ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

বিশ্ববাজারে গম রপ্তানি নিষিদ্ধ করলো ভারত


প্রকাশ: 14/05/2022


Thumbnail

ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের প্রভাবে বিশ্ববাজারে হু হু করে বাড়ছে সকল খাদ্যশস্যর দাম। যুদ্ধের কারণে ইউক্রেনের গম রপ্তানিতে বাধায় বেড়ে গেছে গমের মূল্য। যার আঁচ পড়েছে ভারতের বাজারেও। গম উৎপাদনে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম হলেও নিজেদের অভ্যন্তরীণ বাজারে দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে এবার গম রপ্তানি নিষিদ্ধ করলো ভারত।  

শুক্রবার (১৩ মে) ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে তাৎক্ষণিকভাবে কার্যকর হয়েছে এ নিষেধাজ্ঞা। 

ভারত সরকার জানিয়েছে, যেসব রপ্তানি চালানের ক্রেডিট লেটার বিজ্ঞপ্তির আগে ইস্যু করা হয়েছে, শুধু সেগুলোর চালান যেতে দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে। খবর এনডিটিভির।

মূলত এপ্রিল মাসে গত আট বছরের মাঝে ভারতে বার্ষিক ভোক্তা মূল্যস্ফীতি ৭.৭৯ শতাংশে পৌঁছে, যার মাঝে খুচরা খাদ্য মূল্যস্ফীতি পৌঁছেছে ৮.৩৮ শতাংশে। নিজেদের খাদ্য যোগান ঠিক রাখতে এবং ভোক্তা পর্যায়ে দাম সহনীয় রাখতেই এই উদ্যোগ নিলো মোদি সরকার।  

যুদ্ধের কারণে ইউক্রেনের রপ্তানি বন্ধ আর রাশিয়ার ওপর পশ্চিমাদের নিষেধাজ্ঞার কারণে সম্প্রতি বিশ্বব্যাপী ভারতীয় গমের চাহিদা বেড়েছে। ভারতের গম রপ্তানিকারকরা জানিয়েছেন, রাশিয়া-ইউক্রেনের বিকল্প হিসেবে অনেক ক্রেতাই তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন।

কিন্তু স্থানীয় বাজারে গমের দাম ক্রমাগত বাড়তে থাকায় শেষপর্যন্ত রপ্তানি নিষিদ্ধ করলো ভারত সরকার। তাদের এ সিদ্ধান্তে ক্রেতা দেশগুলো আরও বড় সমস্যার সম্মুখীন হবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ভারত বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম গম উৎপাদক হলেও রপ্তানিতে তাদের অংশ মাত্র এক শতাংশের মতো। পরিমাণ ও মূল্য উভয় দিক থেকে ভারতীয় গমের সবচেয়ে বড় ক্রেতা বাংলাদেশ।

২০২০-২১ অর্থবছরে ভারতের মোট গম রপ্তানির ৫৪ শতাংশই এসেছে বাংলাদেশে। ওই বছর ভারতীয় গমের শীর্ষ ১০ ক্রেতা ছিল বাংলাদেশ, নেপাল, সংযুক্ত আরব আমিরাত, শ্রীলঙ্কা, ইয়েমেন, আফগানিস্তান, কাতার, ইন্দোনেশিয়া, ওমান ও মালয়েশিয়া।


প্রধান সম্পাদকঃ সৈয়দ বোরহান কবীর
ক্রিয়েটিভ মিডিয়া লিমিটেডের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান

বার্তা এবং বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ২/৩ , ব্লক - ডি , লালমাটিয়া , ঢাকা -১২০৭
নিবন্ধিত ঠিকানাঃ বাড়ি# ৪৩ (লেভেল-৫) , রোড#১৬ নতুন (পুরাতন ২৭) , ধানমন্ডি , ঢাকা- ১২০৯
ফোনঃ +৮৮-০২৯১২৩৬৭৭