ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

দুর্দান্ত সাকিব-তামিমে শতক পার বাংলাদেশের

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৭ জুন ২০১৯ সোমবার, ০৮:৫৬ পিএম
দুর্দান্ত সাকিব-তামিমে শতক পার বাংলাদেশের

সৌম্যর বিদায়ের পর মাঠে নামেন সাকিব আল হাসান। ধুঁকতে থাকা তামিম যেন পেয়ে যায় পরশ পাথর। তামিম-সাকিবের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে দলীয় শতক পার বাংলাদেশের।

সাকিবের উপর আজকের ম্যাচেও সকল আশা-ভরসা টাইগার সমর্থকদের। ৩২২ রানের মতন বড় টার্গেটে খেলতে নেমে দারুণ ব্যাটিং ফর্মে থাকা সাকিবকে খেলতে হবে আর একটি দুরন্ত ইনিংস।

আবারো বড় ইনিংস গড়তে ব্যর্থ সৌম্য

৩২২ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমেই শুরুতে উইকেট হারালো বাংলাদেশ। ভাল শুরু করেও আবারোও বড় ইনিংস গড়তে ব্যর্থ সৌম্য সরকার। ক্যারিবীয় পেসারদের গতি আর বাউন্সের সামনে ইনিংসের প্রথম থেকেই নড়বড়ে ছিল টাইগার ওপেনাররা।

সাবধানে ইনিংস শুরু করতে গিয়ে প্রথমে একটু চাপে থাকলেও সৌম্যর স্বভাবজাত ব্যাটিংয়ে রানের চাকা সচল ছিল বাংলাদেশের। তবে রাসেলের করা নবম ওভারে পুল করতে গিয়ে থার্ডম্যানে গেইলের হাতে ক্যাচ তুলে দেন সৌম্য। তামিম ইকবাল রয়েছেন ১৬ রানে অপরাজিত।    

স্কোরবোর্ড

বাংলাদেশ ১০৩/১

ওভার ১৪

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩২১/৮ ওভার ৫০ 

এর আগে......

জিততে হলে গড়তে হবে রেকর্ড

শেষ বলে উইকেট পেলেন সাইফ উদ্দিন। ১৯ রানে আউট হয়ে গেলেন ব্রাভো, ওয়েস্ট ইন্ডিজ থামল ৩২১ রানে। একটা সময় মনে হচ্ছিল ৩৫০ রান পর্যন্ত যাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, সেখান থেকে ৩২১ রানে হয়তো বাংলাদেশ কিছুটা স্বস্তি পেতে পারে। শেষ ১০ ওভারে ৭৮ রান নিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, এই সময় হারিয়েছে ৩ উইকেট। বিশ্বকাপে ঠিক ৩২২ রান তাড়া করে জেতার কীর্তি আছে বাংলাদেশের। এই বিশ্বকাপে অবশ্য এখনও ৩০০ রানের বেশি তাড়া করে জিততে পারেনি কেউ। বাংলাদেশ কি পারবে?

টন্টনে বাংলাদেশের লক্ষ্য ৩২২

টন্টনে বাংলাদেশের লক্ষ্য ৩২২। লুইস,হোপ আর হেটমায়ারের ব্যাটিং তাণ্ডবে উইন্ডিজরা স্কোরবোর্ডে তোলে ৫০ ওভারে ৩২১ রান। টাইগারদের হয়ে তিন উইকেট করে নিয়েছে সাইফুদ্দিন এবং মুস্তাফিজ। সাকিব আল হাসান পেয়েছেন ক্যারিবীয়দের বাকি দুই উইকেট।

অতিরিক্ত খাত থেকে রান এসেছে ২২! যা ক্যারিবীয়দের ইনিংসের পঞ্চম সর্বোচ্চ রান। রান খরচের দিকে এগিয়ে সাইফুদ্দিন। ১০ ওভারে দিয়েছেন ৭২ রান। 

অবশেষে বিদায় হোপের   

অবশেষে বিদায় শাই হোপের। সেঞ্চুরির দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়েও সেঞ্চুরি হল না হোপের। মুস্তাফিজ পেয়েছেন তার তৃতীয় উইকেট। উইন্ডিজদের রানের বন্যায় আপাতত কিছুটা হলেও লাগাম আসবে।

ক্যারিবীয় অধিনায়ককে ফেরালেন সাইফুদ্দিন

নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পড়লেই ক্যারিবীয় ঝড় থামছে না। সাইফুদ্দিনের বলে এবার উইকেট পড়লো ক্যারিবীয় অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের। ১৫ বলে ৩৩ রান করে আউট হয়েছেন হোল্ডার। 

হেটমায়ার ঝড়ের পর জোড়া আঘাত কাটার মাস্টারের    

এই টুর্নামেন্টের সবথেকে বর ছয়টা মারলেন সবথেকে ছোট মাঠে। তুলে নিলেন ঝড় হাফ সেঞ্চুরি। তবে কাটার মাস্টারের বোলিং জাদু এবং তামিমের দুর্দান্ত ক্যাচে ঝড় শুরু করেই ফিরতে হল সাজঘরে।

এই ওভারেই আরেক বিপদজনক খেলোয়াড় রাসেলকেও দেখালেন সাজঘরের পথ। রানের খাতা খোলার আগেই আউট হন এই ক্যারিবীয় অলরাউন্ডার। মুস্তার জোড়া উইকেটে ম্যাচে ফিরলো বাংলাদেশ।

হোপে আশা ফিরে পাচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ 

বাংলাদেশের বিপক্ষে বরাবরই ভাল খেলে শাই হোপ। আজকেও যেন সেই পুনরাবৃত্তি। সাইফউদ্দিনের দুই ছয়ে ১৭ রান নিয়ে ভাল সংগ্রহের দিকে নিয়ে যাচ্ছে উইন্ডিজকে।

রানের চাকাটা দ্রুত ঘুরতে শুরু করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের, হোপও খেলছেন হাত খুলে। মোস্তাফিজের বলে পর পর দুই চার মারলেন, তবে সেই ওভারেই একটি সুযোগ পেয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। শর্ট থার্ডম্যান থেকে সাইফ উদ্দিন থ্রোটা লাগাতে পারলেই রান আউট হয়ে যেতেন হেটমেয়ার, কিন্তু একটুর জন্য মিস করলেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজ এখান থেকে অন্তত ৩২০ করতেই চাইবে

সাকিবের দ্বিতীয় আঘাতে সাজঘরে পুরান

নিকোলাস পুরানকে আউটকে করে ক্যারিবীয় শিবিরে তৃতীয় আঘাত সাকিবের। ৩০ বলে ২৫ রান করে আউট হন পুরান। সাকিবের এই ইনিংসে দ্বিতীয় উইকেট।

সাকিব আছে না?

লুইস হয়ে উঠছিল বিপদজনক হয়ে। দলের চাপ কাটিয়ে করে ফেলেছিল ৭০ রান! লুইস যখন খোলস থেকে বের হতে যাচ্ছিলো, সাকিব তখন তাঁকে পাঠিয়ে দিলেন সাজঘরের ভিতরে।

সবার তুলনায় একটু বেশিই রান দিচ্ছিল সাকিব। আউট হওয়ার আগে সাকিবের ওভার থেকে লুইস নিয়েছেন এক ছয় এবং এক ডাবল। এর পরের বলেই লং অনে সাব্বিরের হাতে ক্যাচ তুলে দেন এভিন লুইস। বিপদের সময় সাকিবের ত্রাণকর্তা হয়ে ওঠা এ আর নতুন কি? 

লুইস-হোপে চাপ কাটিয়ে উঠছে ক্যারিবীয়রা

গেইলের উইকেট হারিয়ে চাপে পড়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সেই চাপ কাটিয়ে উঠছে এভিন লুইস-শাই হোপ জুটিতে।

দু-একটা মিসফিল্ডিং বাদে টাইগারদের ফিল্ডিং এখন পর্যন্ত হয়েছে দুর্দান্ত। যদিও শাই হোপ আর লুইস এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে ক্যারিবীয় ইনিংসকে। 

পাওয়ারপ্লেতে পাওয়ার নেই উইন্ডিজের  

ক্যারিবীয়দের স্বাভাব যেখানে চার-ছয় খেলা,সেখানে টন্টনে টাইগারদের সামনে দেখা গেছে অন্য এক ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। মাশরাফিদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে প্রথম পাওয়ারপ্লেতে উইন্ডিজরা নিতে পেরেছে মাত্র ৩২ রান।

টন্টনের উইকেটে হাইস্কোরিং ম্যাচের সম্ভাবনার কথা সবারই জানা। তবে আগের দুই দিন বৃষ্টি থাকায় উইকেটে রয়েছে কিছুটা সবুজাভ ভাব। টসে জিতে সে সুবিধাটাই নিয়েছে টাইগার দলপতি। নিয়ন্ত্রিত বোলিং আর সুইংয়ে উইন্ডিজরা ভড়কেছে বারংবার। 

শূন্য হাতে গেইলকে ফিরালো সাইফুদ্দিন

মাশরাফি বিন মর্তুজার টসে জিতে আগে বোলিং নেয়ার সিদ্ধান্ত যে কতটা উপযোগী ছিল তাঁর ফলাফল ইনিংসের চতুর্থ ওভারে। ক্যারিবীয় শিবিরে প্রথম আঘাত সাইফুদ্দিনের।

রানের খাতা খোলার আগেই ১৩ বলে শূন্য রানে সাজঘরে ফিরেছে দানবীয় ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল। ব্যাটের কোণায় লেগে ক্যাচ উঠেছে মুশফিকুর রহিমের হাতে।  

এর আগে টস জিতে প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে টাইগার একাদশে এসেছে এক পরিবর্তন। মোহাম্মদ মিঠুনের জায়গায় ঢুকেছেন লিটন দাস।

 

বাংলা ইনসাইডার/এসএম