ঢাকা, সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

শনিবার চূড়ান্ত হতে পারে আওয়ামী লীগের ঢাকা মহানগরী কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ মঙ্গলবার, ০৫:৫৮ পিএম
শনিবার চূড়ান্ত হতে পারে আওয়ামী লীগের ঢাকা মহানগরী কমিটি

 

আগামী ৩ অক্টোবর সীমিত আকারে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী বৈঠক অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গণভবনে অনুষ্ঠিতব্য ওই বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। বৈঠকে আওয়ামী লীগের যেসব নেতা যোগ দেয়ার কথা, শুক্রবার তাদের করোনা পরীক্ষা করানো হবে। যারা এই পরীক্ষায় নেগেটিভ হবেন তাদেরই এই বৈঠকে ঢাকা হবে।

প্রায় ৭ মাস পর আওয়ামী লীগের এই কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের একাধিক শীর্ষ নেতা। আওয়ামী লীগের একজন শীর্ষ নেতা বলেছেন, এই বৈঠক ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের কমিটি  চূড়ান্ত করা হতে পারে। এছাড়াও এই বৈঠকে আওয়ামী স্বেচ্ছা সেবক লীগ, কৃষক লীগ এবং শ্রমিক লীগের কমিটিও চূড়ান্ত করা হতে পারে। আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে, এরই মধ্যে ঢাকা মহানগরী উত্তর ও দক্ষিণের পূর্ণাঙ্গ প্রস্তাবিত কমিটির নাম জমা হয়েছে।

আওয়ামী লীগের দায়িত্ব প্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ নেতারা এই তালিকার নামগুলো যাচাই-বাছাই করেছেন। সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে এই তালিকায় বেশ কিছু নাম সংযোজন ও বিয়োজন করার প্রস্তাব করে তা আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার কাছে দেয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগ সভাপতি তার নিজস্ব উদ্যোগে ওই তালিকায় যাদের নাম আছে তাদের সম্পর্কে খোঁজ খবর নিয়েছেন। এই সব অনুসন্ধান ও যাচাই বাছাইয়ের পর এই দুই কমিটি মোটামুটি চূড়ান্ত হয়েছে। এছাড়াও স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ এবং শ্রমিক লীগের কমিটিও মোটামুটি চূড়ান্ত হয়েছে বলেই আওয়ামী লীগের একাধিক শীর্ষ নেতা জানিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, ৩ অক্টোবর শনিবার সকাল থেকে গণভবনে সীমিত আকারে যে কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হবে। তাতে এই কমিটিগুলো ছাড়াও যেসব জেলার প্রস্তাবিত কমিটি জমা পড়েছে সেগুলোর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হতে পারে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, এই কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে চলমান শুদ্ধি অভিযান, এমসি কলেজসহ ছাত্রলীগের সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ড নিয়েও আলোচনা হতে পারে। আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা বলছেন, বৈঠকে আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারীদের ব্যাপারে নীতি নির্ধারণী এবং নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখতে পারেন আওয়ামী লীগ সভাপতি। বৈঠকে অক্টোবর থেকে অনুষ্ঠেয় স্থানীয় সরকার নির্বাচন নিয়েও কথা বলতে পারেন তিনি।

তবে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়ামে দুই শূন্য পদসহ কেন্দ্রীয় কমিটির শূন্যপদগুলো পূরণের ব্যাপারে এই বৈঠকে কোনো সিদ্ধান্ত হবে কি না সে সম্পর্কে কোনো নিশ্চিত তথ্য পাওয়া যায়নি।