ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৬ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

হলফনামায় মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন তাবিথ

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৮ জানুয়ারি ২০২০ শনিবার, ১০:২৩ পিএম
হলফনামায় মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন তাবিথ

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল নির্বাচন কমিশনের কাছে দেওয়া নির্বাচনী হলফনামায় সিঙ্গাপুরে ২০০৮ সালে যৌথ মালিকানায় নিবন্ধিত এনএফএম এনার্জি কোম্পানির তথ্য গোপন করেছেন।

এ কোম্পানিটি বাংলাদেশ পেট্রোকেমিক্যাল কোম্পানি লিমিটেড (বিপিসিএল) এর একটি বড় অংশের মালিক।

তাবিথ আউয়ালের ভাই তাজওয়ার আউয়াল বিপিসিএলের বোর্ডে সিঙ্গাপুরের এই কোম্পানির প্রতিনিধিত্ব করেন।

কিন্তু তাবিথ আউয়াল নির্বাচন কমিশনের কাছে দেওয়া নির্বাচনী হলফনামায় তার মালিকানা ও নিয়ন্ত্রণাধীন যে ৩৭টি কোম্পানির তালিকাটি দিয়েছেন সেখানে বিপিসিএল ও এনএফএম এর নাম নেই।

সিঙ্গাপুরের ব্যবসা নিবন্ধক সংস্থার কিছু ডকুমেন্ট অনুযায়ী, এনএফএম এনার্জি (সিঙ্গাপুর) প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানির সর্বমোট ১০০০ শেয়ারের মধ্যে তাবিথের শেয়ার ৩৪০ শতাংশ এবং বাকি শেয়ারের মালিক তাবিথ আউয়ালের দুই ভাই। তাবিথের দুই ভাই আমেরিকার সিটিজেন হিসেবে এই কম্পানিতে নিজেদের পরিচয় উল্লেখ করেছেন। তারা তিন ভাই ছাড়া একজন সিঙ্গাপুরের নাগরিকও আছেন এই কম্পানির শেয়ারে।

কিন্তু তাবিথ আউয়াল তার কোম্পানিটির নাম তার নির্বাচনী হলফনামায় অন্তর্ভুক্ত করেননি, যা বাংলাদেশের নির্বাচনী আইন ও বিধির সম্ভাব্য লঙ্ঘন।



সিঙ্গাপুরের অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড কর্পোরেট রেগুলেটরি অথরিটি (এসিআরএ) থেকে প্রাপ্ত নথি অনুসারে এনএফএম এনার্জি (সিঙ্গাপুর) পিটিই লিমিটেড ‘পণ্য এবং প্রক্রিয়াজাত খাবারে বাণিজ্য’ এবং ‘বিভিন্ন জ্বালানী সম্পর্কিত কম্পানির বিনিয়োগ’’ জড়িত। সংস্থার সর্বশেষ আর্থিক বিবরণী দেখায়, যে এর মোট সম্পদ ২,২৪৩,২৬৭ মার্কিন ডলার এবং ২,৬২৭, ১৯৪ মার্কিন ডলার।

প্রমাণ মিলেছে কম্পানিটিতে বাংলাদেশ পেট্রোকেমিক্যাল কোম্পানি লিমিটেডের (বিপিসিএল) একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ রয়েছে, এবং তাজওয়ার আউয়াল বিপিসিএল বোর্ডে পরিচালক হিসাবে এনএফএম এনার্জি (সিঙ্গাপুর) প্রতিনিধিত্ব করেছেন। তাবিথ আউয়াল ইসিকে তার ব্যবসায়িক আগ্রহ হিসাবে এই কম্পানির নাম কোথাও উল্লেখ করেননি।



এদিকে পানামার ব্যবসা নিবন্ধক সংস্থার নথি এবং প্যরাডাইজ পেপারসেও মাল্টিমোড ইন্টারন্যাশনাল নামের এই কোম্পানিটির সন্ধান পাওয়া গেছে যে, কোম্পানিটির ট্রেজারার (কোষাধ্যক্ষ) ও ডিরেক্টর হিসেবে তাবিথ আউয়ালের নাম আছে। মাল্টিমোড ইন্টারন্যাশনাল এসএ নামক এই কোম্পানিটির প্রেসিডেন্ট ছিলেন তাবিথের বাবা আব্দুল আউয়াল মিন্টু।

এই কোম্পানিগুলোর নাম কেন নির্বাচনী হলফনামায় দেওয়া হয়নি এ বিষয়ে জানতে চাইলে তাবিথ আউয়াল জানান, যে তার আইনজীবীরাই প্রযোজ্য আইনকানুন ও বিধিবিধান দেখে হলফনামাটি প্রস্তুত করেছেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ পেট্রোকেমিক্যাল কোম্পানি লিমিটেডের একটি বড় অংশের মালিক যে এনএফএম এনার্জি (সিঙ্গাপুর) প্রাইভেট লিমিটেড এই বিষয়টিও তিনি নিশ্চিত করেন। কোম্পানির মালিকানার বিষয়টি তিনি স্বীকার করে নিয়েছেন।

ইসি কমিশনার রফিকুল ইসলাম নিশ্চিত করেছেন, প্রার্থীদের দেশের এবং দেশের বাইরে সমস্ত সম্পদ, দায়বদ্ধতা এবং ব্যবসায়িক আগ্রহ প্রকাশের বিধি রয়েছে নির্বাচনী বিধিমালায়। সেক্ষেত্রে তাবিথ আউয়ালের এই তথ্য গোপনের দায়ে মনোনয়ন বাতিলও হতে পারে।