ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

তারেকের কঠিন নির্দেশনা: ডাকসুতে ঘুরে দাঁড়াতে চায় ছাত্রদল

বিশেষ প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ২৭ জানুয়ারি ২০১৯ রবিবার, ১১:১৫ এএম
তারেকের কঠিন নির্দেশনা: ডাকসুতে ঘুরে দাঁড়াতে চায় ছাত্রদল

আসন্ন ডাকসু নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে চায় জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। নিজেদের সংগঠিত করার প্রত্যয় নিয়ে ইতিমধ্যে ঘরোয়া বৈঠক শুরু করেছেন ছাত্রদলের নেতারা। তবে ছাত্রদল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের শতভাগ নিশ্চয়তা চায় সহাবস্থান নিশ্চিত করার।

এদিকে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ ডাকসুকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়ে ক্যাম্পাসে আগের মত নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য জোরালো তাগিদ দিয়েছেন যুক্তরাজ্যে অবস্থানরত বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। এ বিষয়ে তারেক রহমান শনিবার রাতে সরাসরি কথা বলেন বিএনপির ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানি এবং সাবেক ডাকসু ভিসি আমানউল্লাহ আমান ও সাবেক জিএস খাইরুল কবির খোকনের  সাথে। তারেক রহমান উক্ত ৩ নেতাকে নির্দেশনা দেন, যে কোন মূল্যে ডাকসুতে নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে।

সূত্র জানায়, ডাকসু নির্বাচন নিয়ে সাবেক ছাত্রনেতাদের সমন্বয়ে শিগগিরই একটি স্টিয়ারিং কমিটি গঠনের তাগিদ দেন তারেক রহমান। ঐ কমিটির মাধ্যমে ভালো একটি প্যানেল গঠনেরও তাগিদ দেয়া হয়। এ ব্যাপারে শহীদউদ্দিন চৌধুরীর সাথে কলা বললে তিনি জানান, আমাদের নেতা (তারেক রহমান) নিদের্শনা দিয়েছেন ডাকসুতে জোরালোভাবে অংশ নিতে। আমরা সংগঠিত হয়ে আজকালের মধ্যেই সভা আহ্বান করে  এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব। তিনি জানান, ডাকসুর সাবেক নেতাদের সাথে পরামর্শ করেই আমরা এগুবো। তবে তিনি জানান, যদি নির্বাচনে অংশ নেয়ার মত পরিবেশ থাকে তাহলে ছাত্রদল প্রয়োজনে সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্যের ব্যানারে প্যানেল দেবে।

এদিকে, শনিবার রাতে ডাকসু নির্বাচন নিয়ে তারেক রহমান কথা বলার পরেই নড়েচড়ে বসেছেন ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতারা। আজ যে কোন সময় তারা একত্রিত হয়ে এ বিষয়ে জোরালো সিদ্ধান্ত নেবেন বলে একাধিক সূত্র জানিয়েছে।

বিভিন্ন সূত্র জানায়, বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছাত্রদলের কোন অবস্থান নেই বললেই চলে। তাছাড়া হল কমিটিগুলোও নেই অনেকদিন যাবত। অনেকটাই নড়বড়ে অবস্থার মধ্য দিয়ে চলছে সাংগঠনিক কার্যক্রম। আওয়ামী লীগ সরকারের গত মেয়াদ থেকেই ছাত্রদল ক্যাম্পাস থেকে নিজেদের গুটিয়ে নেন। উল্লেখযোগ্য কোন কর্মসূচিতে ছাত্রদলের কোন ভূমিকা দেখা যায়নি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে।

এদিকে, আসন্ন ডাকসু নির্বাচনকে ঘিরে হাতেগোনা কয়েকজন ছাত্রদল নেতাকে ক্যাম্পাসে আসতে দেখা যাচ্ছে। যদিও তারা নিজেদের নিরাপত্তাহীনতার কথা বলছেন ঢাবি কর্তৃপক্ষকে। ছাত্রদল চলতি সপ্তাহেই ক্যাম্পাসে সহাবস্থান নিশ্চিত করার জন্য ভিসি বরাবর স্মারকলিপি দেবে।

উল্লেখ্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) এবং হল সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১১ মার্চ। এ নির্বাচনকে ঘিরে ইতিমধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস সরগরম হয়ে উঠেছে। দীর্ঘ ২৮ বছর পর ডাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যেও প্রাণচাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে।

বাংলা ইনসাইডার/এমআর