ঢাকা, বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

ফুটবলে ব্যর্থতার কারণ

জিনিয়া শেখ
প্রকাশিত: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ মঙ্গলবার, ০৯:০৫ এএম
ফুটবলে ব্যর্থতার কারণ

দেশে ক্রিকেটের জনপ্রিয়তা কখনোই ফুটবলকে ছাপিয়ে যেতে পারে না। ফুটবলের বেলায় এলেই আমরা ফুটবলারদের সমস্যার ভাণ্ডার খুলে বসি। তবে কেন তাদের এই সমস্যা এবং সমস্যা থেকে উত্তরণের পথ নিয়ে ভেবে দেখা হয় কি না তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়।      

ক্রিকেটে মাস শেষে বিসিবি থেকে একটি নির্ধারিত পারিশ্রমিক দেয়া হয় ক্রিকেটারদের। কিন্তু ফুটবলের ক্ষেত্রে খেলার জন্য বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফ) থেকে দেয়া হয় না কোনো পারিশ্রমিক।

চলতি বছর মার্চে, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড ১৭ জন ক্রিকেটারকে বেতনভুক্ত খেলোয়াড় হিসেবে চুক্তিবদ্ধ করে। যেখানে সর্বোচ্চ বেতনের স্তরে থাকছেন মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও সৌম্য সরকার।

এছাড়া ক্রিকেটে খেলোয়াড়দের শ্রেণি অনুযায়ী মাসিক বেতন দেয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। পাঁচটি ক্যাটাগরিতে (এ+, এ, বি, সি ও ডি) নিয়মিত বেতন পান খেলোয়াড়রা। খেলোয়াড়দের মাসিক বেতন সর্বোচ্চ ৪ লাখ থেকে সর্বনিম্ন এক লাখ টাকা।  

মূল বিষয়টি হচ্ছে মাস শেষে একটা আর্থিক যোগান মিলছে ক্রিকেটারদের। কিন্তু জাতীয় ফুটবলারদের এমন কোনো বেতন কাঠামোই নেই। খেলোয়াড়রা বিনা পারিশ্রমিকে খেলেত নামেন প্রায়ই সব ম্যাচে। কিন্তু বোর্ডে কোচ থেকে কর্মকর্তা সবারই নির্দিষ্ট বেতন কাঠামো আছে।

যে দেশে ফুটবলে জাতীয় খেলোয়াড়দের কোনো পারিশ্রমিক নেই, সেই দেশের ফুটবলের করুণ পরিস্থিতির দায়ভার শুধুই তাদের খারাপ খেলার ওপর বর্তায় না। ফুটবলে ফিটনেস একটি বড় বিষয়। খেলোয়াড়দের শারীরিক সুস্থতা থাকা খুবই জরুরি। খেলোয়াড়ের শরীরের সুষ্ঠু গঠনের ক্ষেত্রে পরিশ্রমের পাশাপাশি প্রয়োজন অর্থের। বাইরের দেশের খেলোয়াড়রা একটি নির্দিষ্ট অংকের টাকা খরচ করে শুধু তাদের শারীরিক গঠন ঠিক করে। যে দেশের খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিকই নেই, সেই দেশের খেলোয়াড়দের কয়জনই পারবে ব্যক্তিগত খরচে তাদের শারীরিক অবকাঠামো তৈরিতে ব্যয় করতে।

খেলোয়াড়দের একমাত্র আয়ের উৎস ক্লাব। নিম্ন স্তরের ফুটবলাররা তাই ইনজুরির কথা মাথায় না রেখে পেটের দায়ে দেশের বিভিন্ন পর্যায়ের ক্লাবে খেলে। তবে ক্লাবের ম্যাচগুলোও পর্যাপ্ত নয়। পুরো বছরে হাতে গোনা বেশি হলে পাঁচটা ম্যাচ হয় বাংলাদেশের। এছাড়া ক্লাবে ম্যাচের আগে ক্যাম্পে প্রণোদনার জন্য দিন চলার মতো পারিশ্রমিক দেয় ফেডারেশন। যা পরিমাণে খুবই কম।

বাফুফের ফুটবলারদের জন্য বেতন কাঠামো না থাকায় দেশের ফুটবলারদের আর্থিক নিরাপত্তা প্রশ্নের সম্মুখীন। একই ভাবে তাদের ভালো না খেলার উত্তরটি কিছুটা হয়তো মিলে।