ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ৩ আষাঢ় ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

নয় বছর ধরে ধরা ছোঁয়ার বাইরে বায়ার্ন

মহিউদ্দিন সোয়াত
প্রকাশিত: ১০ মে ২০২১ সোমবার, ০৯:০৪ এএম
নয় বছর ধরে ধরা ছোঁয়ার বাইরে বায়ার্ন

২০১১-১২ মৌসুম কারও মনে আছে? অনেকে ভুলে যেতে পারেন আবার অনেকের মনে থাকার কথা। মনে থাকার কথা বলার কারণ সেই মৌসুমেই ডর্টমুন্ড জিতেছিল বুন্দেসলিগার শিরোপা। এরপর থেকে শুরু হয় বায়ার্নের রাজত্ব। আর গতকাল নিশ্চিত হল বায়ার্নের টানা নবম আর নিজেদের ৩১ তম শিরোপার। আর আগেই নির্ধারিত ছিল বায়ার্ন কোচ হান্সি ফ্লিক এই মৌসুম পর বায়ার্ন ছাড়ছেন। এর চেয়ে অসাধারণ বিদায় উপহার আর কীই-বা হতে পারত হান্সি ফ্লিকের জন্য? চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বাদ পড়ার পর বলেছিলেন আর বায়ার্ন মিউনিখের দায়িত্বে থাকতে চান না। এ মৌসুমে ঘরোয়া কাপ জেতা হচ্ছে না, চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকেও বাদ। ফলে শুধু লিগ জেতাটাই সম্ভব ছিল তাঁর। দলকে চ্যাম্পিয়ন করেই দায়িত্ব ছাড়ছেন এই কোচ। সেটাও কয়েক ম্যাচ হাতে রেখেই।

ম্যাচ শুরু হওয়ার আগেই বায়ার্ন সুখবরটা পেয়ে গিয়েছিল। দুইয়ে থাকা লাইপজিগ নিজেদের মাঠে হেরে গিয়েছিল বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের কাছে। তাই মনশেনগ্লাডবাখের বিপক্ষে ম্যাচের ফলে কিছু যেত–আসত না দলটির। কিন্তু এমন উপলক্ষ পেয়ে রাতটা রাঙালেন রবার্ট লেভানডফস্কি। তাঁর হ্যাটট্রিকে ৬-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে বায়ার্ন মিউনিখ।

বায়ার্নের শিরোপা উৎসবটা হতে পারত গত ২৪ এপ্রিল। কিন্তু সেদিন মাইনিৎসের বিপক্ষে হারটা শিরোপা উৎসবই শুধু দেরি করিয়েছে তাদের। পয়েন্ট তালিকার নিচের দিকে থাকা দলটি সেদিন ২-১ গোলে জিতে চমক দেখিয়েছিল। সেদিনের হার তাদের উৎসব করতে দেয়নি। আজ জিতলেই শিরোপা নিশ্চিত হতো তাদের। আজ মাঠে নামার আগেই বায়ার্ন জিতে গেল রেকর্ড টানা নবম বুন্দেসলিগা। বুন্দেসলিগায় আজ বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ৩-২ গোলে হারিয়েছে লাইপজিগকে। ডর্টমুন্ডের জয়ে শিরোপা নিশ্চিত হয় বায়ার্নের। ৩২ ম্যাচে ৬৪ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে লাইপজিগ। আর ৩১ ম্যাচে ৭১ পয়েন্ট নিয়ে চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন।

১৯৬৩ সালে বুন্দেসলিগা শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত বায়ার্ন ৩১ বার শিরোপা জিতল। মূলত বুন্দেসলিগার আধিপত্য বায়ার্ন ধরে রেখেছে সেই প্রথম থেকেই। বুন্দেসলিগায় ৩১ বার শিরোপা হাতে তোলার পাশাপাশি বায়ার্ন রানার্স-আপ হয়েছেন ১০ বার। বায়ার্নের রানার-আপের সমানও কোন দল বুন্দেসলিগা শিরোপা হাতে তুলতে পারেনি। নুরেমবার্গ ৯ বার শিরোপা তুলেছে। আর বায়ার্নের সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী ক্লাব ডর্টমুন্ড শিরোপা তাদের ঘরে তুলেছে ৮ বার। এ থেকেই বোঝা যায় বুন্দেসলিগায় বায়ার্নের আধিপত্য। ২০০০ সালের পর এটা বায়ার্নের ১৬তম শিরোপা। এরই মধ্যে থমাস মুলার ও ডেভিড আলাবা একটা রেকর্ডও গড়ে ফেলেছেন। দুজনই বায়ার্নের হয়ে ১০টি শিরোপা জিতলেন। যদিও ফ্লিকের মতো এটাই বায়ার্নের হয়ে আলাবার শেষ মৌসুম।