ঢাকা, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ফখরুলকে ‘শাট আপ’ বললেন শামীম ইস্কান্দার

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ শুক্রবার, ০৩:০০ পিএম
ফখরুলকে ‘শাট আপ’ বললেন শামীম ইস্কান্দার

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তি নিয়ে বিএনপি এবং বেগম জিয়ার পরিবার এখন মুখোমুখি অবস্থানে চলে গেছে। বিএনপির নেতারা প্রকাশ্যেই স্বীকার করছেন যে তারা বেগম খালেদা জিয়ার প্যারোলের আবেদনের ব্যাপারে কোনোকিছুই জানেন না এবং প্যারোলে মুক্তির ব্যাপারে তাদের নীতিগত আপত্তি রয়েছে।

অন্যদিকে, প্যারোল প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবেই বেগম খালেদা জিয়ার ছোটভাই শামীম ইস্কান্দার গত বুধবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য বরাবর একটি আবেদন করেন এবং সেখানে তাকে উন্নততর চিকিৎসার জন্য বিদেশে প্রেরণের আবেদন করেন।

বেগম জিয়ার পরিবারের সূত্রে বলা হয়েছে যে এটি প্যারোলের প্রথম ধাপ। এর প্রেক্ষিতে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ একটি মেডিকেল বোর্ডকে দিয়ে বেগম জিয়ার পূর্ণাঙ্গ স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাবেন এবং তার উন্নত চিকিৎসার জন্য যে তাকে বিদেশে নেওয়া প্রয়োজন সে ব্যাপারে সুপারিশ করবেন।

তবে, এসএমএমইউ এর পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে যে মেডিকেল বোর্ড ইতিমধ্যে রয়েছেই যারা নিয়মিত বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করছে। তবে বেগম জিয়ার পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে তার সুচিকিৎসা এখানে সম্ভব কিনা সে ব্যাপারে একটি প্রতিবেদন মেডিকেল বোর্ড দুই-একদিনের মধ্যেই দেবে।

বেগম জিয়ার পরিবার বলছে যে, মেডিকেল বোর্ডের প্রতিবেদন যদি নেতিবাচক হয় তাহলে তারা প্যারোলের আবেদন করবেন। প্যারোলের আবেদন করার জন্য জিয়ার পরিবার এরই মধ্যে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে যে, বেগম জিয়ার ভাই শামীম ইস্কান্দারের সঙ্গে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কয়েকদফা বৈঠকও হয়েছে। যেহেতু বিএনপি নেতৃবৃন্দ এই সমস্ত উদ্যোগ এবং সমঝোতার তৎপরতা সম্বন্ধে কোনোকিছুই জানেন না, সে কারণেই তারা বেগম খালেদা জিয়ার প্যারোল এবং বেগম জিয়ার পরিবার আসলে কি করছে সে ব্যাপারে জানতে চেয়েছিলেন। এটা জানতে চেয়েই বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আজ শামীম ইস্কান্দারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। শামীম ইস্কান্দারকে তারা বলেন যে, ‘আপনারা দলকে অন্ধকারে রেখে কি করছেন, সেটা আমাদেরকে জানাতে হবে।’

এর উত্তরে শামীম ইস্কান্দার বলেন, ‘শাট আপ, ডোন্ট পোক ইওর ডার্টি নোজ!’(শাট আপ, তোমার নোংরা নাক এখানে গলাবে না)।

সংশ্লিষ্ট সূত্রমতে, বেগম জিয়ার পরিবার তার মুক্তির বিষয়টি নিয়ে দলের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি করছে ইচ্ছা করেই। তাদের ধারণা যে বিএনপির মধ্যে একটি বড় অংশ আছে যারা খালেদা জিয়ার মুক্তি চায় না, তারা খালেদা জিয়াকে জিম্মি করে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিল করতে চায়। এ কারণেই খালেদার পরিবার বিএনপিকে অন্ধকারে রেখে সমঝোতার চেষ্টা করছে বলে জানা গেছে।