ঢাকা, সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮, ৭ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

টেস্ট ক্রিকেটে আসছে ব্যাপক পরিবর্তন

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৭ মে ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ০৬:১৪ পিএম
টেস্ট ক্রিকেটে আসছে ব্যাপক পরিবর্তন

টেস্ট ক্রিকেটে টস এখন বিলুপ্তির পথে। চলতি মাসের শেষেই আইসিসির সভা থেকেই এই ঘোষণা আসতে পারে। মূলত ঘরের মাঠে স্বাগতিক দেশ বেশি সুবিধে পায় বলেই এমন সিদ্ধান্তটা নিতে যাচ্ছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসি।

টস না করে সফরকারী দেশ নির্ধারণ করবে তাঁরা কি নিবে। ব্যাটিং করবে নাকি বোলিং করবে সবকিছুই নির্ধারণ হবে সফরকারী দেশের উপর। কেননা সম্প্রতি স্বাগতিক দেশগুলো নিজেদের সুবিধার জন্য পিচ গুলোকে এমনভাবে তৈরি করে সফরকারী দল গুলো খেলতে এসে হিমশিম খেয়ে যায়।

১৮৭৭ সালে মেলবোর্নে ইতিহাসের প্রথম টেস্ট থেকেই টস প্রথা হয়ে আসছে। তবে আইসিসির বড় একটি প্যানেলই এখন এর বিপক্ষে।

আগামী বছর থেকেই শুরু হতে যাচ্ছে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ। সেখান থেকেই টস পদ্ধতি তুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত কার্যকর করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

এছাড়া দিবা রাত্রির টেস্ট ম্যাচ নিয়েও আসতে পারে নির্দেশনা। কিছুদিন আগে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ভারতকে গোলাপি বলে দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলতে আমন্ত্রন জানায়। কিন্তু ভারত সরাসরি প্রত্যাখ্যান করে এই প্রস্থাব। সরাসরি প্রত্যাখ্যান অনেকটা অপমানজনক যে কোন দেশের জন্যই।

তবে দিবা রাত্রির টেস্ট উদ্যোগটি শুধু মাত্র নেয়াই হয়েছিল টেস্টকে আবারও জনপ্রিয় করা দর্শকের মাঝে। তাই আইসিসি থেকে নির্দেশনা আসতে পারে সামনের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে স্বাগতিক দল দিবা রাত্রির টেস্ট আয়োজন করলে সফরকারী দলকে বিনা দ্বিধায় খেলতেই হবে। স্বাগতিক দলের উপর সব কিছু নির্ভর করবে দিবা রাত্রির টেস্ট থাকবে কিনা।  

মুম্বাইতে অনুষ্ঠেয় আইসিসির এই কমিটিতে আছেন অনিল কুম্বলে, অ্যান্ড্রু স্ট্রস, মাহেলা জয়াবর্ধনে, রাহুল দ্রাবিড়, টিম মে, নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের প্রধান নির্বাহী ডেভিড হোয়াইট, আম্পায়ার রিচার্ড ক্যাটেলবোরো, আইসিসি ম্যাচ রেফারিদের প্রধান রঞ্জন মাদুগালে, শন পোলক এবং ক্লার কনর।

 

বাংলা ইনসাইডার/এসএকে/ডিআর

 

বিষয়: ক্রিকেট