ইনসাইড গ্রাউন্ড

প্রতিরোধ গড়া উইন্ডিজকে বিশাল ব্যবধানে হারাল শ্রীলঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ০৩:২০ পিএম, ২৫ নভেম্বর, ২০২১


Thumbnail

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১৮৭ রানের ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজে এগিয়ে গেল শ্রীলঙ্কা। লঙ্কান স্পিন আক্রমণের সামনে মুখ থুবড়ে পড়েছেন ক্যারিবীয় ব্যাটাররা।

গল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে শ্রীলঙ্কা সংগ্রহ করে ৩৮৬ রান। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৪৭ রান করেন অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে। আরেক ওপেনার পাথুম নিশাঙ্কা করেন ৫৬ রান। তাদের উদ্বোধনী জুটিতে আসে ১৩৯ রান। প্রথম ইনিংসে ওশাদা ফার্নান্দো ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস ৩ রান করে সাজঘরে ফেরেন। ধনঞ্জয়া ডি সিলভার ব্যাট থেকে আসে ৬১ রান। উইকেটরক্ষক দীনেশ চান্দিমাল ৪৫ রান করে বিদায় নেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে রস্টন চেইজ ৫ উইকেট এবং জোমেল ওয়ারিক্যান ৩টি ও শ্যানন গ্যাব্রিয়েল ২টি উইকেট শিকার করেন।

জবাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় ২৩০ রানে। দ্বিতীয় ইনিংসে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৫ রান করেন কাইল মেয়ার্স। অধিনায়ক ক্রেইগ ব্যাথওয়েটের ব্যাট থেকে আসে ৪১ রান। শ্রীলঙ্কার পক্ষে প্রবীণ জয়বিক্রমে চারটি এবং রমেশ তিনটি উইকেট শিকার করেন। শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় উইকেটে ৪ উইকেটে ১৯১ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে। তৃতীয় উইকেটে ১২৩ রানের জুটি গড়েন অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে ও সাবেক অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। করুনারত্নে ১০৪ বলে ৮৩ রান করেন। ৮৪ বলে ৬৯ রানে অপরাজিত থাকেন ম্যাথিউস। তার ইনিংসটি সাজানো ছিল ছয়টি চার ও দুইটি ছক্কায়। ক্যারিবিয়ানদের রাহকিম কর্নওয়াল ও জোমেল ওয়ারিক্যান দুইটি করে উইকেট নেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ৩৪৮ রান।

বিশাল লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে মহাবিপর্যয়ে পড়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ১৮ রানের মধ্যেই তারা হারিয়ে ফেলে ৬টি উইকেট। সবাই এক অঙ্কের ঘরে সাজঘরে ফেরেন। ক্যারিবিয়ান টপ ও মিডল অর্ডারে এই ধ্বস নামান রমেশ ও লাসিথ। এই ধাক্কা সামাল দেন এনক্রুমাহ বনার ও জশুয়া ডি সিলভা। ১৮ রানে ৬ উইকেট তুলে নেওয়ার পর যতটা সহজে শ্রীলঙ্কার জেতার চিন্তা করেছিল, ততটা সহজ হতে দেননি জশুয়া ডা সিলভা ও এনক্রুমাহ বোনার। ৩৪৮ রানের লক্ষ্যে শেষ দিন ৪ উইকেট হাতে ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের। স্বাভাবিকভাবে ড্র করার চিন্তাই ছিল তাদের। সেজন্য সর্বোচ্চ চেষ্টাও করেছিল। কিন্তু হলো না। ১৮৭ রানে গলে টেস্ট জিতল শ্রীলঙ্কা।

চতুর্থ দিনের খেলা ক্যারিবিয়ানরা শেষ করেছিল ৬ উইকেটে ৫২ রানে। বোনার ১৮ ও ডা সিলভা ১৫ রানে অপরাজিত থেকে বৃহস্পতিবার সকাল শুরু করেন। তারা হারার আগে হার মানেননি। সতর্ক ব্যাটিংয়ে দুজনেই তুলে নেন হাফ সেঞ্চুরি। ডা সিলভা লাঞ্চের আগে ১২১ বলে ৫০ রান করেন। সপ্তম উইকেটের এই জুটি একশ ছুঁতেই ভেঙে যায়। ২১৮ বলে জুটির সেঞ্চুরি হয়। ডা সিলভাকে ১২৯ বলে ৫৪ রানে আউট করে ব্রেকথ্রু আনেন লাসিথ এম্বুলদেনিয়া।

দ্বিতীয় সেশনে রাকিম কর্নওয়াল (১৩), জোমেল ওয়ারিকান (১) ও শ্যানন গ্যাব্রিয়েল (০) প্রতিরোধ গড়তে পারেননি বোনারকে নিয়ে। ১৬০ রানে গুটিয়ে যায় সফরকারীরা। ১৮১ বলে হাফ সেঞ্চুরি করা বোনার অপরাজিত ছিলেন ৬৮ রানে, ২২০ বলের ইনিংসে ছিল ৭টি চার।

এম্বুলদেনিয়া আরো দুটি উইকেট নিয়ে ক্যারিয়ারে চতুর্থবার এক ইনিংসে পাঁচ উইকেট নেন। বাঁহাতি স্পিনার ২৯ ওভারে ৪৬ রান দিয়ে নেন ৫ উইকেট, মেডেন ১২ ওভার। এছাড়া রমেশ মেন্ডিস পান ৪ উইকেট। দুই ম্যাচের সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে থেকে আগামী ২৯ নভেম্বর গলেতে শেষ টেস্ট খেলবে শ্রীলঙ্কা।

 



মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

গ্রুপ পর্ব থেকে ছিটকে গেল মোহামেডান

প্রকাশ: ০৮:৪২ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২১


Thumbnail

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ড্রয়ে মোহামেডানের জন্য সমীকরণটা হয়ে গিয়েছিল আরও কঠিন। সাইফ স্পোর্টিংয়ের বিপক্ষে যোগ করা সময়ের গোলে তা মিলিয়ে নেওয়া কিছুটা ইঙ্গিত অবশ্য দিয়েছিল শন লেনের দল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত শঙ্কাই হলো সত্যি। স্বাধীনতা কাপের গ্রুপ পর্ব থেকে এবারও ছিটকে গেল ২০১৪ সালে সবশেষ এই প্রতিযোগিতার শিরোপা জেতা দলটি।

কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে সোমবার ‘সি’ গ্রুপে সাইফ স্পোর্টিংয়ের সঙ্গে ১-১ ড্র করে মোহামেডান। কোয়ার্টার-ফাইনালে উঠতে জয় দরকার ছিল তাদের।

তিন ম্যাচে দুই জয় ও এক ড্রয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ সেরা হয়ে কোয়ার্টার-ফাইনালে উঠেছে সাইফ স্পোর্টিং। মোহামেডান ও সেনাবাহিনীর পয়েন্ট ৪ করে, কিন্তু মুখোমুখি লড়াইয়ের হিসাবে ছিটকে গেছে লেনের দল।

দিনের প্রথম ম্যাচে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সঙ্গে ১-১ ড্র করে কোয়ার্টার-ফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখে ‘অপেশাদার দল’ সেনাবাহিনী। ওই ম্যাচের ফলেই কোয়ার্টার-ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যায় সাইফ স্পোর্টিংয়ে।

মোহামেডান   বিপিএল ফুটবল   সাইফ  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

কোন পথে ঢাকা টেস্ট?

প্রকাশ: ০৮:১০ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২১


Thumbnail

ঢাকা টেস্টের প্রথম দিনে সমর্থকরা দুই দলের ক্রিকেট উপভোগ করতে পারলেও দ্বিতীয় আর তৃতীয় দিন যেন একক আধিপত্য বিস্তার করে শীতের বৃষ্টি। দ্বিতীয় দিনে বল মাঠে গড়াতে পারলেও আজ  (৬ ডিসেম্বর) এক বলও মাঠেই গড়ায়নি। ঢাকা টেস্টের তিন দিন শেষ হয়ে গেলেও ব্যাটে বলের লড়াই হয়েছে মাত্র ৬৩.২ ওভার। সবার মনে এখন একটাই প্রশ্ন, কোন পথে যাচ্ছে ঢাকা টেস্ট? শেষ দুই দিনে কোন চমক অপেক্ষা করছে কি? 

টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা পাকিস্তান এখন পর্যন্ত ২ উইকেটে ১৮৮ রান তুলেছে। পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম আর আজহার আলীর অবিচ্ছিন্ন তৃতীয় উইকেট জুটিতে এসেছে ১১৮* রান। দুজনেই ফিফটি তুলে নিয়েছেন। বাবর আজম তো ৭১* রান করে তিন অংকের কাছাকাছি।প্রথম দিনে ২৫ ওভারের মধ্যেই দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানের উইকেট নিয়েছেন স্পিনার তাইজুল ইসলাম। সাকিবসহ আর কোন বোলার উইকেট পাননি।

কাল চতুর্থ দিনে খেলা মাঠে গড়ালেও পাকিস্তান যতটা সময় পারে ব্যাট করবে। চতুর্থ দিনে পাকিস্তানিদের অল্প রানে অল-আউট করে দেবে বাংলাদেশের বোলাররা- এমন স্বপ্ন দেখা যেতেই পারে। পরবর্তী দুই দিনের ৬টি সেশন যদি খেলা হয়, তাহলেও চার ইনিংস শেষ করা কঠিন হবে। সুতরাং, ঢাকা টেস্টের ভাগ্যে ড্র লেখা হয়ে যাচ্ছে। ক্রিকেটপ্রেমীদের জন্য সুখবর হলো, আগামীকাল মঙ্গলবার বৃষ্টি থেমে রোদ ওঠার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। টেস্টের ভাগ্যে যাই থাক, ক্রিকেটপ্রেমীরা খেলা উপভোগ করতে পারবেন।

বাংলাদেশ   পাকিস্তান   ঢাকা টেস্ট  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

এলপিএলে আল আমিনের দুই উইকেট

প্রকাশ: ০৬:৫০ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২১


Thumbnail

রোববার শুরু হয়েছে শ্রীলঙ্কার ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ (এলপিএল)। টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় দিন মাঠে নেমেছে ক্যান্ডি ওয়ারিয়র্স ও ডাম্বুলা গ্ল্যাডিয়েটরস। যেখানে ক্যান্ডির হয়ে খেলছেন বাংলাদেশ দলের পেসার আল আমিন হোসেন।

ম্যাচটিতে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৯০ রান করেছে ডাম্বুলা। ক্যান্ডির হয়ে দুইটি উইকেট শিকার করলেও নিজের চার ওভারের স্পেলে ৩৬ রান খরচ করে ফেলেছেন আল আমিন। মূলত প্রথম ও শেষ ওভারটিই বেশি খারাপ হয়েছে তার।

ইনিংসের পঞ্চম ওভারে প্রথমবারের মতো আক্রমণে ডাকা হয় আল আমিনকে।  নিজের প্রথম ওভারেই মোট ১৪ রান দিয়ে বসেন তিনি।  দ্বিতীয়বার আক্রমণে এসে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ান আল আমিন। মাত্র দুই রান খরচ করে সাজঘরে পাঠিয়ে দেন ডাম্বুলার ইনিংসে ঝড় তোলা ফিল সল্টকে। পরে ডেথে আবার আনা হয় আল আমিনকে। ইনিংসের ১৮তম ওভারে দুর্দান্ত বৈচিত্রময় বোলিংয়ে মাত্র চার রান খরচায় তিনি তুলে নেন নুয়ানিদু ফার্নান্দোর উইকেট। সে তুলনায় শেষ ওভারটি ভালো যায়নি। ইনিংসের ২০তম ওভারে জোড়া ছক্কাসহ ১৬ রান খরচ করেন আল আমিন।

আল আমিন   বিসিবি   এলপিএল  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

জিম্বাবুয়ে ফেরত দুই নারী ক্রিকেটার কোভিড আক্রান্ত

প্রকাশ: ০৪:৫৭ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২১


Thumbnail

ওয়ানডে বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব শেষ না হতেই ঘোষণা আসে কোভিডের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ‘ওমিক্রন’ এর কারণে স্থগিত হয়েছে সব খেলা। তাতে অবশ্য কপাল খুলেছে বাংলাদেশ নারী জাতীয় ক্রিকেট দলের। র‍্যাংকিং অনুযায়ী বিশ্বকাপে খেলবে তারা।

তবে বাছাই পর্ব শেষে দেশে ফেরার পথে বেশ বিপাকে পড়তে হয় দলকে। প্রায় তিন দিন পর দেশে ফিরে রাজধানীর একটি হোটেলে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয় তাদের।

আজ সোমবার ছিল কোয়ারেন্টিনের শেষ দিন। এদিনই জানা গেল, নারী দলের দুই ক্রিকেটার কোভিড পজিটিভ হয়েছেন। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে বিষয়টি।

এদিকে প্রথমবারের মতো ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেলার যোগ্যতা অর্জন করায় সংবর্ধনা দেয়ার কথা ছিল দলকে। তবে সেটি বাতিল করা হয়েছে দুই ক্রিকেটারের কোভিড আক্রান্ত হওয়ায়। দুই সদস্যের কোভিড আক্রান্তে গোটা দলকে আবারও কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে বলেও জানিয়েছে সূত্রটি।

বাংলাদেশ নারী দল   বিসিবি  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

বিপিএলে দল নিতে আগ্রহী ৮ ফ্র্যাঞ্চাইজি

প্রকাশ: ০৪:৩৯ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২১


Thumbnail

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) আগামী আসরে অংশ নিতে আগ্রহ দেখিয়েছে আট ফ্র্যাঞ্চাইজি। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এই ব্যাপারে নিশ্চিত করেছেন।

সোমবার (৬ ডিসেম্বর) গণমাধ্যমকে পাপন বলেন, 'বিপিএলে প্রথম যে জিনিস হয়েছে যে এবারের আসরে আটটা ফ্র্যাঞ্চাইজি আগ্রহ দেখিয়েছে, আমাকে আজকে যেটা জানানো হলো। মানে, আটটা ফ্র্যাঞ্চাইজি আগ্রহ দেখিয়েছে এখন আমরা দেখব, তাদের সম্পর্কে জানব। দিস ইজ নাম্বার ওয়ান মানে এখনো ফাইনাল হয়নি।'

এর আগে বিসিবি জানিয়েছিল, ছয় দল নিয়ে বিপিএল চালাতে আগ্রহী তারা। যদিও এই ব্যাপারে এখনো কিছু চূড়ান্ত করেনি দেশের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণের অভিভাবক সংস্থাটি। এখনো আলোচনার টেবিলেই রয়েছে বিপিএল।

সবকিছু ঠিকঠাক মতো এগিয়ে যেতে থাকলে ২০ জানুয়ারি থেকে ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে আয়োজন করা হবে এবারের বিপিএল। একইসময়ে অন্যান্য দেশে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ চলার কারণে অন্যান্য আসরের তুলনায় বিদেশি ক্রিকেটার কম দেখা যেতে পারে এবারের বিপিএলে।

বিপিএল   বিসিবি  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন