইনসাইডার/এমআর