ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

তামিম যেন নিজ ঘরে পরবাসী!

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ বৃহস্পতিবার, ১২:৪৭ পিএম
তামিম যেন নিজ ঘরে পরবাসী!

ঘর বাঁধলেন, ঘর সাজালেন কিন্তু সেই ঘরে তিনিই পরবাসী। তামিম ইকবাল ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের চিত্রনাট্যটি ঠিক এমনই। সদ্য সমাপ্ত বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) জন্য ফ্র্যাঞ্চইজি ও কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিনের সঙ্গে মিলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের দল সাজান তামিম ইকবাল। কিন্তু তাকে না জানিয়েই অস্ট্রেলিয়ার স্টিভ স্মিথকে অধিনায়ক করে কুমিল্লার টিম ম্যানেজমেন্ট। এতে অপমানিত বোধ করায় এবারের আসরে অধিনায়কত্ব করেননি তামিম ইকবাল।

বিপিএলের এবারের আসর যেন ছো্ট গল্পের মতো, শেষ হওয়াইও, হইলো না শেষ। জনপ্রিয় ক্রিকেট ওয়েবপোর্টাল ‘ক্রিকবাজ’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তামিম ইকবালের অধিনায়কত্ব না করার বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন।

বিপিএলের পঞ্চম মৌসুমের আগে মাশরাফি বিন মর্তুজাকে ছেড়ে দিয়ে দলের আইকন ক্রিকেটার হিসেবে তামিম ইকবালকে দলে ভেড়ায় কুমিল্লা। হাতে তুলে দেয় অধিনায়কের আর্মব্যান্ড। তাঁর নেতৃত্বে গত মৌসুমে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে খেলে কুমিল্লা। তামিম পারফরম্যান্সে মুগ্ধ হয়ে, তাকে এ মৌসুমেও দলে রেখে দেয় দলটির ম্যানেজমেন্ট।

এই মৌসুমেও তামিম অধিনায়ক থাকছেন সেটা ধরে নিয়েই শুরু হয় দল গোছানোর কাজ। কিন্তু শেষ মুহূর্তে বদলে যায় সব। এমনটাই জানান মোহাম্মদ সালাউদ্দিন, ‘বেশ কিছু বিষয় ছিলো যা, সকলের সামনে আলোচনা করা যাবে না। গত ছয়-মাস ধরে আমি ও তামিম আমাদের স্কোয়াড নির্বাচন করার জন্য পরিকল্পনা করেছি। দুই জনে মিলে একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক দল গড়েছি। কিন্তু শেষ মুহূর্তে যা ঘটেছে তা পুরোপুরি ন্যাক্কারজনক। বিষয়টি তখন সামনে আসলে, আমাদের দল মানসিকভাবে ভেঙে পড়তো’।

কাউকে কিছু না জানিয়েই অস্ট্রেলিয়ার স্টিভ স্মিথকে অধিনায়ক করে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। দলটির কোচের দাবি এতে অপমান বোধ করেন তামিম, ‘সে (তামিম) স্মিথের সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ করিয়ে দেয়। স্মিথের বাংলাদেশে আসার পেছনে তামিম বড় ভূমিকা রাখে। দুর্ভাগ্যবশত স্মিথের এজেন্টের কাছ থেকে তামিম জানতে পারে, স্মিথকে আমাদের অধিনায়ক করা হয়েছে। এবং এটি ছিলো তামিমের জন্য বেশ অপমানজনক।’

মূলত এই কারণে বিপিএলের শুরুতে তামিমের পারফরম্যান্স ভালো ছিলো না বলে মন্তব্য করেন কুমিল্লার কোচ, ‘আমি বিশ্বাস করি, পরিস্থিতিটি আমরা ভিন্নভাবে সমাল দিতে পারতাম। আমি মনে করি টুর্নামেন্টের শুরু দিকে তামিমের পারফরম্যান্স খারাপ হওয়ার পেছনে মূল কারণ ছিলো এটি।’

স্মিথ চলে যাওয়ার পর তামিমের অধিনায়কত্ব না করার কারণও ব্যাখ্যা দেন মোহাম্মদ সালাউদ্দিন, ‘অভিমান থেকে তামিম আর কুমিল্লার অধিনায়কত্ব করেনি। আমি মনে করি তামিমের সিদ্ধান্ত সঠিক ছিলো। তার জায়গায় যে কেউ ঠিক এই কাজটি করতো। এই কারণে আমরা ইমরুলকে অধিনায়ক করি। টুর্নামেন্ট যত গড়িয়েছে, তামিম তাঁর ভেতরের যন্ত্রণা কাটিয়ে উঠেছে এবং ইমরুলের সঙ্গে পরামর্শ করে মাঠে ভালো ফলাফল এনেছে।’

কথা আছে ‘শেষ ভালো যার সব ভালো তার’। বুকের ভেতর যন্ত্রণা নিয়েও মাঠে পারফরম করেন তামিম, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের টিম ম্যানেজমেন্টকে মোক্ষম এক জবাব দিয়েছেন বলে মনে করছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। অনেকের মতে এটা থেকে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের শিক্ষা নেয়া উচিত, যেন দেশি কোন ক্রিকেটারের প্রতি এমন অন্যায় আচরণ আর না হয়।

বাংলা ইনসাইডার/আরইউ/এমআর