ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

১৪ দলে অসন্তোষ

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ বৃহস্পতিবার, ১২:০০ পিএম
১৪ দলে অসন্তোষ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিপুল ব্যবধানে জয় পেয়েছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দল। কিন্তু সরকার গঠনের সময় মন্ত্রিসভায় ঠাঁই হয়নি ১৪ দলের শরিকদের। নির্বাচনের পর থেকে ‍দৃশ্যত ১৪ দলের শরিকদের কোন কর্মকাণ্ডেও অন্তর্ভুক্ত করেনি আওয়ামী লীগ। ১৪ দলের ভবিষ্যৎ কী, সেটা নিয়েও পরিষ্কার কোন নির্দেশনা নেই। বিষয়গুলো নিয়ে ১৪ দলের শরিকদের মধ্যে অসন্তোষ তৈরি হচ্ছে।

গতকাল বুধবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে ১৪ দলের শরিকদের নিয়ে একটি উত্তপ্ত বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম। বৈঠকে ১৪ দলের শরিকরা বলেছেন, ১৪ দলের ভূমিকা কী হবে তা প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে তারা শুনতে চান এবং খুব শিগগিরই প্রধনামন্ত্রীর সঙ্গে একটি সাক্ষাতের বন্দোবস্ত করার জন্য বলেন।

বাংলাদেশ একটি পুলিশী রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে অভিযোগ করে রাশেদ খান মেনন বলেন, ‘আমাদের যদি বিরোধী দল হিসেবে থাকতে হয় তাহলে আর ১৪ দল রাখার দরকার নেই। আমরা ১৪ দল থেকে বেরিয়ে যাই এবং সত্যিকারের বিরোধী দল হিসেবে কাজ করি।’ এসময় হাসানুল হক ইনু বলেন, ১৪ দলের ঐতিহাসিক তাৎপর্য রয়েছে। ঐতিহাসিক কারণেই ১৪ দল থাকা প্রয়োজন। তবে ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম সবাইকে ধৈর্য ধরার আহ্বান জানিয়েছেন। ১৪ দলের নীতি ও আদর্শ মেনে কাজ করা কথা বলেছেন। তিনি বলেন, ’১৪ দলের নীতিমালার বাইরে আমাদের কারোর কোন বক্তব্য দেয়া ঠিক হবে না।’

গতকালের বৈঠকে স্পষ্টতই ১৪ দলের মধ্যে অসন্তোষ প্রকাশ পেতে শুরু করেছে। খুব শিগগিরই যদি তারা প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ না পান তাহলে ১৪ দলের শরিকরা অবস্থান পাল্টাতে পারেন বলে মনে করছে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

বাংলা ইনসাইডার/এমআর