ঢাকা, শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮ , ৩ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

এশিয়া কাপ জিতবে বাংলাদেশ?

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯ আগস্ট ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ০৭:০৭ পিএম
এশিয়া কাপ জিতবে বাংলাদেশ?

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর শেষে আজ দেশে এসে ফিরেছে টাইগাররা। এখন বিশ্রামের সময় দলের সবার জন্য। সামনে বাংলাদেশের ব্যস্ত সময়সূচি। বছরের শেষ পর্যন্ত সাকিব-তামিমদের টানা খেলা রয়েছে। আগামী মাসের সেপ্টেম্বরেই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এশিয়া কাপ। সেই লক্ষ্যে খুব দ্রুতই প্রস্তুতি শুরু করবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

এবারের এশিয়া কাপের ফরম্যাটটা যে মাশরাফিদের পছন্দের। কারণ ২০১৮ এশিয়া কাপ হবে ওয়ানডে ফরম্যাটে। উইন্ডিজে সিরিজ জয় করে এখন সবার লক্ষ্য সামনের এশিয়া কাপের শিরোপা। গত এশিয়া কাপে বাংলাদেশ দুর্দান্ত খেলে। যদিও এই আসরে দুইবার ফাইনালের খুব কাছে গিয়ে হারতে হয়ছে বাংলাদেশকে। তাই এখন টাইগার ভক্তদের মনে প্রশ্ন এশিয়া কাপে কেমন করবে বাংলাদেশ?

বাংলাদেশ দলের কয়েকটি পজিশনে দুর্বলতা আছে। এই দুর্বলতা কাটাতে পারলে আরও অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠতে পারে বাংলাদেশ দল।

বাংলাদেশের প্রথম দুর্বলতা ওপেনিং জুটি। উইন্ডিজ সফরে ওয়ানডেতে রীতিমতো ধুঁকতে দেখা গেছে তামিমের সঙ্গীকে। এনামুক হক বিজয় পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছেন। তাই অন্য সবার থেকে তুলনামূলকভাবে ভালো খেলা লিটন দাসকে সুযোগ দিয়ে দেখা যেতে পারে।

বাংলাদেশ বেশ লম্বা সময় ধরে তিন নম্বর উইকেটের খেলোয়াড় নিয়ে ভুগেছে। শেষ পর্যন্ত সাকিব আল হাসান ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে দারুণ খেলে বোর্ডের আস্থার প্রতিদান দিয়েছেন। যদিও ইনজুরির কারণে এশিয়া কাপে সাকিবকে নাও দেখা যেতে পারে দলের সঙ্গে। তাহলে সাকিবের জায়গায় কে খেলবে সেটা নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়তে পারে বাংলাদেশ। সাকিব না থাকলে তিন নম্বর পজিশনে মমিনুলকে নামিয়ে দেখা যেতে পারে। তাছাড়া বাংলাদেশ `এ` দলের হয়ে আয়ারল্যান্ডে দুর্দান্ত পারফর্ম করছেন মমিনুল। মমিনুলের এই পজিশনে খেলার অভিজ্ঞতাও রয়েছে।

একই সঙ্গে শেষের দিকে বাংলাদেশের রান তুলতে না পারার সমস্যাটা দীর্ঘদিনের। শেষের দিকে সাধারণত ব্যাটিং করে থাকেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান ও মাশরাফি বিন মর্তুজা। সাব্বির দীর্ঘদিন অফফর্মে রয়েছেন। তাঁকে এবার বিশ্রাম দেওয়া প্রয়োজন। তাঁর জায়গায় আরিফুল হককে সুযোগ দেয়া যেতে পারে। একই সঙ্গে দ্রুত রান তোলা ব্যাটসম্যানদের দিয়ে আলাদা একটি ছোট প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করলে তা বাংলাদেশের জন্যই ভালো হবে।

সব মিলিয়ে ওপেনিং জুটি সমস্যা ও শেষের দিকে দ্রুত রান তোলার সমস্যা দূর করাই এখন মূল চ্যালেঞ্জ। আর এই চ্যালেঞ্জটা উতরে গেলে এশিয়া কাপে ভালো কিছু হবে বলেই আশা করা যায়।

বাংলা ইনসাইডার/ডিআর/জেডএ