ঢাকা, বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangla Insider

বিসিবির খরচ বাঁচাতে অবসর নেয়নি মাশরাফি

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৮ মে ২০২০ বৃহস্পতিবার, ১১:৫১ এএম
বিসিবির খরচ বাঁচাতে অবসর নেয়নি মাশরাফি

মাশরাফি বিন মর্তুজা যে নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের ইতি ইংল্যান্ড বিশ্বকাপেই টেনে দিবেন সেই অনুমান ছিল অনেকেরই। অন্তন একজন ক্রিকেটারের কাছে এর থেকে বড় মঞ্চ আর কিই বা হতে পারে। কন্তু বিশ্বকাপের মাঝেই মাশরাফির অবসর নিয়ে বোর্ড-সাংবাদিক আর দর্শকদের মাঝে এত জল ঘোলা হয়েছে যে রীতিমত অস্বস্তিকর অবস্থায় গিয়ে দাঁড়ায় মাশরাফির অবসরের ব্যাপারটি।

তবে কেন অবসর নিয়ে এত নাটকীয়তা, সেই ব্যাপারটিকেও আড়াল করে গেছেন দেশের ইতিহাসের সফলতম এই অধিনায়ক। প্রায় বছরখানেক পর মাশরাফি নিজেই খোলাসা করলেন অবসর রহস্য। জানালেন, তাঁর আসলেই ইচ্ছা ছিলো বিশ্বকাপে নিজেদের শেষ ম্যাচে অবসর নেয়ার। তবে বোর্ডের কাছ থেকে অন্যরকম কিছু কথা শুনতে পাওয়ার কারণেই তখন সিদ্ধান্তে বদল আনেন মাশরাফি। তখনকার সময়ের ঘটনাবলী মাশরাফি জানিয়েছেন ক্রীড়া সাংবাদিক নোমান মোহাম্মদের সঙ্গে ইউটিউব লাইভে।

মাশরাফি জানান ‘আমি শেষ ম্যাচেই শেষ করতে চেয়েছিলাম। তখন এমন একটা কথা এসেছিল যে, এভাবে না হোক, সুন্দরভাবে হোক (অবসর)। দেশে আসার পর যেটা হয়েছে, জিম্বাবুয়েকে কত টাকা (২ কোটি) খরচ করে একটা ম্যাচ আয়োজন করা। তখন আমার মনে হয়েছে, মাশরাফি হয়তো মাঠ থেকে অবসর নেয়া ডিজার্ভ করে, কিন্তু একটা ম্যাচের জন্য ২ কোটি টাকা মাশরাফি ডিজার্ভ করে না। যেখানে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের এই অবস্থা, সেখানে একটা ম্যাচের জন্য এত টাকা তার প্রাপ্য নয়। তাই আমি তখন অবসর নেইনি।

আমি অবসর নিতে চাইনি বা নিবো না- এমনটা যদি কেউ দাবি করে তাহলে সামনাসামনি বসতে হবে। আর ঐসময় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সেই ম্যাচের প্রস্তাব কেন নেইনি সেটাও বললাম। যেখানে আমার প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটারদের মনে কষ্ট আছে, সেখানে আমার একটা ম্যাচের জন্য ২ কোটি টাকা খরচ করাটা ভালো মনে হচ্ছিল না।

একইভাবে আমার কাছে মনে হচ্ছিল, এই ২ কোটি টাকা আমার ওপর ভারী হয়ে যাচ্ছে কি না। এতই ব্যস্ততা যে, ২ কোটি টাকা দিয়ে আমাকে অবসর নেয়াতে হবে। তো এসব জিনিসও আমার মাথায় এসেছে। আপনি যেটা বললেন, জেদ বিষয়টা ঠিক না। তবে এসব জিনিস মাথায় কাজ করেছে। আর আমাকে যে মাঠ থেকেই অবসর নিতে হবে, এমন কোন প্রয়োজনীয়তাও দেখছি না।’

বাংলা ইনসাইডার/এসএম