ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ৬ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

শিবিরের অভিনব কৌশল

জুয়েল খান
প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি ২০২১ বৃহস্পতিবার, ১০:০১ এএম
শিবিরের অভিনব কৌশল

জামায়াতে ইসলামের ছাত্র সংগঠন শিবিরের নিয়ন্ত্রণ থাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো মুক্ত হয়েছে অনেক আগেই। এখন তাদের কার্যক্রম সেভাবে সামনে আসছে না। কিন্তু তারা অপ্রকাশ্যে এখন নতুন মিশন নিয়ে সামনে আগাচ্ছে বলে মনে করছেন অনেকে। বিশেষ করে করোনাকালে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিবিরের নেতাকর্মীরা এখন গ্রামমুখি হয়ে পড়েছে। ফলে নতুনভাবে গ্রামের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের টার্গেট করে কাজ করছে শিবির আর এই কাজে সহযোগীতা করছে জামায়াতে ইসলাম।

অনেকে বলছেন, শিবিরকর্মীরা মসজিদে নামাজ শেষে স্থানীয় মুসল্লি এবং অল্প বয়স্কদের নিয়ে আলোচনা করে এবং শিবিরকে ইতিবাচকভাবে উপস্থাপন করছে। আর এ কারণে দেখা যাচ্ছে নামাজ শেষে অন্যান্য মুসল্লিরা বের হয়ে গেলেও কিছু মানুষ মসজিদে থেকে যায় এবং তারা প্রতিদিনই কিছু একটা নিয়ে আলোচনা করে। তারা কিছু লোকদের টার্গেট করে মগজ ধোলাই চালায়।  

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, জামায়াতে ইসলাম আগেই কোণঠাসা এখন তাদের কার্যক্রম চলে মূলত আন্ডার গ্রাউন্ডে। ফলে চোরাগুপ্তাভাবেই তারা আগানোর চেষ্টা করছে। এ ছাড়া তাদের ছাত্র সংগঠন শিবির বিভিন্ন নামে সামাজিক সংগঠনের নাম দিয়ে আড়ালে কর্মী সংগ্রহের কাজ করছে। আর তাদের টার্গেট হচ্ছে স্কুল এবং কলেজপড়ুয়া শিক্ষার্থীরা। কারণ বয়স্ক কাউকে সহজে দলে আনা কঠিন হবে এবং এতে করে তাদের পরিকল্পনা ফাঁস হওয়ার ভয় আছে।

এ ছাড়া বিভিন্ন নাম দিয়ে সামাজিক সংগঠন তৈরি করে নানা সময় ত্রাণ তৎপরতা চালাচ্ছে এবং আর্থিক সহায়তা আসছে স্থানীয় জামায়াত নেতাদের কাছ থেকে। আর এসব ত্রাণ বিতরণের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের নিজেদের গ্রহণযোগ্যতা বাড়ানোর চেষ্টা করছে এবং সাধারাণ মানুষকে নিজেদের দলে টানার কৌশলে আগাচ্ছে তারা।