ঢাকা, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশের নিরাপত্তায় ১০ হাজার পাকিস্তানি পুলিশ

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৯ জানুয়ারি ২০২০ রবিবার, ০১:৪৮ পিএম
বাংলাদেশের নিরাপত্তায় ১০ হাজার পাকিস্তানি পুলিশ

দীর্ঘ ১০ বছর পর শ্রীলঙ্কা জাতীয় ক্রিকেট দল প্রথমবারের মতো সিরিজ খেলেছে পাকিস্তানে। এরপর সেই ধারা অব্যহত রাখতে যাচ্ছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। আর বাংলাদেশের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে কোন প্রকার ছাড় দিতে নারাজ পাকিস্তান। তাই তামিম-রিয়াদদের নিরাপত্তায় নিয়োজিত থাকবে ১০ হাজার পুলিশ!

বাংলাদেশ দলের নিরাপত্তা নিয়ে আলোচনা করতে শনিবার বৈঠকে বসেছিল আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটি। পাঞ্জাবের আইন ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী ছিলেন এটির আহ্বায়ক। সভাতে আইনমন্ত্রী মোহাম্মদ বাশারাত রাজা পূর্ণ নিরাপত্তা নিশ্চিত করার নির্দেশ দেন কর্তৃপক্ষকে। বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের পাশাপাশি সকল দর্শকদের কথাও মাথায় রাখার কথা বলা হয়েছে এই সভায়।

খেলা চলাকালীন রাস্তাঘাটের নিরাপত্তা দেখভাল করা ছাড়াও ট্রাফিক জ্যামের বিষয়টি মাথায় রাখার কথা জানান পাকিস্তানি আইনমন্ত্রী। লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়াম এবং রাওয়ালপিণ্ডি ক্রিকেট স্টেডিয়ামের নিরাপত্তার ব্যাপারেও নির্দেশ দেয়া হয় এই সভায়। প্রস্তাবিত এ নিরাপত্তা পরিকল্পনায় সাধারণ জনগণের যেন ভোগান্তি না হয় সে ব্যাপারেও লক্ষ্য রাখার কথা বলেছেন তিনি।

লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। এ শহরে বাংলাদেশ দলকে নিরাপত্তা দিতে মোতায়েন করা হবে ১০ হাজার পুলিশ। কোনো সমস্যা হলে দ্রুতগতিতে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য তৈরি থাকবেন ১৯ জন বিশেষ কর্মকর্তা, সামরিক কমান্ডো এবং রেঞ্জার্স। রাওয়ালপিন্ডি টেস্টের জন্য নিরাপত্তা দেবেন সামরিক ব্যাটালিয়ন, রেঞ্জার্স উইং এবং ৪ হাজারের বেশি পুলিশ সদস্য।

উল্লেখ্য, লাহোরে ২৪, ২৫ ও ২৭ জানুয়ারি তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। রাওয়ালপিন্ডিতে প্রথম টেস্ট গড়াবে ৭ থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি। এরপর ৩ এপ্রিল করাচিতে গড়াবে একটি ওয়ানডে এবং ৫-৯ এপ্রিল দ্বিতীয় টেস্ট।

বাংলা ইনসাইডার/এসএম