ঢাকা, রোববার, ২১ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bagan Bangla Insider

স্মিথ-ক্যারির প্রতিরোধের পর জোড়া আঘাত আদিলের

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১ জুলাই ২০১৯ বৃহস্পতিবার, ০৫:৪৯ পিএম
স্মিথ-ক্যারির প্রতিরোধের পর জোড়া আঘাত আদিলের

অস্ট্রেলিয়ার পুনর্গঠনের কাজটা দারুণভাবেই করে যাচ্ছিল স্মিথ ও ক্যারি। দুজনই এগিয়ে যাচ্ছিল অর্ধশতকের দিকে। তবে আদিল রশিদের জোড়া উইকেটে আবারো ব্যাকফুটে অজিরা।

আদিল রশিদ ইনিংসের ২৮তম ওভারে অ্যালেক্স ক্যারিকে ফিরিয়ে দারুণ এক ব্রেকথ্রু এনে দিলেন ইংল্যান্ডকে। ওভারের শেষ বলে মার্কাস স্টয়নিসকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন। আরেক দফা চাপে অস্ট্রেলিয়া।

স্টয়নিসের আউটটা নিয়ে রয়েছে বিতর্ক। বেশ সময় নিয়েই আঙুল তুলেছেন কুমার ধর্মসেনা। রিভিউ নেই অস্ট্রেলিয়ার, সেটা শুরুতেই হারিয়েছেন ফিঞ্চ। বল ট্র্যাকিং দেখিয়েছে, ইমপ্যাক্ট ও উইকেটে ছিল আম্পায়ারস কল। ভাগ্য পক্ষে এসেছে ইংল্যান্ডের। এর আগে একটা আম্পায়ারস কল বিপক্ষে গিয়েছিল তাদের।

স্কোরবোর্ড

অস্ট্রেলিয়া ১৩০/৫

ওভার ৩০

জোফরার বাউন্সারে ‘রক্তাত্ত পাওয়ারপ্লে’    

পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন সেমিফাইনালে হারেনি কোনদিন। সেই ইতিহাসকে সামনে রেখে মাঠে নেমেছিল স্বাগতিক ইংল্যান্ড। তবে অজি ব্যাটসম্যানদের উপর পাওয়ার প্লের দশ ওভারে যে তাণ্ডব চালালো আর্চার-ওকস, তাতে সেই ইতিহাস ভাঙা সময়ের ব্যাপার।

দশ ওভারেই তিন উইকেট হারানো অস্ট্রেলিয়া ধুঁকছে মারাত্মকভাবে। আর্চারের বাউন্সারে রক্তক্ষরণও  ঘটেছে উইকেটরক্ষক অ্যালেক্স ক্যারির। আর্চারের বলটা ধুপ করে এসে লাগল হেলমেটে, অ্যালেক্স ক্যারিকে হতভম্ব করে সেটা খুলেও গেল। তখনই কেটে গেছে চিবুকের কাছে, আপাতত প্রাথমিক চিকিৎসা দরকার হবে তার।

ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের সাথে খেলতে অস্ট্রেলিয়ার দরকার দারুণ একটি জুটি। কে দেবে সেই জুটি? ক্রিজে আছেন স্টিভ স্মিথ এবং আহত ক্যারি।

ইংলিশ বোলিং তোপে সাজঘরে ফিঞ্চ-ওয়ার্নার

এজবাস্টনে ইংলিশ বোলারদের গতির মুখে সাজঘরে ফিরে গেছেন এই বিশ্বকাপের সবথেকে সফল উদ্বোধনী জুটি ফিঞ্চ-ওয়ার্নার এবং উসমান খাজার পরিবর্তে ডাক পাওয়া পিটার হ্যান্ডসকম্ব।

ক্রিস ওকসের বাউন্স বলে দ্বিতীয় স্লিপে জনি বেয়ারস্টোর হাতে ধরা পড়লেন, ওয়ার্নার ফিরলেন ৯ রানে। ১০ রানে অস্ট্রেলিয়া হারাল দ্বিতীয় উইকেট। ১০ রানে অস্ট্রেলিয়া হারাল দ্বিতীয় উইকেট।

এর আগে জোফরা আর্চারের বলে গোল্ডেন ডাকে সাজঘরে ফেরেন অজি অধিনায়ক ফিঞ্চ। দলের সবথেকে বড় দুই অস্ত্র হারিয়ে কোণঠাসা অস্ট্রেলিয়া।

অস্ট্রেলিয়া একাদশঃ

ডেভিড ওয়ার্নার, অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), স্টিভ স্মিথ, পিটার হ্যান্ডসকম্ব, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মার্কাস স্টয়নিস, অ্যালেক্স ক্যারি (উইকেটরক্ষক), প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক, জেসন বেহেন্ড্রফ ও নাথান লায়ন।

ইংল্যান্ড একাদশঃ

জেসন রয়, জনি বেয়ারস্টো, জো রুট, এউইন মরগান (অধিনায়ক), জস বাটলার (উইকেটরক্ষক), বেন স্টোকস, ক্রিস ওকস, লিয়াম প্লাংকেট, আদিল রশিদ, জফরা আর্চার ও মার্ক উড।

বাংলা ইনসাইডার/এসএম