ঢাকা, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১০ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

মামলায় অস্বীকৃতি বিএনপি প্রার্থীদের

বিশেষ প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ মঙ্গলবার, ০৪:৫২ পিএম
মামলায় অস্বীকৃতি বিএনপি প্রার্থীদের

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেয়া বিএনপির দলীয় অধিকাংশ প্রার্থী নির্বাচন কমিশন ট্রাইব্যুনালে মামলা করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। একাধিক সূত্র জানায়, প্রার্থীরা মামলা করে কোনভাবেই নতুন করে সরকারের রোষানলে পড়তে রাজি নন। একাদশ জাতীয় সংসদ নিবাচন প্রত্যাখান করে দলের সকল প্রার্থীদের স্ব-স্ব জেলার নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে মামলা করার নিদেশ দেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি জেলায় ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের হলেও অধিকাংশ জেলায় মামলা দায়ের হয়নি।

বাংলা ইনসাইডারের তথ্যানুসন্ধানে জানা গেছে, লন্ডন থেকে বিএনপির সিনিয়র ভাইস-চেয়ারম্যান তারেক রহমান নির্দেশনা দিয়েছিলেন নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখান করে প্রার্থীদের স্ব-স্ব জেলায় মামলা করতে। কিন্তু তারেক রহমানের এ নির্দেশনা মানছেনা না অনেকেই। কুমিল্লার একটি আসন থেকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেয়া এক প্রার্থী জানান, জীবনের সব্বোচ ঝুঁকি নিয়ে নিবাচন করলাম। নিবাচনকালীন সময়ে পাশে পেলাম না কোন নেতাকে। উপর থেকে নির্দেশ দিয়েই তারা খালাশ। হামলা-মামলার খড়্গ নিয়ে এখনও আদালতের বারান্দায় ঘুরে বেড়াচ্ছি। দলের মাঠের কর্মীরা ঘর-বাড়ি ছাড়া হয়ে উদ্বাস্তুর মত ঘুরে বেড়াচ্ছে। তিনি জানান, কোন কিছুতেই আমরা কোন প্রতিকার পাচ্ছি না। এমন বাস্তবতায় ট্রাইব্যুনালে মামলা করা খোদ সরকারের রোষানলে পড়া। এ ধরনের রোষানলে পড়তে কোনভাবেই রাজি নন নির্বাচনে অংশ নেয়া প্রার্থীরা। চাঁদপুরের এক প্রার্থী জানান, বিএনপি করাই এখন বোকামি। মামলা করে কোন ফায়দা হবে বলে তিনি মনে করেন না।

এ বিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মীর্জা আব্বাস বাংলা ইনসাইডারকে জানান, একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেয়া বিএনপির দলীয় প্রার্থীদের ট্রাইব্যুনালে মামলা করাটা কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্দেশনা। কেন্দ্রের নির্দেশনা যারা মানবেন না তাদের বিষয়ে দলীয় সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে মীর্জা আব্বাস জানান, তারেক সাহেব বিষয়টি মনিটরিং করছেন।

বাংলা ইনসাইডার/এমআর