ঢাকা, সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮, ৭ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

‘আর্জেন্টিনা-বার্সেলোনা দুটোই আমার কাছে ভালোবাসা’

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৬ মে ২০১৮ বুধবার, ০৭:৩৯ পিএম
‘আর্জেন্টিনা-বার্সেলোনা দুটোই আমার কাছে ভালোবাসা’

২০১৬ সালে কোপা আমেরিকা হারার পর রাগে ক্ষোভে দুঃখে অবসর নিয়ে ফেলেছিলেন মেসি। মেসির অবস্থায় থাকলে যে কেউ হয়তো এটাই করতো। পর পর তিনটি ফাইনাল হারার পরও সব কিছু ভুলে সামনে এগিয়ে যাওয়া এতো সোজা নয় সবার জন্য।

সমর্থক থেকে শুরু করে কোচ সতীর্থ কেউই তাঁর অবসর মেনে নিতে পারেননি। একদল ফুটবলপ্রেমীরা ছিল একধাপ আরও এগিয়ে। দিনের পর দিন মেসির বাসার সামনে অবস্থান করেছে যেন অবসর ভেঙ্গে আবারও আর্জেন্টিনা জার্সি গায়ে মাঠে নামেন। সবার অনুরোধ তিনি ফেলতে না পেরে অবসর ভেঙ্গে আবারও আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে মাঠ মাতান। একক প্রচেষ্টায় বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব থেকে মূল পর্বে জায়গা করে নেয় আর্জেন্টিনা শুধু মাত্র মেসির কল্যাণেই।

তবে অবসর যে একটা ভুল সিদ্ধান্ত ছিল মেসি নিজেই এটা স্বীকার করেন। তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি ২০১৬ সালের অবসর আমার ভুল সিদ্ধান্ত ছিল। যারা নিজেদের স্বপ্নের জন্য বিভিন্ন ভাবে যুদ্ধ করে তাঁদের কাছে আমার অবসর ভুল বার্তা পৌঁছে দিয়েছে। আপনার কখনোই হাল ছেড়ে দেয়া উচিত না সেটা যে পরিস্থিতিই হোক না কেন’।

তিনি আরও বলেন, ‘আর্জেন্টিনা ও বার্সেলোনা দুটোই আমার কাছে ভালোবাসা’।

তবে তিনি আর্জেন্টিনার কিছু সমর্থকদের প্রতি ক্ষোভ জানাতে ভুলেননি। পুরো দুনিয়া যখন তাঁকে সেরাদের সেরার মধ্যে একজন বিবেচনা করে সেখানে আর্জেন্টিনায় জন্ম নেয়া কিছু সমর্থক আর্জেন্টিনা দল নিয়েই হাসি তামাশা করে। মেসিকে তাঁরা একদমই পছন্দ করেননা। তাঁদের ধারনা মেসি শুধুমাত্র ক্লাবের হয়েই খেলে। দেশের জন্য খেলে না। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘একমাত্র আর্জেন্টিনাতেই সম্ভব পর পর তিনটি ফাইনাল খেলার পরও অপমানিত হওয়ার। তাঁরা আমাদেরকে নিকৃষ্ট বলে অপমান করে’।

এখন অবশ্য পুরনো দিনের কথা গুলো তিনি মনে করতে চান না। সামনে বিশ্বকাপ। সেটা নিয়েই এখন তাঁর সবচেয়ে বেশি মাথা ব্যথা। বিশ্বকাপ নিয়ে বলেন, ‘বিধাতাই জানেন আমরা বিশ্বকাপ জিতবো নাকি না। তবে আমরা আমাদের সেরা খেলা ও পুরো শক্তিটাই বিশ্বকাপে দিয়ে দিবো। যা হবার তা হবেই।

তবে বিশ্বকাপ শেষেই আর্জেন্টিনাকে বিদায় জানাবেন কিনা এটা নিয়ে এবার সোজা ঝাঁপটা উত্তর দেন। তিনি বলেন ‘বিশ্বকাপে যাই হোক না কেন আমি আর্জেন্টিনার হয়ে যতদিন সম্ভব খেলে যাবো। বিশ্বকাপের পর অবসর নিচ্ছি না’।

এদিকে তাঁকে যে ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সেরাদের একজন বলা হয় এটা নিয়ে মেসির একদমই মাথা ব্যথা নেই। তিনি বলেন, ‘আমি ইতিহাসের সেরা হতে চাই না। আমি শুধু আমার দল নিয়ে জিততে চাই। আমি শুধু আমার ও সতীর্থদের জন্য খেলতে চাই’।  

তবে অনেকেই মনে করেন মেসি বার্সা ছাড়া অন্য কোথাও খেললে এরকম খেলা দিতে পারবে না। অনেকেই তাঁকে অন্য দলে গিয়ে প্রমাণ করতে বলেছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন ‘আমার কারোও কাছে নিজেকে প্রমাণ করার কিছু নেই। এটা সহজ না বার্সাকে ছেড়ে অন্য কোথাও খেলা’।

অনেকেই জানেন নেইমার তাঁর ভালো বন্ধু। কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছে নেইমার রিয়ালে যোগ দিচ্ছেন। এ নিয়ে মেসি বলেন ‘এটা আসলে ভয়াবহ নেইমারকে রিয়ালের জার্সিতে দেখা। নেইমার আমাদের জন্য অনেক কিছু। এতে বার্সা সমর্থকদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হবে’। 

বাংলা ইনসাইডার/এসএকে/ডিআর