ঢাকা, বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১, ৭ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

ইংলিশ ফুটবল বন্ধের হুমকি

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩ জানুয়ারি ২০২১ বুধবার, ০৫:২৬ পিএম
ইংলিশ ফুটবল বন্ধের হুমকি

ক্লাবগুলো যদি নিয়মিত করোনাভাইরাস সংক্রান্ত আইন ভঙ্গ করে তাহলে ফুটবল বন্ধ করে দিতে বাধ্য হবে কর্তৃপক্ষ -এমন হুমকি দিয়েছেন ইংলিশ ফুটবল লিগ প্রধান ট্রেভর বির্চ। ইংল্যান্ড জুড়ে করোনার দ্বিতীয় প্রবাহ শুরু হওয়ার পর নতুন করে ছয় সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে, যা এখনো চলছে।

লকডাউনের মধ্যেই এলিট স্পোর্টসগুলো চালিয়ে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছে বৃটিশ সরকার। তারপরও মাঠ এবং মাঠের বাইরে বেশ কয়েকটি ঘটনায় ইংলিশ ফুটবলে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এর অর্থ হচ্ছে পেশাদার খেলাগুলোতে সরকারের কড়া নজড়দারি শুরু হয়েছে।

ক্লাবগুলোতে পাঠানো এক পত্রে বির্চ সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, ‘মহামারীর মধ্যে ফুটবল কিছুটা হলেও মানুষকে বিনোদন দিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে প্রোটোকল ভঙ্গের ঘটনা যদি ঘটতেই থাকে তবে বিকল্প চিন্তা করতে বাধ্য হবে লিগ কর্তৃপক্ষ।’

ইতোমধ্যেই ইএফএল ক্লাবগুলোতে বেশ কয়েকটি প্রোটোকল ভঙ্গের ঘটনা ঘটে গেছে। বড় ক্লাবগুলো থেকে কোনভাবেই কাম্য নয়। দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ টায়ার ছাড়াও এফএ কাপের তৃতীয় রাউন্ডেও এই ধরনের আইন ভঙ্গের ঘটনা ঘটেছে।

ফুলহ্যামের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নশীপ দল কিউপিআর স্বীকার করেছে তাদের কোনভাবেই সাবেক খেলোয়াড় এবারেচি এজেকে খেলতে দেওয়া উচিত হয়নি। প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব লিডসকে হারানোর পর চতুর্থ টায়ারের দল ক্রলি সামাজিক দূরত্বের আইন ভঙ্গ করে জয় উদযাপন করেছে।

বির্চ জানিয়েছে ইএফএল ক্লাবগুলো যদি আইন ভঙ্গের ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে না পারে তবে লিগ তার নিজস্ব শাস্তি প্রয়োগ করবে। চলতি সপ্তাহ থেকে ইএফএল ক্লাবের সকল খেলোয়াড় ও স্টাফের সপ্তাহে দুইবার করে করোনা পরীক্ষা করা হবে।

এদিকে মঙ্গলবার ইএফএল ঘোষণা দিয়েছে ব্রেন্টফোর্ডের পরবর্তী দুটি চ্যাম্পিয়নশীপ ম্যাচ সাম্প্রতিক করোনা পরীক্ষার ফলাফলের উপর ভিত্তি করে বাতিল করা হলো।

প্রিমিয়ার লিগেও ম্যাচ বাতিলের সিদ্ধান্তে বেশ বিপাকে পড়তে হচ্ছে কর্তৃপক্ষকে। বিশেষ করে বড়দিন ও নতুন বছরের সময়ে বেশ কিছু পার্টিতে যোগ দিয়ে সমালোচিত হয়েছেন প্রিমিয়ার লিগের বড় ক্লাবের কয়েকজন তারকা খেলোয়াড়।