ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bagan Bangla Insider

ভালোবাসার প্রতিদান কি দিতে পারবেন সাব্বির!

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারি ২০১৯ বৃহস্পতিবার, ০৪:০২ পিএম
ভালোবাসার প্রতিদান কি দিতে পারবেন সাব্বির!

বুধবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আসন্ন ওয়ানডে সিরিজের জন্য দল ঘোষণা করে বিসিবি। দলে জায়গা পেয়েছেন শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে নিষিদ্ধ ক্রিকেটার সাব্বির রহমান। এর ব্যাখ্যায় বিসিবিরি নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন ন্নানু জানান মাশরাফির জোরালো আবেদনের কারণে দলে ফিরেছেন সাব্বির। নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও কিভাবে জাতীয় দলে জায়গা পেলেন সাব্বির?

গত বছরের ১ সেপ্টেম্বর, শৃঙ্খলাভঙ্গের ঘটনায় ছয় মাসের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হন সাব্বির রহমান। নিষেধাজ্ঞা অনুযায়ী ২৮ ফেব্রুয়ারি শেষ হওয়ার কথা সাব্বিরের নিষেধাজ্ঞা। কিন্তু সূচি অনুযায়ী বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ডের প্রথম ওয়ানডে হবে ১৩ ফেব্রুয়ারি। নিষেধাজ্ঞা থাকা অবস্থায় কী করে দলের জায়গা পেলেন সাব্বির? এমন প্রশ্নের জবাবে বিসিবির নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু সাব্বিরের দণ্ড কমিয়ে আনার বিষয়টি সামনে আনেন, ‘এটা (নিষেধাজ্ঞা কমানো) আমরা দল দেওয়ার অনেক আগেই জেনেছি। শৃঙ্খলা কমিটি আমাদের জানিয়েছে তার (সাব্বিরের) শাস্তি এক মাস কমানো হয়েছে। যা আপনাদের (গণমাধ্যমকে) জানানো হয়নি।’

নিষেধাজ্ঞা কমানো হলেও প্রশ্ন থাকে পারফরম্যান্স বিবেচনায় দলে কী করে জায়গা পান সাব্বির। ডানহাতি এই মারকুটে ব্যাটসম্যান সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছেন গত জুলাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। এছাড়া আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষেধাজ্ঞার পর গত কয়েক মাসে ঘরোয়া ক্রিকেটে চার দিনের ম্যাচ ও টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট মিলিয়ে ২১ ইনিংসে শতকের দেখা পাননি একটিও। অর্ধশতক করেছেন মাত্র তিনটি। তাই পারফরম্যান্স নয়, সাব্বিরের ব্যাপারে মাশরাফির চাওয়াকে গুরুত্ব দেওয়ার কথা জানান নির্বাচক নান্নু।

সাব্বিরের প্রতি মাশরাফির ভালবাসা নতুন নয়। টাইগার অধিনায়কের মতে সাব্বির একজন ইমপ্যাক্ট ক্রিকেটার। মঙ্গলবার বিপিএলে রংপুর-খুলনা ম্যাচের পরও সাব্বিরের প্রশংসা করেন মাশরাফি, ‘সামনে বিশ্বকাপ। আর বিশ্বকাপের কথা যদি ভাবেন, আমাদের দলে সাতে এমন ব্যাটসম্যান কই, যে ন্যাঁড়া উইকেট কাজে লাগিয়ে প্রতিপক্ষের দুর্দান্ত ফাস্ট বোলারদের বিপক্ষে রান তুলতে পারবে। সাতে তো অনেককে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছি। খুব ভালো ফল কি পেয়েছি?

এতে পরিষ্কার হয় সাব্বিরের প্রতি মাশরাফির ভালোবাসা ও ভরসা কতখানি। কিন্তু এর প্রতিদান কতটা দিতে পারবেন সাব্বির? কারণ অতীত রেকর্ড কথা বলছে তার বিপক্ষেই।

গত বছর আরো এক দফায় নিষিদ্ধ হয়েছিলেন তিনি। জাতীয় লিগের ম্যাচে রাজশাহীতে এক কিশোরকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ ওঠে সাব্বিরের বিরুদ্ধে। এরপর রিপোর্ট না দেওয়ার জন্য শাসিয়েছিলেন ম্যাচ রেফারিকে। সেবার ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে ৬ মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন। একইসঙ্গে গুণতে হয়েছিল জরিমাণা। আর গত বিপিএলে মাঠের বাইরে শৃঙ্খলাভঙ্গের ঘটনায় জরিমানা গুনেছিলেন মোটা অঙ্কের। এবারের সুযোগটা কতটা এবং কিভাবে কাজে লাগাবেন সাব্বির তা দেখার জন্য অপেক্ষায় থাকবে টাইগরাভক্তরা।

বাংলা ইনসাইডার/আরইউ/এমআর