ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর ২০১৭ , ৪ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

তাঁরা তারকা, কিন্তু খেলছেন না বিশ্বকাপ

নাহিদ ইসলাম
প্রকাশিত: ১১ অক্টোবর ২০১৭ বুধবার, ০৭:০৬ পিএম
তাঁরা তারকা, কিন্তু খেলছেন না বিশ্বকাপ

বিশ্বকাপ ফুটবল,দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’। এখানে খেলে থাকেন,  বিশ্ব ফুটবলের সেরা খেলোয়াড়রা।  কিন্তু অনেক সেরা খেলোয়াড়েরই ভাগ্য হয়না বিশ্বকাপের মঞ্চে নিজের দেশকে উপস্থাপন করার। এই যেমন ২০১৪ সালের বিশ্বকাপে রোনালদোর অসাধারণ পারফরমেন্সে ইব্রাহিমোভিচের সুইডেনকে ৩-২ গোলে হারিয়ে বিসসয়াপে জায়গা করে নিয়েছিল।

২০১৮ সালের বিশ্বকাপ থেকেও বাদ পড়েছে বড় কয়েকটি দল। যেখানে আছেন বিশ্বসেরা কয়েকজন খেলোয়াড়, যারা বিশ্বকাপ খেলতে পারছেন না সামনের বছর। আসুন দেখে নেয়া যাক কারা কারা থাকছেন না সামনের বছর রাশিয়ায় অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপে...

চিলি
সানচেজ-ভিদাল-গ্যারি মেডেল
ব্রাজিলের সঙ্গে বাঁচা-মরার লড়াইয়ে উত্তীর্ণ হতে পারেনি চিলি। তারা ব্রাজিলের কাছে হেরেছে ৩-০ গোলের ব্যবধানে। এর মধ্যে দিয়েই শেষ হয়ে যায় চিলির বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন। ব্রাজিলের সঙ্গে হারার ফলে তারা তৃতীয় অবস্থান থেকে ষষ্ঠ স্থানে চলে যায়।

নেদারল্যান্ডস
রোবেন-স্নাইডার-ভিরজিল ভ্যান ডাইক
সুইডেনের সঙ্গে ২-০ গোলে জিতেও বিশ্বকাপে যাওয়া হল না নেদারল্যান্ডের। কারণ সমীকরণ এমন হয়ে গিয়েছিলো যে তাদের জিততে হত ৭-০ গোলেরব্যবধানে। আর এটাই ছিল রাইট উইঙ্গার অ্যারিয়েন রোবেনের জাতীয় দলের হয়ে শেষ ম্যাচ। তিনি অবসর নিয়েছেন জাতীয় দল থেকে। ডিফেন্ডার ভ্যানডাইক ও এটাকিং মিডফিল্ডার স্নাইডারেরও বিশ্বকাপ খেলা হচ্ছে না রাশিয়ায়।

ওয়েলস
গ্যারেথ বেল-অ্যারন রামসে
নিজেদের মাঠে আয়ারল্যান্ডের কাছে ১-০ গোলে হেরে বিশ্বকাপ-স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল বেল-রামসেদের। বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলতে এ ম্যাচে জয়ের কোনবিকল্প ছিল না দুই দলের। ঘরের মাঠে শুরু থেকেই আয়ারল্যান্ড শিবিরে আক্রমণ করে খেলতে থাকে স্বাগতিক ওয়েলস। পুরো ম্যাচে প্রায় ৭২ শতাংশ বলনিজেদের নিয়ন্ত্রণে রেখে গোলমুখে ১৬টি শট নিয়েও গোলের দেখা পায়নি দলটি।

ইকুয়েডর
আন্টোনিও ভ্যালেন্সিয়া
ইকুয়েডরের অনেক আগেই শেষ হয়ে গেছে বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন। তারা ল্যাটিন আমেরিকা থেকে অষ্টম অবস্থানে থেকে বিশ্বকাপে যাওয়ার মিশন শেষকরেছে। তাই বিশ্বকাপে আর খেলা হচ্ছে না ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের রাইট উইংব্যাক ভ্যালেন্সিইয়া।

 

বাংলা ইনসাইডার/এনআই/ডিআর/জেডএ