ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

পবিত্র জুমআর দিন সবার আগে মসজিদে যাওয়ার বিশেষ ফজিলত

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৫ জুন ২০২১ শুক্রবার, ১০:১১ এএম
পবিত্র জুমআর দিন সবার আগে মসজিদে যাওয়ার বিশেষ ফজিলত

আজ শুক্রবার, পবিত্র জুমআর দিন। সপ্তাহের অনান্য দিনের তুলনায় এই দিনের রয়েছে বিশেষ ফজিলত। মুসলমানদের জন্য সর্বশ্রেষ্ঠ ও মর্যাদাপূর্ণ জুমআর দিন। এই দিন মুমিন মুসলমানের সাপ্তাহিক ইবাদতের নির্ধারিত দিন। তবে শুধু সবার আগে মসজিদে যাওয়ায় রয়েছে বিশেষ ফায়দা। 

কেন এই দিন মুসলমানদের কাছে সর্বশ্রেষ্ঠ দিন?

বিখ্যাত সাহাবি আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন-
রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, `সূর্য উঠা দিনগুলোর মধ্যে জুমার দিন সর্বোত্তম। এই দিনে আদম আলাইহিস সালামকে সৃষ্টি করা হয়াছে। এই দিনে তাঁকে জান্নাতে প্রবেশ করানো হয়েছে এবং এই দিনে তাঁকে জান্নাত থেকে বের করা হয়েছে। কেয়ামতও হবে এই জুমার দিনে।` (মুসলিম, আবু দাউদ)

বিশেষ ফজিলত

জুমআর নামাজ পড়তে আগে আগে মসজিদ যাওয়ার ফজিলত ও মর্যাদা অনেক বেশি। পশু কুরবানি না করেও এ দিন কুরবানি সাওয়াব পাওয়ার সুযোগ রয়েছে এ দিনে। হাদিসে পাকে এসেছে-

হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেছেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন- `যে ব্যক্তি জুমার দিন ফরয গোসল করলো। অতপর-
১. প্রথমে (সবার আগে) মসজিদে গেল, সে যেন একটি উট কুরবানি করল।
২. আর যে দ্বিতীয় মুহূর্তে গেল, সে যেন একটি গরু কুরবানি করল।
৩. আর যে তৃতীয় মুহূর্তে গেল, সে যেন একটি শিংওয়ালা দুম্বা কুরবানি করল।
৪. আর যে চতুর্থ মুহূর্তে গেল, সে যেন একটি মুরগি কুরবানি করলো।
৫. আর যে পঞ্চম মুহূর্তে গেল, সে যেন একটি ডিম সদকা করলো।
অতপর যখন ইমাম সাহেব বের হয়ে আসেন তখন ফেরেশতাগণ জিকির শুনতে থাকেন।` (বুখারি)