ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ২৩ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধুর উক্তি: চীনের সঙ্গে বন্ধুত্ব কামনা প্রসঙ্গে

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ সোমবার, ০৮:১২ এএম
বঙ্গবন্ধুর উক্তি: চীনের সঙ্গে বন্ধুত্ব কামনা প্রসঙ্গে

আগামী ১৭ মার্চ জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী। এ উপলক্ষে সরকার ২০২০ এর ১৭ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ১৭ মার্চ পর্যন্ত মুজিববর্ষ ঘোষণা করেছে। ১০ জানুয়ারি থেকে মুজিববর্ষের ক্ষণগণনা শুরু হয়েছে। ১০ জানুয়ারি হলো জাতির পিতার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। এই মহামানবের দেওয়া প্রতিটা ভাষণ, বক্তব্য, বিবৃতি জাতির জন্য অমূল্য রতন। জাতি আজও তার সেই সব কথায় দিক খুঁজে পায়। সেখান থেকে সংগ্রহ করে নির্বাচিত উক্তি নিয়ে মুজিববর্ষে বাংলা ইনসাইডারের এই বিনম্র নিবেদন:

চীনের সঙ্গে বন্ধুত্ব কামনা প্রসঙ্গে জাতির পিতা বলেছেন;

‘যখন চীনের বিরুদ্ধে জাতিসংঘে ভেটো দেওয়া হতো তখন এই বাংলার মানুষই বিক্ষোভ করতো। আমি নিজে ঐ ভেটোর বিরুদ্ধে বহুবার কথা বলেছি যে ভেটোর জন্য চীন ২৫ বছর জাতিসংঘে যেতে পারে নাই। দুঃখের বিষয় সেই চীন আজ ভেটো ‘পাওয়ার’ হয়ে প্রথম ভেটো দিলো আমার বাংলাদেশের বিরুদ্ধে। তবু আমি কামনা করি তাদের বন্ধুত্ব। অনেক বড় দেশ। দুশমনি করতে চাই না। বন্ধুত্ব কামনা করি। কারণ আমি সকলের বন্ধুত্ব চাই। কিন্তু জানি না, আমার এই কামনায়, আমার এই প্রার্থনায় তারা সাড়া দেবেন কিনা। যদি না দেন কিছু আসে যায় না। ভুলে গেলে চলবে না যে, আমরা এত ছোট দেশ নই। বাংলাদেশ এতটুকু নয়।  পপুলেশনের ভিত্তিতে বাংলাদেশ দুনিয়ার অষ্টম বৃহত্তম রাষ্ট্র।’



(১৮ জানুয়ারি, ১৯৭৪; আওয়ামী লীগের দ্বি-বার্ষিক কাউন্সিল অধিবেশন, ঢাকা)

চলমান……