ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

টাইগার ক্রিকেটারদের শিক্ষাগত যোগ্যতা

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ৩০ জুলাই ২০২০ বৃহস্পতিবার, ০২:০৫ পিএম
টাইগার ক্রিকেটারদের শিক্ষাগত যোগ্যতা

২২ গজে তাঁরা একেকজন তারকা-মহাতারকা। নিজ নিজ যোগ্যতায় উঠেছেন উন্নতির শিখরে। মানুষ তাঁদের ব্যাটিং-বোলিং শৈলী দেখে উল্লাসে ফেটে পড়ে। তাঁদের অনেকেই অনেকদূর পর্যন্ত প্রাতিষ্ঠানিক পড়াশোনা করেছেন। কেউবা সেটাও নয়। তাতে কী এসে যায়? ঐ যে কথায় আছে না, ‘পূঁথিগত বিদ্যা আর পরহস্তে ধন...।’

পূঁথিগত বিদ্যা ছাড়াও দেশব্যাপী তাঁদের খ্যাতি। তবুও ভক্তদের তো নিশ্চয়ই জানতে ইচ্ছে করে প্রিয় ক্রিকেটার কোন পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন। তাহলে আসুন দেখে নেওয়া যাক টাইগার ক্রিকেটারের কার কতটুক শিক্ষাগত যোগ্যতা-

মুশফিকুর রহিম: ক্রিকেটের পাশাপাশি পড়াশোনাতেও ‘নাম্বার ওয়ান’ মুশফিকুর রহিম। বিকেএসপি থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হওয়ার পর ভর্তি হয়েছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগে। সেখানে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শেষে এখন এমফিল করছেন দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ক্রিকেট ইতিহাস নিয়ে। স্বপ্ন দেখছেন এমবিএ বা পিএইচডি করার।

আরেকটি বড় ব্যাপার হচ্ছে, মুশফিক খেলোয়াড়ি কোটায় বিশ্ববিদ্যালয়ে সুযোগ পাননি। বরং নিজ যোগ্যতায় সরাসরি সেখানে পড়ার সুযোগ পেয়েছেন। তাঁর শিক্ষকদের মতে, মুশফিক বেশ মনোযোগী ছাত্র। তিনি খেলার ফাঁকে সময় পেলেই বই-খাতা নিয়ে পড়তে বসে যান। এমনকি পড়াশোনা চলাকালীন সময়ে ক্রিকেট দলের হয়ে বিদেশ সফরেও সঙ্গে বই নিয়ে যেতেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান।

মাশরাফি মুর্তাজা: বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তাজার ক্রিকেটীয় মেধা কেমন তা আমাদের সবারই জানা। ক্রিকেট মাঠে অনেক চতুরতার পরিচয় দিয়ে চলেছেন তিনি। তবে মাঠের সাথে তার পড়াশুরনার মেধাও ছিল দারুণ। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দর্শন বিদ্যায় ব্যাচেলর ডিগ্রী করেছন তিনি।

মুস্তাফিজুর রহমান: কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান যে বল হাতে কতটা ভয়ঙ্কর তা কারোই অজানা নয়। একের পর এক কাটার, স্লোয়ার, ইয়র্কারে ব্যাটসম্যানদের বোকা বানানোই তাঁর কাজ। কিন্তু পড়াশুনায় ছিলেন তিনি একেবারে নিষ্প্রভ। ছোটবেলা থেকে তার ধ্যান-জ্ঞ্যান জুড়ে ছিল শুধুই ক্রিকেট। পঞ্চম শেণী পর্যন্ত পড়ার পরে আর বিদ্যালয়মুখী হননি কাটার মাস্টার।

রুবেল হোসেন: বল হাতে দুর্দান্ত রুবেল হোসেনও ছিলেন কাটার মাস্টারের মতই। ছোট বেলা থেকে তারও ধ্যান-জ্ঞ্যান জুড়ে ছিল ক্রিকেট। পড়াশুনায় মন ছিলনা তাঁর কখনই। তিনিও পঞ্চম শ্রেণীর পরে আর স্কুলে যাননি।

সাব্বির রহমান: বাংলাদেশ দলের ব্যাড বয় হিসেবে পরিচিত সাব্বিরের ও পড়াশুনায় মন ছিলনা তেমন। নিজের এস.এস.সি পরীক্ষা চলাকালীন ঢাকায় খেলার জন্য পরীক্ষা বাড়ি থেকে পালিয়ে চলে এসেছিলেন তিনি। যার জন্য তাকে পরীক্ষা দিতে হয়েছিল পরের বছর। তবে খেলার সাথে পড়াশুনাটাকেও চালিয়ে গিয়েছিলেন পরিবারের চাপে আমেরিকার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে বিবিএ ডিগ্রী নেন তিনি।

শাহরিয়ার নাফিস: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিবিএ তে ব্যাচেলর ডিগ্রী নিয়েছেন একসময়ের দেশ সেরা এই ওপেনার। পড়াশুনায় ছিলেন যথেষ্ট মেধাবী ছিলেন নাফিস। সেন্ট যোসেফ স্কুল আর নটর ডেম কলেজ থেকে মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক পেরিয়ে পড়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে।

সৌম্য সরকার: বাংলাদেশ দলের এই হার্ডহিটিং ওপেনার বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি) পড়াশুনা করছেন।

সাকিব আল হাসান: পড়াশুনায় তেমন মন ছিলনা বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের। কোচিং, স্কুল বাদ দিয়ে ক্রিকেট খেলে বেড়ানোই ছিল যার কাজ। তবে লেখাপড়াটা চালিয়ে গিয়েছেন তিনি। আমেরিকার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে ব্যাচেলর ডিগ্রী নিয়েছেন সাকিব।

তামিম ইকবাল: চট্টগ্রামের বিখ্যাত খান পরিবারের ছেলে তামিম ইকবাল খান। ছোট বেলা থেকেই পড়েছেন চট্টগ্রামের নামকরা ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে। তিনিও বিবিএ ডিগ্রী নিয়েছেন।

তাসকিন আহমেদ: আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে বিবিএ করছেন বাংলাদেশ দলের এই স্পিডস্টার তাসকিন আহমেদ।

ভিডিও দেখুন এখানে

বাংলা ইনসাইডার/এসএম