ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

কবে ভোট জানে না ঢাকা উত্তরের ভোটাররা!

বিশেষ প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ শনিবার, ০৭:০০ পিএম
কবে ভোট জানে না ঢাকা উত্তরের ভোটাররা!

আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এর উপ-নির্বাচন। যদিও এ নির্বাচন নিয়ে এখনো উত্তাপ ছড়ায়নি উত্তর সিটি কর্পোরেশন এলাকায়। মেয়র প্রার্থীরা ভোটারদের দরজায় কড়া নাড়লেও ভোটারদের মাঝে তেমন কোন আগ্রহ দেখা যাচ্ছে না। নির্বাচনে ৩ জন মেয়র প্রার্থী মাঠে ভোটের লড়াইয়ে অবতীর্ণ  হয়েছেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের আতিকুল ইসলাম নৌকা নিয়ে লড়ছেন, জাতীয় পার্টির শাফিন আহমেদ লাঙ্গল এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ আবদুর রহিম লড়ছেন টেবিল ঘড়ি প্রতীক নিয়ে।

যদিও মাঠে আওয়ামী লীগ প্রার্থী গার্মেন্টস ব্যবসায়ী আতিকুল ইসলাম এবং জাতীয় পার্টির প্রার্থী সঙ্গীতশিল্পী শাফিন আহমেদ সক্রিয় আছেন। স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুর রহিম মাঝে-মধ্যে জানান দিচ্ছেন তিনি নির্বাচনের মাঠে আছেন। তবে নির্বাচন উপলক্ষে তেমন কোন প্রচার-প্রচারণা নেই বললেই চলে। নির্বাচনী ক্যাম্প অফিসও তেমন চোখে পড়ছেনা। ভোটারদের দ্বারে-দ্বারে ভোট প্রার্থনার জন্যও দলের নেতা-কর্মীরা খুব বেশি ধর্না দিচ্ছে না।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের এখনো অনেক এলাকায় মেয়র প্রার্থীদের পা পড়েনি। আবার অনেক ভোটারই জানে না এটা সিটি কর্পোরেশনের বর্ধিত অংশ। বাংলা ইনসাইডারের পক্ষ থেকে কথা হয় বেশ কয়েকজন ভোটারের সঙ্গে। উত্তরা শেষ প্রান্তের এক ভোটার তাঁর প্রতিক্রিয়ায় জানান, মেয়র নির্বাচন হচ্ছে এটা তিনি জানেন না, তিনি বলেন অল্প কয়েকদিন আগেই তিনি নৌকায় ভোট দিয়েছেন। উত্তরার অধিকাংশ ভোটার এখনো নিশ্চিত নন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন হচ্ছে। একই পরিস্থিতি বর্ধিত এলাকা বাড্ডার শেষ প্রান্তের। ঐ এলাকার ভোটাররা এখনো দেখা পাননি কোন মেয়র প্রার্থীর। আবার কবে ভোট এটাও জানেন না তারা। সেদিকে নেই কোন নির্বাচনী ব্যানার পোস্টারও। তাদের মতে, ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা না থাকায় মানুষ জানতে পারছে না ভোট নিয়ে।

এবিষয়ে ক্ষমতাসীন দলের মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলামের দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি জানান, উপ-নির্বাচন হচ্ছে এ কারণে প্রচার-প্রচারণা তুলনামূলকভাবে কম। তাছাড়া অন্য রাজনৈতিক দলগুলো বৃহৎ পরিসরে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে না সেকারণেও মানুষ ভোট নিয়ে খুব বেশি কিছু জানতে পারছে না। তবে তিনি জানান, আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে তিনি সাধারণ ভোটারদের কাছে যাওয়ার চেষ্টা করছেন।

বাংলা ইনসাইডার/এমআর