ঢাকা, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাজ্যে কেন বন্ধ হলো ইউনূসের গ্রামীণ ফাউন্ডেশন?

প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৪ ডিসেম্বর ২০১৮ সোমবার, ১২:০৪ পিএম
যুক্তরাজ্যে কেন বন্ধ হলো ইউনূসের গ্রামীণ ফাউন্ডেশন?

যুক্তরাজ্যের স্কটল্যান্ডে অনগ্রসর ব্যক্তিদের ক্ষুদ্র ঋণ বিতরণকারী প্রতিষ্ঠান গ্রামীণ ফাউন্ডেশন স্কটল্যান্ড বন্ধ হয়ে গেছে। নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ ও গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ড. মুহাম্মদ ইউনূস এই প্রতিষ্ঠানটির একজন পরিচালক ছিলেন। কিন্তু কেন বন্ধ হলো গ্রামীণ ফাউন্ডেশন স্কটল্যান্ড?

বিবিসি জানিয়েছে, ক্ষুদ্র ঋণ ব্যবসায়ী গ্রামীণ ফাউন্ডেশন থেকে যারা ঋণ নিয়েছেন, তাদের অনেকেই বকেয়া পরিশোধ না করায় আর্থিক সংকটে পড়ে প্রতিষ্ঠানটি। সম্প্রতি সেটি একেবারেরই দেউলিয়া হয়ে পড়ে।

গ্রামীণ ফাউন্ডেশনের সম্পত্তি ও দেনা ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পেয়েছে ডানকান এলএলপি নামের একটি প্রতিষ্ঠান। ডানকান এলএলপি’র কর্মকর্তা ব্রায়ান মিলনে বলেছেন, ‘ঋণ গ্রহীতাদের কাছে গ্রামীণের প্রায় তিন লাখ পাউন্ড (সোয়া তিন কোটি টাকা) ঋণ রয়েছে। অনেক ঋণ গ্রহীতা বকেয়া পরিশোধ না করার কারণে প্রতিষ্ঠানটি চালিয়ে নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না।

বাংলাদেশের গ্রামীণ ব্যাংকের মডেল অনুসরণ করে ২০১২ সালে গ্লাসগোতে প্রতিষ্ঠা পেয়েছিল গ্রামীণ ফাউন্ডেশন স্কটল্যান্ড। এই ফাউন্ডেশনের ছয়জন পরিচালকের একজন ছিলেন অধ্যাপক ইউনূস। এটি যুক্তরাজ্যের গ্রামীণ হিসেবেই বিবেচিত হয়ে আসছিল। প্রতিষ্ঠানটির লক্ষ্য ছিল, যুক্তরাজ্যে অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষদের আর্থিক অবস্থার উন্নতি করা। প্রাথমিকভাবে এটি পশ্চিম স্কটল্যান্ড থেকে শুরু করা হয়েছিল। ২০১২ সাল থেকে অন্তত এক হাজার মানুষের মধ্যে ঋণ বিতরণ করেছিল গ্রামীণ ফাউন্ডেশন স্কটল্যান্ড।

বাংলা ইনসাইডার/এএইচসি/এমআর