ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

ভালো নেই এরশাদ !

বিশেষ প্রতিনিধি 
প্রকাশিত: ২৫ এপ্রিল ২০১৯ বৃহস্পতিবার, ১১:৪৮ এএম
ভালো নেই এরশাদ !

একদম ভালো নেই জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। বলতে গেলে অনেকটা একাকী জীবন কাটাচ্ছেন বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্ক বাসভবনে। শারিরীক অসূস্থ্যতার কারণে অধিকাংশ সময়ই সাবেক এই রাষ্ট্রপতিকে বিছানায় শুয়ে-বসে কাঁটাতে হয়। নিজে এখন আর পায়ে হেটে চলাফেরা করতে পারেন না। হুইল চেয়ারই তাঁর সারাক্ষনের সঙ্গী। বর্তমানে শরীর পুরোপুরিই ভেঙ্গে পড়েছে। আগের মত চাইলেই সবকিছু করতে পারেন না একা একা। একজন সঙ্গীর সাহায্য নিয়েই দিন-রাত চলতে হয় বার্ধ্যকে নুয়ে পড়া এ রাজনীতিককে। বনানীর কার্যালয়েও এখন আর যান না। কারণ শরীর আগের মত আর সায় দেয়না। প্রেসিডেন্ট পার্কের বাসভবনেই সময় কাঁটে তার। তাঁর সারাক্ষনের একমাত্র সঙ্গী পুত্র এরিক। এরিকের সঙ্গই এখন এরশাদের সময় কাটার অন্যতম মাধ্যম। তাছাড়া গৃহপরিচারক ওহাব এবং পরিচারিকা নীপা সারাক্ষনই দেখাশোনা করে তাঁকে। দলের বিভিন্ন স্তরের নেতা-কর্মীরা সময়-সুযোগ পেলে দেখে আসেন তাদের প্রিয় নেতাকে। তবে অধিকাংশ সময় অসূস্থ্য থাকার কারণে নেতা-কর্মীরাও এখন আগের মত যেতেন পারেন না বলে জানা গেছে।

 একাধিক সূত্র জানায়, জিএম কাদের পার্টির প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনা নিতে যান ভাই এরশাদের কাছে তবে বেগম রওশন এরশাদ প্রেসিডেন্ট পার্কে একদমই যাননা বলে জানা গেছে। সূত্র জানায়, অজানা এক আতংকে ভূগছেন বিরোধী দলীয় এ নেতা। যে কারণে তিনি গত বুধবার বনানী থাকায় সাধারণ ডায়েরী করেছেন। তাতে তিনি আশংকা করেছেন,তাঁর শারিরীক অসূস্থ্যতাজনিত কারণে যে কেউ তাঁর স্বাক্ষর জাল করে সম্পদহানী কিংবা জাতীয় পার্টির ক্ষতিসাধন করতে পারে। জিডি করার ঘটণা নিয়ে ইতিমধ্যে জাপায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। জাপার একটি সূত্র বলছে, এরশাদের সম্পত্তি এখনো অনেক অজানা। শুধুমাত্র তাঁর কাছের কয়েকজন ঘনিষ্ঠজনই জানেন তাঁর আসল সম্পদের হিসাব। সে কারণে সার্বক্ষনিক শংকার মধ্যে সময় পার করতে হচ্ছে সাবেক এ রাষ্ট্রপতিকে। যদিও সম্পত্তির একটি বৃহৎ অংশ তিনি ট্রাষ্টের নামে দিয়ে দিয়েছেন।
 
বাংলা ইনসাইডার