টেক ইনসাইড

টিকটককে টেক্কা দিতে নতুন ফিচার নিয়ে আসছে মেটা

প্রকাশ: ০১:১৮ পিএম, ১৮ জুন, ২০২২


Thumbnail টিকটককে টেক্কা দিতে নতুন ফিচার নিয়ে আসছে মেটা

বর্তমান সময়ে সব থেকে জনপ্রিয় ভিডিও প্ল্যাটফর্ম টিকটক। জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা এই সাইটটি বিশ্বের কয়েকটি দেশে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তারপরও মেটার মতো সংস্থাকে অস্বস্তিতে রেখে হু হু করে জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে ভারতে নিষিদ্ধ অ্যাপ টিকটকের।

সংবাদ মাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, বছরের প্রথম তিন মাসের হিসাবে জনপ্রিয়তায় শীর্ষেই রয়েছে টিকটক। স্বাভাবিক ভাবেই এই পরিসংখ্যানে একেবারেই খুশি নয় মেটা। তাই টিকটককে টেক্কা দিতে মরিয়া হয়েই ফেসবুকে বড় পরিবর্তন আনতে চাইছে মেটা।

এর আগে মেটা ২০২০ সালে টিকটকের মতো রিলস ফিচার যুক্ত করেছিল ইনস্টাগ্রামে। ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ফেসবুকেও দেখা মিলেছে শর্ট ভিডিওর। তারপরও টিকটককে ছাড়িয়ে যেতে পারছে না মেটা। এবার বড় পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে মেটা।

প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট দ্য ভার্জের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টিকটকের বাড়তে থাকা জনপ্রিয়তায় অস্বস্তিতে মেটা। তাই এবার ফেসবুক তার অ্যালগরিদম বদলানোর পরিকল্পনা করেছে। যার সাহায্যে ইউজারদের বেশি পরিমাণে কন্টেট সরবরাহ করা হবে।

এমনকি যে কন্টেন্টের সঙ্গে কোনো যোগসূত্র নেই, সেই কনটেন্টও ফুটে উঠবে ফেসবুকের টাইমলাইনে। অর্থাৎ টিকটকের ‘ফর ইউ’-এর মতোই এবার ফেসবুকে এমন কনটেন্টও দেখা যাবে যেটি আপনার ফ্রেন্ড লিস্টের বাইরে থাকা ইউজারের।

এছাড়া ফেসবুক ও মেসেঞ্জার আর আলাদা আলাদা অ্যাপ থাকছে না বলেও দাবি রিপোর্টের। সব মিলিয়ে ফেসবুককে একটি ‘ডিসকভারি ইঞ্জিন’ হিসেবে গড়ে তুলতে চায় মেটা।

এর আগে এই শব্দবন্ধ শোনা গিয়েছিল মার্ক জুকেরবার্গের মুখেও। সব মিলিয়ে মেটা ফেসবুককে এগিয়ে নিয়ে যেতে যে তিনটি বিষয়কে মাথায় রেখেছে তা হল রিলকে সফল করে তোলা, মেসেজ-নির্ভর শেয়ারিংকে আনলক করা এবং বিশ্বমানের টেকনোলজি ব্যবহার করা।

সূত্র: দ্য ভার্জ

টিকটক   টেক্কা   নতুন ফিচার   নিয়ে আসছে   মেটা  


মন্তব্য করুন


টেক ইনসাইড

এবার গুগল ক্রোম নিয়ে আসলো নতুন ডার্ক থিম

প্রকাশ: ১১:৪১ এএম, ০৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail এবার গুগল ক্রোম নিয়ে আসলো নতুন ডার্ক থিম

চলতি সপ্তাহে ব্যবহারকারীদের জন্য নতুন আপডেট আনছে গুগল ক্রোম ওএস ১০৪। নাইনটুফাইভ গুগলের প্রতিবেদন অনুসারে, নতুন আপডেট এক ধরনের ডার্ক থিম। যা স্বয়ংক্রিয়ভাবে মুড পরিবর্তন করতে পারবে।

এতোদিন গুগলের ডেভেলপাররা থিমটি নিয়ে বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা করেছে। সব কাজ সফলভাবে সম্পন্ন হওয়ার পরে অফিসিয়ালি গুগলের সব ডিভাসে এটি আপডেট দেওয়া হচ্ছে।

গুগল তার ব্লগ পোস্টে আপকামিং ফিচার নিয়ে জানিয়েছে, নতুন ডার্ক থিমটি আলোর সঙ্গে সমন্বয় করে ব্যবহারকারিদের স্বয়ংক্রিয়ভাবে সুবিধা দেবে। নতুন থিমটির ইউআই ও ওয়ালপেপার এমন ভাবে ডিজাইন করা হয়েছে, যাতে অল্প আলো বিশেষ করে রাতেও পাওয়ার কনসার্ভ করে লোলাইট সার্ভিস দিতে পারে। আবার বেশি আলোতেও স্ক্রিণের আলো সমন্বয় করতে পারে।

ক্রোম ওএস ১০৪ এর মধ্যে ‘অটো’ সেটিংও রয়েছে। এটি সিলেক্ট করে রাখলে বারবার থিম পরিবর্তন করতে হবে না। রাত ও দিনের আলোর তারতম্য অনুসারে থিমটি তার মুড পরিবর্তন করতে পারবে।

এই সুবিধাটি যেভাবে পাওয়া যাবে

– প্রথমে ক্রোমের সিটিং অপশনে যেতে হবে।

– পরে পারসোনালাইজেমন অপশনে ক্লিক করুতে হবে।

-সেখান থেকে সিলেক্ট করতে হবে ওয়ালপেপার অ্যান্ড স্টাইল।

– পরে লাইট, ডার্ক বা অটো মুড সিলেক্ট করতে হবে।

গুগল ক্রোম   নতুন ডার্ক থিম  


মন্তব্য করুন


টেক ইনসাইড

যেভাবে ফেসবুক প্রোফাইলের ছবি চুরি বন্ধ করবেন

প্রকাশ: ১১:২৪ এএম, ০৭ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail যেভাবে ফেসবুক প্রোফাইলের ছবি চুরি বন্ধ করবেন

ফেসবুক প্রোফাইল পিকচার আপলোড করলেই হ্যাকার বা দুষ্কৃতিকারীরা ছবি চুরি করেন। বিশেষ করে নারী ব্যবহারকারীরা এই সমস্যার মুখোমুখি বেশি হোন।

তবে কিছুটা কৌশলী হলে এ সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পেতে পারেন। চলুন তাহলে জেনে নিই, যেভাবে ফেসবুক প্রোফাইলের ছবি চুরি বন্ধ করবেন-

– প্রথমে ফেসবুক অ্যাপ ওপেন করে প্রোফাইল ট্যাপ করুন।

– এরপর উপরের দিকে থ্রি ডট মেনু সিলেক্ট করুন।

– সেখান থেকে লক প্রোফাইল অপশন সিলেক্ট করুন।

– স্ক্রিনের নীচে লক ইউর প্রোফাইল অপশন সিলেক্ট করুন।

– এরপর আপনি প্রোফাইলের ছবি আপলোড করলে কেউ স্ক্রিনশট বা ডাউনলোড করে চুরি করতে পারবে না।

একই সুবিধা ফেসবুক ডেস্কটপ ভার্সন থেকেও পাবেন। তাহলে চলুন জেনে নিই, যেভাবে ফেসবুক প্রোফাইলের ছবি চুরি বন্ধ করবেন-

– প্রথমে ব্রাউজার থেকে ফেসবুক ডটকম ওপেন করতে হবে।

-তারপরে প্রোফাইল ওপর ক্লিক করুন।

– এরপর আগের মতোই থ্রিডট মেনুতে ক্লিক করুন। সেখান থেকে লক প্রোফাইল অপশনে ক্লিক করুন।

– এবার প্রোফাইল লক করার কথা জানিয়ে একটি পপ আপ মেসেজ স্ক্রিনে দেখা যাবে। সেখান থেকে স্ক্রিনের নীচে লক ইউর প্রোফাইল অপশন সিলেক্ট করুন। এরপর আপনি প্রোফাইলের ছবি আপলোড করলে কেউ স্কিনশট বা ডাউনলোড করে চুরি করতে পারবে না।

ফেসবুক   প্রোফাইল   ছবি চুরি   বন্ধ করবেন  


মন্তব্য করুন


টেক ইনসাইড

খুব শীঘ্রই বাজারে আসছে স্যামসাংয়ের নতুন স্মার্টফোন

প্রকাশ: ০৮:০০ এএম, ০৩ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail খুব শীঘ্রই বাজারে আসছে স্যামসাংয়ের নতুন স্মার্টফোন

জনপ্রিয় স্মার্টফোন নির্মাতা স্যামসাং খুব শীঘ্রই বাজারে নিয়ে আসতে যাচ্ছে স্যামসাং গ্যালাক্সি এক্সকভার৬ প্রো মডেলের ফোনটি৷ এই ফোনটি ধুলাবালি ও পানি পরিশোধন যোগ্য এবং হাতে গ্লাভস পড়েও ব্যাবহার করতে পারবেন যা অন্যসব স্মার্টফোনে করতে গেলে বাধার সৃষ্টি হয়।  বলা যায় যারা একটু টেকসই ফোন খুজছেন তাদের জন্য দারুণ একটি ফোন এই স্যামসাং গ্যালাক্সি এক্সকভার৬ প্রো। তাহলে চলুন বাজারে আসন্ন এই ফোনের স্পেসিফিকেশন ও ফিচার সম্পর্কে কিছুওটা ধারণা নিয়ে নেই-

ডিসপ্লেঃ
স্যামসাং গ্যালাক্সি এক্সকভার৬ প্রো-এ ৬.৬ ইঞ্চির পিএলএস এলসিডি ডিসপ্লে রয়েছে, যা ফুল এইচডি+রেজোলিউশন, ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, ইনক্রিজড টাচ সেন্সিটিভিটি এবং কর্নিং গরিলা গ্লাস  ভিক্টাস এর নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে ফোনটির। 

বডিঃ
স্যামসাং গ্যালাক্সি এক্সকভার৬ প্রো ফোনটি কালো রঙের। এই ফোনিটিতে ব্যাপার করা যাবে ন্যানো ডুয়েল সিম।উক্ত ফোনটির আয়তন হবে ১৬৯×৮০×১০ মিলিমিটার এবং ওজন হবে মাত্র ২৩৫ গ্রাম।

হার্ডওয়্যারঃ 
স্যামসাং গ্যালাক্সি এক্সকভার৬ প্রো ফোনটিতে দেওয়া হয়েছে  অক্টাকোর  (4x2.4 GHz Kryo 670 & 4x1.8 GHz Kryo 670) প্রসেসর।

উক্ত ফোনটির সাথে দেওয়া হয়েছে ৬ জিবি র‍্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ। এই ফোনটিতে দেওয়া হয়েছে অ্যান্ড্রোয়ড ভার্সন ১২।
 
ফোনটিতে রয়্বছে ইউ এস বি ও টি জি এবং টাইপ সি পোর্ট এবং পোর্ট ২.০ দেওয়া আছে।

এছাড়া ৩.৫ মিলিমিটার অডিও জ্যাক, ব্লুটুথ ৫.২ , ডিরেক্ট ওয়াইফাই সহ রয়েছে যাবতীয় সুবিধা।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এক্সকভার ৬ প্রো এর ব্যাটারীটি দেওয়া হয়েছে ৪০৫০ মিলি অ্যাম্পিয়ার এর এবং ফাস্ট চার্জিং।

ক্যামেরাঃ
রিয়ার প্যানেলে অবস্থিত ক্যামেরা সেটআপের মধ্যে ৫০ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি সেন্সর এবং ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্স রয়েছে। এছাড়াও, সেলফি ভিডিও কলিং এর জন্য, ফোনের সামনে ওয়াটারড্রপ নচের ভেতরে ১৩ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা রয়েছে।

মূল্যঃ
স্যামস্যাং গ্যালাক্সি এক্সকভার৬ প্রো ফোনটির মূল্য বাংলাদেশি টাকায় আপাতত  নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৬ হাজার ১২০ টাকা।

স্যামসাং   স্মার্টফোন  


মন্তব্য করুন


টেক ইনসাইড

স্থগিত করা হলো টেলিটকের ৫জি প্রকল্প

প্রকাশ: ০১:৪৮ পিএম, ০২ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail স্থগিত করা হলো টেলিটকের ৫জি প্রকল্প

দেশে ৫জি প্রকল্প চালু করার উদ্যোগ নিয়েছিল টেলিটক। এ সংক্রান্ত একটি প্রকল্প অনুমোদনের জন্য জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) সভায় উপস্থাপনাও করা হয়েছিল। তবে দেশের রিজার্ভের ডলার সাশ্রয়ে টেলিটকের ৫জি প্রকল্প স্থগিত করেছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষের সঙ্গে যুক্ত হয়ে একনেক সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী। সভায় টেলিটকের ৫জি সংক্রান্ত একটি প্রকল্প অনুমোদনের জন্য উপস্থাপনার সময় প্রধানমন্ত্রী এ নির্দেশনা দেন। সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। 

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, তিনি (প্রধানমন্ত্রী) মনে করেন আগে ৪জি সেবা উন্নতি করা উচিৎ। সেইসঙ্গে বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় করার লক্ষ্যে এ প্রকল্প স্থগিতের নির্দেশ দেন একনেক সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, যেহেতু সরকার কৃচ্ছতা সাধন করছে এবং টেলিটকের ফাইভ জি প্রকল্পের বড় অংশই আমদানি নির্ভর। তাই ডলার ব্যবহারের ওপর চাপ কমাতেই প্রকল্পটি বাদ দেওয়া হয়েছে। আর আপাতত দেশে ফাইভ জি কাভারেজের চেয়ে ফোর জির পরিধি বাড়ানো জরুরি। সেই আঙ্গিকে মোবাইল অপারেটরদের কাজ করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। তবে সার্বিকভাবে বিদেশি ঋণ প্রকল্পের পরিধি কমবে কী না সে বিষয়ে আলোচনা হয়নি।

এর আগে, ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় টেলিটকের নেটওয়ার্ক বাণিজ্যিকভাবে চালু করার উদ্যোগ নেয় ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ। এজন্য বিভাগটি ২৩৬ কোটি ৫৪ লাখ টাকার প্রকল্প জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) আজকের সভায় অনুমোদনের জন্য তোলা হয়।

এদিকে একনেকে উত্থাপিত বাকী ৭ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ২ হাজার ৭ কোটি ৫৭ লাখ টাকা।

স্থগিত   টেলিটক ৫ জি   প্রকল্প  


মন্তব্য করুন


টেক ইনসাইড

ঢাকায় ৫ জি চালু করতে যাচ্ছে টেলিটক

প্রকাশ: ১১:১৫ এএম, ০২ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail ঢাকায় ৫ জি চালু করতে যাচ্ছে টেলিটক

টেলিটকের নেটওয়ার্ক বাণিজ্যিকভাবে চালু করতে যাচ্ছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ। এজন্য তারা প্রাথমিক ভাবে বেছে নিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকাকে। 

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) আজকের সভায় প্রকল্পটি অনুমোদনের জন্য তোলা হবে। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শেরেবাংলা নগরের সঙ্গে যুক্ত হয়ে সভায় সভাপতিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা।

এজন্য বিভাগটি ২৩৬ কোটি ৫৪ লাখ টাকার প্রকল্প হাতে নিয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, ‘ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় টেলিটকের নেটওয়ার্কে বাণিজ্যিকভাবে ৫জি প্রযুক্তি চালুকরণ’ প্রকল্পটি আজকের একনেক সভায় তোলা হচ্ছে। ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের এ প্রকল্পটি একনেকে অনুমোদনের পর চলতি বছরের জুলাই থেকে ডিসেম্বর ২০২৩ সালে বাস্তবায়ন করবে টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেড।

প্রকল্পের উদ্দেশ্য হচ্ছে- সরকার ঘোষিত লক্ষ্য অনুসারে ২০২১-২৩ সালের মধ্যে ৫জি প্রযুক্তিনির্ভর মোবাইল সেবা প্রদান করার প্রাথমিক পর্যায় হিসেবে ঢাকা মেট্রোপলিটনের কিছু এলাকায় বাণিজ্যিকভাবে ৫জি প্রযুক্তি চালু করার লক্ষ্য রয়েছে সরকারের। এর মাধ্যমে গ্রাহক পর্যায়ে ৫জি প্রযুক্তি বিষয়ক সচেতনতা বৃদ্ধি ও অন্যান্য মোবাইল অপারেটরদের ৫জি সেবা চালুকরণে উৎসাহিত করা হবে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ জানায়, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এলাকায় গণভবনসহ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, সরকারি গূরুত্বপূর্ণ স্থাপনাসমূহ, মোহাম্মদপুর, শের-ই-বাংলা নগর, বনানী গুলশান, ক্যান্টনমেন্ট ও উত্তরা থানা এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় বঙ্গভবন ও সচিবালয়সহ মতিঝিল, রমনা শাহবাগ, ধানমন্ডি থানার সহকারী গুরুত্বপূর্ণ ও বাণিজ্যিক স্থাপনায় প্রকল্পটির এলাকা নির্বাচন করা হয়েছে।

প্রকল্পের প্রধান কার্যক্রম হচ্ছে- টেলিটকের ঢাকা শহরে বিদ্যমান ২০০টি ৪জি বিটিএস সাইটে ৫জি প্রযুক্তিনির্ভর টেলিকম যন্ত্রাদি সংযোজন, টাওয়ার ও কক্ষ অবকাঠামোর প্রয়োজনীয় সংস্কার, বিদ্যুৎ সংযোগের ক্যাপাসিটি বৃদ্ধিকরণ, রেকটিফায়ার ও ব্যাটারি ক্যাপাসিটি বৃদ্ধিকরণ; এনটিটিএন অপারেটর হতে ভাড়াভিত্তিতে প্রস্তাবিত ২০০টি ৫জি সাইটে উচ্চগতির লাস্টমাইল ট্রান্সমিশন সংযোগ স্থাপন; ৫০টি সাইটে মাইক্রোওয়েভ রেডিও যন্ত্রাদি স্থাপন এবং ১ লাখ গ্রাহক ক্ষমতাসম্পন্ন আইএমএস প্ল্যাটফর্ম স্থাপন ও বিদ্যমান কোর নেটওয়ার্ক সিস্টেমের প্রয়োজনীয় আপগ্রেডেশন ও সম্প্রসারণ করা।

পরিকল্পনা কমিশনের ভৌত অবকাঠামো বিভাগে সদস্য (সচিব) মামুন আল-রশিদ তার মতামতে বলেন, প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে সরকার ঘোষিত লক্ষ্য অনুসারে ২০২১-২৩ সালের মধ্যে ৫জি প্রযুক্তিনির্ভর মোবাইল সেবা প্রদান করার প্রাথমিক পর্যায় হিসেবে ঢাকা মেট্রোপলিটন শহরের কিছু এলাকায় বাণিজ্যিকভাবে ৫জি প্রযুক্তি চালুকরা হবে। এর মাধ্যমে গ্রাহক পর্যায়ে ৫জি প্রযুক্তি বিষয়ক সচেতনতা ও অন্যান্য মোবাইল অপারেটরদের ৫জি সেবা চালুকরণে উৎসাহিত করা সম্ভব হবে।

৫ জি   টেলিটক  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন