ঢাকা, রোববার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২১ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘মুশফিককে বুঝতে হবে, পরিবারের চেয়ে দেশ গুরুত্বপূর্ণ’

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ মঙ্গলবার, ০৬:২৩ পিএম
‘মুশফিককে বুঝতে হবে, পরিবারের চেয়ে দেশ গুরুত্বপূর্ণ’

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ইনিংস ব্যবধানে জয়ের নায়ক মুশফিকুর রহিম। ক্যারিয়ারের তৃতীয় বারের মতো দ্বিশতক করা এই ব্যাটসম্যান এখন বাংলাদেশ টেস্ট ইতিহাসের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। শুধুমাত্র সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক নয়, মুশফিককে বলা যায় টেস্টে টাইগার মিডল অর্ডারের ব্যাটিং স্তম্ভ। তবে তাকে ছাড়াই পাকিস্তানে রাওয়ালপিন্ডি টেস্ট খেলতে হয়েছে বাংলাদেশকে।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ক্রিকেটারদের সুযোগ দিয়েছিল পাকিস্তান সফরকে ‘হ্যাঁ’ কিংবা ‘না’ বলার। মুশফিকুর রহিম ‘না’ -এর পাশে টিক মেরেছিলেন। তাঁর সতীর্থরা অবশ্য দুবার পাকিস্তান সফর করে এসেছেন। লাহোরে টি-টোয়েন্টি সিরিজ এবং রাওয়ালপিন্ডি টেস্ট খেলতে না যাওয়ায় বোর্ডের কম কথা শুনতে হয়নি মুশফিককে।

পাকিস্তান সফরের পরের দফায় মুশফিকুর রহিমের সেখানে যাওয়া উচিৎ বলে মন্তব্য করেছেন বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন। পরিবারের সঙ্গে দেশের কথাও ভাবতে বলেছেন তিনি। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের ইনিংস ব্যবধানে জয়ের পর ম্যাচসেরা মুশফিককে নিয়ে এমন কথা বললেন বিসিবি প্রেসিডেন্ট।

পাপন আজ বলেন, ‘আশা করছি সে যাবে। সে শুধু না, প্রতিটি চুক্তিবদ্ধ খেলোয়াড়ের যাওয়া উচিত (বাংলাদেশের হয়ে বিদেশ সফরে)। খেলোয়াড়দের দেশের কথাও চিন্তা করতে হবে। সব সময় নিজের কথা চিন্তা করলে হবে না। যেটি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি। প্রত্যেকের কাছেই পরিবারের কথা গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু দেশটা তার চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’

মুশফিক না গেলেও পাকিস্তান সফরের প্রথম দুই ধাপে দলের সঙ্গে ছিলেন মাহামুদউল্লাহ রিয়াদ। যার সাথে পারিবারিক সম্পর্ক রয়েছে মুশফিকুর রহিমের। তাই বিসিবি বসের প্রশ্ন, রিয়াদ যেতে পারলে কেন মুশফিক যেতে পারবেন না?

পাপন যোগ করেন, ‘ওর বাড়ির লোকেও (ভায়রা ভাই মাহমুদউল্লাহ) তো খেলে এসেছে! রিয়াদের (মাহমুদউল্লাহ) কিছু হবে না, শুধু ওর জন্যই বাড়ির লোক কান্নাকাটি করবে নাকি? রিয়াদের কাছ থেকেও সে শুনতে পারে পাকিস্তান সফর নিয়ে। তবে পাকিস্তান সফর নিয়ে আমরা জোরাজুরি করব না। তবে সবার সঙ্গে কথা বলে ওর যাওয়া উচিত।’

উল্লেখ্য, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের পর সিলেটে তিনটি ওয়ানডে, এবং এরপর ঢাকায় দুটি টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ, পাকিস্তান সফরে যাওয়ার আগে।

বাংলা ইনসাইডার/এসএম