ঢাকা, বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangla Insider

তামিমকে বদলে দিয়েছেন কোহলি

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২ জুন ২০২০ মঙ্গলবার, ০৫:০৯ পিএম
তামিমকে বদলে দিয়েছেন কোহলি

তামিম ইকবাল খান। ক্যারিয়ারে নানান চড়াই-উতরাইয়ের সাথে নিজের ফিটনেস নিয়েও নানান পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছেন এই ব্যাটসম্যান। তবে বর্তমানের তামিম ইকবাল নিজের ফিটনেস নিয়ে যথেষ্ট সচেতন। মূলত ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে দেখেই অনুপ্রাণিত হয়েছেন তামিম।

দুই-তিন বছর আগে কোহলির অনুশীলন এবং জিম দেখে নিজেদের পার্থক্যটি উপলব্ধি করতে পেরেছেন তামিম। এমনকি একটা সময় কোহলিকে দেখে নাকি লজ্জাও লাগতো তাঁর। ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ‘ইএসপিএন ক্রিকইনফো’তে সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার ও ধারাভাষ্যকার সঞ্জয় মাঞ্জরেকারের সঙ্গে নানা বিষয় নিয়ে কথা বলেন তামিম।

সেই ভিডিও সাক্ষাৎকারে ফিটনেস নিয়ে তামিম বলেন, ‘আমার এটা বলতে কোন লজ্জা নেই যে, আমার মনে হয় প্রকাশ করা উচিত, ২-৩ বছর আগে যখন আমি বিরাট কোহলিকে দেখেছি জিমে কাজ করতে, রানিং ও অন্য সবকিছু নিয়ে তখন নিজেকে নিয়ে লজ্জা লাগতো আমার। সত্যিই নিজেকে নিয়ে লজ্জা লাগত।

মনে হতো, ‘এই ছেলেটি, সম্ভবত আমার বয়সীই, এই ধরনের কাজ করছে, এত ট্রেনিং করছে ও সাফল্য পাচ্ছে, আমি হয়তো তাঁর অর্ধেকও করছি না। তাঁর পর্যায়ে যেতে না পারি, অন্তত তাঁর পথ তো অনুসরণ করার চেষ্টা করতে পারি। হয়তো তার ৫০ ভাগ, ৩০-৪০ বা ৬০ ভাগ, যেটাই হোক হতে পারব।’

তামিমের ভাষ্যমতে, ‘ভারতীয় একজন ধারাভাষ্যকার ও সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটারের সঙ্গে কথা বলছি বলেই নয়, আমাকে এটা বলতেই হবে। ভারত যেহেতু আমাদের প্রতিবেশী দেশ, আমরা অনেক কিছুই অনুসরণ করি। ভারতীয় দল যখন ফিটনেসের দিক থেকে বদলাতে শুরু করল, সেটিই বাংলাদেশকে সবচেয়ে বেশি প্রভাবিত করেছে।

ফিটনেসের প্রতি গুরুত্ব দেয়ার পর থেকে নিজের মধ্যে আমূল পরিবর্তন লক্ষ্য করতে পারেন তামিম। মাঞ্জরেকারের সঙ্গে আলাপকালে নিজেই জানালেন এমনটা। বলেন, ‘এখন যদি আপনি ২০১৫ সালের আমাকে দেখেন, সেখান থেকে আমার ওজন ৯ কেজি কমেছে। ওই সময়টায় ফিটনেস নিয়ে অনেক খাটতে শুরু করেছি আমি। কৃতিত্ব দিতে হবে আমাদের ট্রেনারকেও।’

বাংলা ইনসাইডার/এসএম