ঢাকা, বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

বিদায় ধোনি: রেখে যাওয়া ৬ রেকর্ড কে ভাঙবে?

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৫ আগস্ট ২০২০ শনিবার, ০৮:৫৫ পিএম
বিদায় ধোনি: রেখে যাওয়া ৬ রেকর্ড কে ভাঙবে?

দীর্ঘ ১৫ বছরেরও বেশি ক্রিকেট ক্যারিয়ারের ইতি টানলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। কিন্তু তার নামের পাশে লেখা আছে অজস্র রেকর্ড। তবে জানেন কি, ধোনি এমনই কিছু রেকর্ড করে বসে আছেন, যা ভাঙা এক কথা স্বপ্নাতীত।

​ODI-তে ৬ নম্বরে ব্যাট করে সবথেকে বেশি রান -

ক্রিকেটপ্রেমী থেকে শুরু করে ধোনির সতীর্থরা তো বটেনই, এমনকী অনেক সিনিয়রও বলেছেন যে, ধোনি আরও আগে অর্থাৎ ৪ বা ৩ নম্বরে ব্যাট করতে এলে অনেক ব্যাটসম্যানের রেকর্ড এতদিনে ছাপিয়ে যেতেন। কিন্তু ধোনির কাছে দল আগে। ৩, ৪, ৫ নম্বরেও বহুবারই তিনি ব্যাট করেছেন। তবে তাঁর সবথেকে পছন্দের ব্যাটিং পজিশন ৬। এই ৬ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ধোনি এখনও অবধি ১২৯টি ইনিংস খেলেছেন। ৪৭.৩২ গড়ে রান করেছেন ৪১৬২। ৩০০৬ রান নিয়ে তাঁর ঠিক পরেই রয়েছেন অজিদের সাবেক ব্যাটসম্যান মাইকেল বেভান। ইংল্যান্ডের জোস বাটলার ৬ নম্বরে ব্যাট করে ১৯৭৭ রান করেছেন। বাটলার রয়েছেন তিন নম্বরে।

​সবথেকে বেশি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অধিনায়ক -

এখনও অবধি ভারত যতগুলি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলেছে, তার সবগুলিরই অধিনায়কত্ব করেছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। তার মধ্যে বিশেষ ভাবে উল্লেখ্য ২০০৭ সালে প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়, ২০১৪ সালে ফাইনাল এবং ২০১৬ সালে সেমিফাইনাল অবধি। এর মধ্যে সবথেকে অবাক করার মতো কাণ্ড ঘটেছিল ২০১৪ সালে। কোনও ম্যাচ না হেরে সোজা ফাইনালে পৌঁছেছিল ধোনির ভারত। কিন্তু ফাইনালেই শেষমেশ ভারতকে হারতে হয়েছিল ২০১৪-র টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। ২০২০ সালেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথম বার ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন বিরাট কোহলি।

​সবচাইতে বেশি আইপিএল ফাইনালের অধিনায়ক -

এখনও অবধি ১০ বার আইপিএল-এ চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে অধিনায়কত্ব করেছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। আর তার মধ্যে ৮ বারই চেন্নাই সুপার কিংস ফাইনালে উঠেছে। আইপিএল ইতিহাসে যা এক কথায় রেকর্ড। আজ অবধি কোনও অধিনায়ক টানা দশ বার আইপিএল-এ অধিনায়কত্ব তো করেনইনি, ফাইনালে ওঠা তো বহু দূরের কথা! অন্য দিকে যে ৮টি ফাইনাল চেন্নাই সুপার কিংস খেলেছে, তার মধ্যে ৩ বার তারা জয়ের মুখ দেখেছে আর ৫ বার বিপক্ষ দলের কাছে বশ্যতা স্বীকার করতে হয়েছে।

​উইকেটরক্ষক হিসেবে দ্রুততম স্টাম্পিংয়ের রেকর্ড -

এম এস ধোনিই বিশ্বের একমাত্র ক্রিকেটার যাঁর গ্লাভস, বলের গতির থেকেও দ্রুত বল ধরতে সক্ষম। বিশ্বসেরা উইকেটকিপার যাঁরা রয়েছেন অর্থাৎ অ্যাডাম গিলক্রিস্ট, কুমার সাঙ্গাকারা-- প্রত্যেকে এই চরম সত্যটি মেনে নিয়েছেন অকপটেই। ২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে একটি ম্যাচে রবীন্দ্র জাদেজা বল করেছিলেন। অজিদের ব্যাটসম্যান জর্জ বেইলিকে সে দিন মাত্র ০.০৮ সেকেন্ডের মাথায় স্টাম্পিংয়ে আউট করেছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। আজ অবধি ক্রিকেট ইতিহাসে এত দ্রুততার সঙ্গে কোনও স্টাম্পিং হয়নি।

​সবথেকে বেশি স্টাম্পিংয়ে আউট করার রেকর্ড -

বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী ধোনি। ক্রিকেটমহল যখন তাঁর অধিনায়কত্বের প্রশংসা করে, তখন ঢাকা পড়ে যায় তাঁর ব্যাটিং। আবার কেউ যখন তাঁর ব্যাটিং নিয়ে কথা বলেন, তখন আবার উহ্য থেকে যায় মহেন্দ্র সিং ধোনির উইকেটকিপিং। বিশেষ করে স্পিনারদের বোলিংয়ের সময়ে তাঁর উইকেটকিপিং এক কথায় অসাধারণ। স্টাম্পিং তাঁর হাত থেকে কখনও ফস্কায় না। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ারে ১৯৫ বার স্টাম্পিংয়ে আউট করার নজির দেখিয়েছেন ধোনি। আজ অবধি এই রেকর্ডের নিরিখে ধোনির ধারেকাছে কেউ নেই।

​অধিনায়ক হিসেবে সর্বাধিক আন্তর্জাতিক ম্যাচ -

বিশ্ব ক্রিকেট ইতিহাসে ধোনিই এমন একজন অধিনায়ক যাঁর নামের পাশে রয়েছে তিন-তিনটি আইসিসি ট্রফি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, ওডিআই বিশ্বকাপ এবং চ্যাম্পিয়নস ট্রফি। ১০ বছরের দীর্ঘ অধিনায়ক জীবনে ধোনি ভারতের হয়ে ৩৩২টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন। তার মধ্যে রয়েছে টি-টোয়েন্টি, একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ এবং টেস্ট ক্রিকেট। ৩৩২টি ম্যাচের মধ্যে অধিনায়ক ধোনি ৫৩.৬১ গড়ে জিতেছেন ১৭৮টি ম্যাচে।